July 6, 2020, 3:07 pm

শিরোনাম :
কলাপাড়ায় স্কুল কলেজ শিক্ষকদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর মৌলভীবাজার শহীদ মিনারে নবাগত ডিসি মীর নাহিদ আহসানের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ চিলমারীতে বন্যা দূর্গতদের মাঝে ফ্রেন্ডশিপের ত্রাণ বিতরণ আলফাডাঙ্গায় তহশীলদারের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ তাহিরপুরে যাদুকাটায় টোল টেক্সের নামে বেপরোয়া চাঁদাবাজী প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল মহামারী মরন ব্যাধী করোনায় একদিনে আরও ৪৪ মৃত্যু,আক্রান্ত ৩২০১ আলফাডাঙ্গা উপজেলা সেজে উঠছে পরিকল্পিত উন্নয়নের ছোঁয়ায় বিরামহীন ভাবে কাজ করছে ভোলার নৌবাহিনীর সদস্যরা ভোলার বোরহানউদ্দিনে গ্রাম পুলিশদের মাঝে বাই সাইকেল বিতরণ ঢাকা টু বেতুয়া রুটে চলাচলকারী কর্নফুলী লঞ্চ স্টাফদের যৌনহয়রানীর কারনে মেঘনা নদীতে ঝাপ দিলেন এক কিশোরী

সুনামগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী আন্তঃ উপজেলা কুস্তি প্রতিযোগিতা সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন

Spread the love
কামাল হোসেন, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের ভাটি অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহি ভাইয়াপি খেলা আন্তঃ উপজেলা কুস্তি প্রতিযোগিতা ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে জেলার ৫ উপজেলার কুস্তি প্রতিযোগিতায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। গতকাল  বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে শহরের স্টেডিয়াম মাঠে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় অংশ নেয় জেলার ৫টি উপজেলার খেলোয়াড়বৃন্দ।উপজেলাগুলো হলো জামালগঞ্জ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, সুনামগঞ্জ সদর, বিশ্বম্ভরপুর ও তাহিরপুর। সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে চলে মালের এ খেলা। খেলায় ৫টি দল অংশ গ্রহন করলেও প্রতিযোগীতায় জামালগঞ্জ বনাম সুনামগঞ্জ সদর ফাইনাল পর্বে উত্তীর্ন হয়। এ দুটি দলের মধ্যে বিকেলে আনন্দ উত্তেজনায় চলে খেলা। এ সময় মাঠে যেমন নেমে আসে উত্তেজনা, তেমনি নিরবতা। কে হারে, কে জিতে এমন প্রতিযোগী মনোভাব নিয়ে দু’দলের দর্শকই মাঠ কাঁপিয়ে রাখছিলেন। শেষ পর্যন্ত জামালগঞ্জ কুস্তি দল ভাল খেললেও সুনামগঞ্জ সদর এর কাছে ১ কুস্তির ব্যবধানে হেরে যায়।  সকালে  খেলাটি উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো: আব্দুল আহাদ। এ সময় উপস্থি’ত ছিলেন, জেলা পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, সকল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ। খেলায় হাজার হাজার দর্শক উপস্থিতি লক্ষ করা যায়। ভাটি অঞ্চল থেকে আগত দর্শকরা গ্যালারিতে ঠাঁই না পেয়ে মাঠের মধ্যে কেউ বসে, কেউ দাঁড়িয়ে খেলা উপভোগ করতে দেখা গেছে। এত দর্শক ফুটবল কিংবা ক্রিকেট খেলাতে দেখেননি এমন বক্তব্য সবার। জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ বলেন, এক উপজেলার সাথে  অন্য উপজেলার সৌহাদ্য ও সম্প্রতি বাড়াতে এ খেলার আয়োজন করা হয়েছে। শতবছরের ঐতিহ্যবাহী বিনোদনের অন্যতম কুস্তি খেলার মধ্যে দিয়ে সামাজিক বন্দন সুদৃঢ় হয়। যুব সমাজের দৈহিক গঠন, যুব সমাজকে অনৈতিক কার্যকলাপ থেকে দুরে রাখা সহ হাওরাঞ্চলের মানুষের মনে যুগ যুগ ধরে আনন্দ দানের সহায়ক ভুমিকা পালন করে আসছে এ ঐতিহ্যবাহী কুস্তি খেলা। ভাটি অঞ্চলের মানুষের প্রিয় খেলা কুস্তি। এ খেলা দেখে আমরা আনন্দ পাই। প্রতিবছর জেলা পর্যায়ে এ খেলার আয়োজন অব্যাহত থাকুক।
প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৫ নভেম্বর ২০১৯/ইকবাল
Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ