August 23, 2019, 12:03 pm

শিরোনাম :
চাদাঁ দিয়ে নয় ,একই মায়ের অভিন্ন সন্তান হিসেবে বসবাস করতে চাই-কংজরী চৌধুরী তোয়াকুল ছাত্র জমিয়তের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত বগুড়ার মহাস্থান উচ্চ বিদ্যালয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের নিয়ে জনসেচনতামূলক র‌্যালী ও লিফলেট বিতরন বোয়ালমারীতে প্রাইম ব্যাংক কর্মকর্তার বিদায় বরণ অনুষ্ঠান সারিয়াকান্দিতে বজ্রঘাতে মানুষ সহ গরুর মৃত্যু তাহিরপুর প্রেসক্লাব সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে তাহিরপুর প্রেসক্লাবের নিন্দা ও প্রতিবাদ দেশে সত্যিকারের হিরো কৃষক- কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া তালায় এক বৃদ্ধ রহস্যজনকভাবে আত্নহত্যা আলফাডাঙ্গায় ভাতিজার হাতে চাচী খুন কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে কিশোরীকে ধর্ষণ শেষে হত্যার অভিযোগ

সিরিয়ার ‘শেষ ঘাঁটি রক্ষায় তুমুল প্রতিরোধ’ আইএস জঙ্গিদের

Spread the love

সিরিয়ার ‘শেষ ঘাঁটি রক্ষায় তুমুল প্রতিরোধ’ আইএস জঙ্গিদের

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

 

পূর্ব সিরিয়ায় নিজেদের ‘শেষ ঘাঁটি’ রক্ষায় মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) যোদ্ধারা তুমুল প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন সমর্থিত সিরীয় বাহিনীর সদস্যরা। জঙ্গিগোষ্ঠীটির ‘সবচেয়ে অভিজ্ঞ‘ যোদ্ধারা সর্বশক্তি দিয়ে যুদ্ধ করছে, অন্য একটি সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছেন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেসের (এসডিএফ) মুখপাত্র মুস্তাফা বালি। দুই বছর আগেও আইএস সিরিয়া ও ইরাকের বিশাল একটি অংশ নিয়ন্ত্রণ করত। টানা আক্রমণে কমতে কমতে তাদের অবস্থান এখন ইরাক সীমান্তের কাছে দেইর আল জোর প্রদেশের একটি ছোট পকেটে এসে ঠেকেছে।বেসামরিক ২০ হাজার বাসিন্দাকে সরে যাওয়ার সুযোগ করে দিতে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে যুদ্ধ বন্ধ রাখা এসডিএফ গত শনিবার সীমান্তবর্তী বাঘুজ গ্রামে ‘আইএস নিশ্চিহ্নে চূড়ান্ত আক্রমণ’ শুরু করে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে। এরপর থেকেই আইএসের যোদ্ধাদের সঙ্গে তুমুল লড়াই শুরু হয়, জানান মুস্তাফা। ভেতরে থাকা যোদ্ধারা সবচেয়ে অভিজ্ঞ, তারা শেষ দূর্গ রক্ষায় সঙ্কল্পবদ্ধ। এ থেকেই আপনারা যুদ্ধের মাত্রা ও তীব্রতা বুঝতে পারছেন, গত শনিবার রাতেই বলেছেন এসডিএফের এ মুখপাত্র। মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের ধারাবাহিক বিমান হামলার সহায়তা নিয়ে এসডিএফ সাম্প্রতিক মাসগুলোতে উত্তরপূর্ব সিরিয়ার বিভিন্ন গ্রাম ও শহর থেকে আইএসদের বিতাড়িত করেছে। ২০১৪ সালে নিজেদের সুসময়ে আইএস ইরাক ও সিরিয়ার বিশাল এলাকাজুড়ে ‘খেলাফত’ কায়েম করেছিল, আয়তনে ওই অংশটি প্রায় যুক্তরাজ্যের সমান বড় ছিল। জঙ্গিগোষ্ঠীটি সেসময় প্রায় ৮০ লাখ মানুষকে শাসন করত, জানিয়েছে রয়টার্স। মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনী ও রুশ সমর্থিত বাহিনীর ধারাবাহিক অভিযানে আইএসকে ৯৯ শতাংশ এলাকা থেকে পাততাড়ি গোটাতে হয়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আইএসের জঙ্গিরা ‘প্রায় নিঃশেষ’ হয়ে এসেছে জানিয়ে সিরিয়া থেকে অবশিষ্ট ২ হাজার মার্কিন সেনা ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন। গত বুধবার তিনি বলেছেন, আমরা যে (আইএস) খেলাফতের শতভাগেরই নিয়ন্ত্রণ নিতে পেরেছি, সম্ভবত আগামি সপ্তাহেরই কোনো এক সময়ে তা ঘোষণা করা হবে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ