November 10, 2019, 12:57 pm

শিরোনাম :
গাইবান্ধায় দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীকে আর্থিক সহায়তা দিলো জেলা প্রশাসক গাইবান্ধায় পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী পালিত চট্টগ্রামে আল্লামা তাহের শাহের নেতৃত্বে জুলুশে লাখো নবী প্রেমিকের ঢল কেশবপুরে পৌর বিএনপির উদ্দ্যোগে বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত তালায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তান্ডবে প্রায় ৪ হাজার বাড়িঘর বিধ্বস্ত, উপড়ে পড়েছে হাজার হাজার গাছ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে গাছ কেটে নিয়ে গেলো মহাস্থান জাদুঘরের কর্মচারীরা অর্থাভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হতে পাচ্ছেন না চিলমারীর মেধাবী শিক্ষার্থী আবু হাসান শৈলকুপায় নগদ টাকাসহ ৭ জুয়াড়ী আটক ঝিনাইদহের শৈলকুপায় যাত্রীবাহি বাস উল্টে আহত ২৫ সেবা মিলছে না চিলমারীর চরাঞ্চল এলাকার কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে

পাকিস্তানকে উড়িয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু উইন্ডিজের

পাকিস্তানকে উড়িয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু উইন্ডিজের ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক                          ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিস্তান প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে যেত পারলো না বিশ্বকাপে! নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে লজ্জার রেকর্ড গড়েই ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হেরে গেছে ৭ ... বিস্তারিত

স্টোকসের এই ক্যাচই কি বিশ্বসেরা?

স্টোকসের এই ক্যাচই কি বিশ্বসেরা? ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক   প্রথম ম্যাচেই জমজমাট ক্রিকেট বিশ্বকাপ। ১০৪ রানে দক্ষিণ আফ্রিকা হেরে গেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের কাছে। এই ম্যাচটি মনে রাখবে ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার বেন ... বিস্তারিত

দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশের বিপক্ষেই ঘুরে দাঁড়াবে

দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশের বিপক্ষেই ঘুরে দাঁড়াবে ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক   বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বড় ব্যবধানেই হেরেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীর ধারণা বাংলাদেশের বিপক্ষে ... বিস্তারিত

দু প্লেসি হারলেও আশাবাদী

দু প্লেসি হারলেও আশাবাদী ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক   ইংল্যান্ডের কাছে বাজেভাবে হারার কথা নির্দ্বিধায় স্বীকার করলেন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসি। কিন্তু এই হার থেকেও আশাবাদী হওয়ার কারণ খুঁজে ... বিস্তারিত

অন্যরকম অনুভূতি হয় দেশের জার্সি পরে মাঠে গেলে

অন্যরকম অনুভূতি হয় দেশের জার্সি পরে মাঠে গেলে ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক সুদূর ইংল্যান্ড, ভিনদেশী কন্ডিশনে এই বিশ্বকাপ খেলবে বাংলাদেশ। কিন্তু সেখানেও তারা পেতে পারে দেশের আবহ। তাদের স্বাগত জানাতে প্রস্তুত ... বিস্তারিত

সুমিতোমো জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়বে নারায়ণগঞ্জে

সুমিতোমো জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়বে নারায়ণগঞ্জে ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক বিদেশি বিনিয়োগের বিপুল সম্ভাবনা নিয়ে নারায়ণগঞ্জের আড়াই হাজার উপজেলায় প্রস্তাবিত ‘জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল’ চূড়ান্ত ধাপে উন্নীত হয়েছে। প্রায় এক হাজার একর ... বিস্তারিত

সার্চ রেজাল্টের নকশা পরিবর্তন করছে গুগল

সার্চ রেজাল্টের নকশা পরিবর্তন করছে গুগল ডিটেকটিভ প্রযুক্তি ডেস্ক মোবাইল ডিভাইসে সার্চ রেজাল্ট দেখানোর নকশা পরিবর্তন করছে গুগল। এতে প্রতিটি লিংকের সোর্সগুলো আরও হাইলাইট করা হবে। শীঘ্রই মোবাইল সার্চিংয়ে ওয়েবসাইটের ... বিস্তারিত

নতুন স্টারহপার রকেটের পরীক্ষায় স্পেসএক্স

নতুন স্টারহপার রকেটের পরীক্ষায় স্পেসএক্স ডিটেকটিভ প্রযুক্তি ডেস্ক আসন্ন এক পরীক্ষামূলক উড্ডয়নে স্টারহপার রকেট উৎক্ষেপণ করবে স্পেসএক্স। এটি আকাশে ১৬,৪০০ ফুট ওপরে উঠবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে সাম্প্রতিক এক আবেদনে। ... বিস্তারিত

রক্ত থেকে বিষাক্ত উপাদান দূর করতে করনীয়

রক্ত থেকে বিষাক্ত উপাদান দূর করতে করনীয় ডিটেকটিভ লাইফস্টাইল ডেস্ক রক্ত পরিশোধনের প্রধান দায়িত্ব পালন করে বৃক্ক এবং যকৃত। গৃহস্থালী কিছু উপকরণ এই রক্ত পরিশোধন প্রক্রিয়ার উপকারী ভূমিকা পালন করতে ... বিস্তারিত

সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তানোরের কাঁমারগা ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আলাউদ্দিন আটক

আব্দুর রাজ্জাক রাজু, (রাজশাহী) তানোর থেকে : রাজশাহীর তানোর উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য মোঃ আলাউদ্দিন আলী মেম্বারকেবৃহস্পতিবার ৩০শে মে ২০১৯ ইং রাজশাহী সিনিয়র চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদলত (৬) এ আটককরা হয়েছে। আদালত কর্তৃক ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী আলাউদ্দিন রাজশাহী সিনিয়র জুডিসিয়ালআমলী আদালতে জামিন নিতে গেলে এজলাস কক্ষে বিচারক মামলার বিস্তারিত বিষয় উপলদ্ধি করিয়া তারজামিন না মঞ্জুর করেন এবং তাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।অপরদিকে পিতা আলাউদ্দিন মেম্বারের গ্রেফতারের কথা শুনে আসামীর ছেলে উক্ত মামলার ১০ নং আসামীমোঃ বিদ্যুৎ প্রামাণিক (৩২) ও তার সহযোগীরা নিজ বাড়ি থেকে দেশীয় অস্ত্র (রামদা) নিয়ে একই গ্রামের এইমামলার বাদী মৃত: মুলাম মন্ডলের ছেলে মোঃ আব্দুল কাদেরের বাসায় বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে প্রকাশ্যদিবালকে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার বাসার বাইরে গিয়ে চিল্লা-চিল্লি করে। তৎক্ষনাত আব্দুল কাদের বিষয়টিআঁচ করতে পেরে তার বাড়ির দরজা-কপাট আটকিয়ে দেয়। বিদ্যুৎ তার লোকজনসহ দরজা বন্ধ পেয়ে বাড়িরবাহিরে থেকেই নানান ধরনের হুমকি ও অসভ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। সেই সময় গ্রামের সচেতননাগরিক ১। মোঃ ইন্তাজ আলী, পিতা- গমির উদ্দিন, ২। মোঃ ছহির মন্ডল, পিতা- আমির সরর্দার, ৩। মোঃলবির মন্ডল, পিতা- বজের মন্ডল, ৪। মোঃ ইসমাইল হোসেন, পিতা- দশো, ৫। মোঃ মইনুল ইসলাম, পিতা-ইসমাইল হোসেন ও স্থানীয় গ্রাম পুলিশ (চৌবিদার) সহ গ্রামের লোকজন মিলে তাদেরকে থামিয়ে দেয় এবংসেখান থেকে তাদেরকে সরিয়ে নিয়ে যায়।এলাকার একাধিক ব্যাক্তির সাথে সরজমিনে কথা বলে জানা যায়, আসামী আলাউদ্দিন আলী মেম্বার একজনসন্ত্রাস প্রকৃতির ব্যাক্তি। সে তার স্থানীয় পেশী শক্তির দ্বারা অর্থের বিনিময়ে যে কোন আইন বিরোধী কাজকরতে একচুল পরিমানও পিছু-পা হয় না। সে এলাকার জনপ্রতিনিধি হওয়ায় ক্ষমতার দাপটে বিভিন্ন অপকর্মকরে পার পেয়ে যায়।এই মামলার বিষয়ে বাদী মোঃ আব্দুল কাদের, পিতা- মৃত: মুলাম মন্ডল, সাং- মালশিরা, থানা- তানোর, জেলা- রাজশাহী বলেন, বিগত ১৪ মার্চ ২০১৯ ইং বৃহস্পতিবার বেলা আনুমানিক ১১টার দিকে পূর্ব শত্রæতার জেরধরে পরিকল্পিতভাবে বে-আইনি জনতায় দলবদ্ধ হইয়া, বাঁশের লাঠি, লোহার রড, সাবল, ফার্সি, হাঁসুয়া, চাইনিজ কুড়াল, বেলট ইত্যাদি দেশীয় মারাত্মক অস্ত্রে সস্ত্রে সু-সজ্জিত হয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধাওয়া করলেআমি প্রাণ ভয়ে দৌড়ে আমার বাসায় প্রবেশ করি। সেই মহুর্তে আমার পিছু পিছুই আমার বাড়িতে প্রবেশ করেআমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আলাউদ্দিন মেম্বারের হুকুমে মামলার উল্লেখিত ৫ নং আসামী মোঃ দেলোয়ার আমারমাথায় পাসলি দ্বারা দুইটা কোপ দিলে আমি সেই মহুর্তে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। এবং সেই সময় ৬-৭নং আসামী হাসান ও আফজাল তাদের হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দ্বারা আমাকে অজ্ঞান অবস্থাতেই পিটাতে থাকে।পরবর্তীতে আমার স্ত্রী মঞ্জুয়ারা চিৎকার করে আমাকে বাঁচাতে আগাইয়া আসিলে ১ নং আসামী আলাউদ্দিনেরহাতে থাকা লোহার সাবল দ্বারা তাকেও হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা লক্ষ করিয়া আঘাত করিলে উক্ত আঘাত হাতদিয়া ঠেকাইলে আমার স্ত্রীর বাম হাতের কনুইয়ের নিচে লাগিয়া হাড় ভাঙ্গিয়া গুরুত্বর যখম হয় এবং হাড় বেরহয়ে হাত ঝুলিয়া যায়। আমার স্ত্রী মাটিতে পড়িয়া গেলে ২ নং আসামী সুজাত মুঞ্জুয়ারাকে টানা হেঁচড়া করিয়াঅমানবিকভাবে বিবস্ত্র করিয়া ফেলে, বাড়ি থেকে তাকে বের করতে না পেরে আবারো ২-৩ নং আসামী সুজাতও মজিবর তাদের হাতে থাকা বেলট দ্বারা তার শরীরের নিচের দিকে থেতলানো জখম করে। পার্শ্বের গ্রাম থেকেআমার শশুর লোক মুখে আমরা হয়ত বা মারা গিয়েছি  এহেন সংবাদ পাইয়া তৎক্ষনাত শালক ও শাশুড়ীসহআমার বাড়িতে আসিলে তাদের উপরেও চড়াও হইয়া আলাউদ্দিনের হুকুমে মামলার ১৩ নং আসামী আব্দুলআজিজ আমার শশুরের মুখের সামনের দিকে বাড়ি মারে তৎক্ষনাত বাম পাশের চোখের নিচে ফেটে গিয়েরক্তাক্ত যখম হয় বর্তমানে তিনি বাম চোখে ঠিক মত দেখতে পান না। সর্বশেষ আমার গরু বিক্রির ৮০,০০০/- (আশি হাজার) টাকা সুকেচের ড্রয়ার ভাঙ্গিয়া ৪ নং আসামী জুয়েল চুরি করিয়া নেই এবং বাড়ির বিভিন্নআসবাবপত্র ও ইটের প্রাচীর ভাঙ্গিয়া সর্বোমোট ২,৬০,০০০/- (দুই লক্ষ ষাট হাজার) টাকার ক্ষতি সাধন করেবলে তিনি জানান।গ্রেফতারের বিষয়টি বাদী পক্ষের অ্যাডভোকেট মোঃ মাসুদ রানা নিশ্চিত করে বলেন, আমি গত বৃহস্পতিবার৩০শে মে ২০১৯ ইং রাজশাহী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত হয়ে মামলার ১ নং আসামীআলাউদ্দিন মেম্বারের জামিনের বিরোধীতা করি এবং বিচারককে বোঝাতে সক্ষম হলে বিচারক তার জামিনআবেদন না মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। প্রাইভেট ডিটেকটিভ/ ৩১ মে ... বিস্তারিত