November 19, 2019, 2:18 am

শিরোনাম :
ভোলার ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ র‌্যাব-৫ এর অভিযানে রাজশাহীর চারঘাটে হেরোইনসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের অসহনীয় মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশ সাঘাটায় নিজ প্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা কেন্দ্র, হেড স্যার দিচ্ছেন গার্ড, দেখার কেউ নেই ক্ষেপণাস্ত্র এস-৪০০ পেতে রাশিয়াকে ভারতের অগ্রিম টাকা তিন বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি পেঁয়াজ কারসাজির সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করা হচ্ছে: হানিফ বুয়েটের আন্দোলনে উসকানি দেওয়া হচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী থানা পুলিশের পৃথক ৩টি অভিযানে তানোরে ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামি, মাদক ব্যাবসায়ী ও মাদকসেবীসহ আটক ৩ বগুড়া সদরের গোকুল টু রামশহর রাস্তায় নিম্ন মানের কাজ করাকালে এলাকাবাসী কর্তৃক বন্ধ করে দিয়েছে..
প্রতিকি ছবি

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে অধ্যক্ষের কক্ষে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

Spread the love

মোঃ মেহেদী হাসান,বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

প্রতিকি ছবি

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলায় আবদুর রাজ্জাক (৩৩) নামে এক যুবককে কলেজ অধ্যক্ষের কক্ষে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।গত ১0 অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ধুকুরিয়াবেড়া ইউনিয়নের সাতলাঠি আকন্দপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।রাজ্জাক লক্ষ্মীপুর গ্রামের আবদুস সামাদের ছেলে। এ ঘটনার পর রাজ্জাকের বাবা গত ১১ অক্টোবর শুক্রবার রাতে ১০ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে মামলার অন্যতম আসামি দৌলতপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ রানাকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।এ বিষয়ে ধুকুরিয়াবেড়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য রাজ্জাকের চাচাতো ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সাতলাঠি আকন্দপাড়া গ্রামের ওমর আলী মাস্টারের অনার্স পড়ুয়া ছেলে আলমগীর হোসেনের সঙ্গে একই গ্রামের প্রতিবেশী অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক দাবিতে ওই ছেলেটির বাড়িতে গিয়ে ওঠে। অথচ ছেলের পরিবার বিয়েতে রাজি না হওয়ায় স্থানীয়রা বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে কয়েক দফা সামাজিক বৈঠকে বসে। কিন্তু ছেলেপক্ষ বৈঠকে হাজির না হওয়ায় ও মেয়েটি অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় এর সমাধান হয়নি।এরই মধ্যে দৌলতপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ রানা, ধুকুরিয়া বেড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি খোরশেদ আলম, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ওয়াহাব আলীসহ বেশ কয়েকজন মুরব্বি ধুকুরিয়াবেড়া গার্লস হাইস্কুলে বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে বসেন। ছেলে পক্ষ ওই বৈঠকে হাজির না হলেও ভবিষ্যতে দু’জনের বিয়ে হবে বলে তারা একটি লিখিত সিদ্ধান্ত নেন।এদিকে, বৈঠকে বিয়ের সিদ্ধান্ত না নিতে প্রেমিক আলমগীর হোসেনের বাবা ওমর আলী মাস্টার স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও আলমগীরের বন্ধু হাফিজুলসহ কয়েকজনকে কিছু টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু, বিয়ের সিদ্ধান্ত হওয়ায় তিনি টাকা দিতে অস্বীকার করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হাফিজুল, আওয়ামী লীগ কর্মী হানিফ, ফরিদুল, শাহ আলম, আইয়ুব আলী ও কাশেমসহ বেশ কয়েকজন প্রেমিক আলমগীরের চাচা ইমতিয়াজকে দৌলতপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ রানার কক্ষে আটকে মারধর করেন। খবর পেয়ে ইমতিয়াজের আরেক ভাতিজা আবদুর রাজ্জাক তাকে ছাড়াতে গেলে তারা রাজ্জাককেও ওই কক্ষে আটকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা রাজ্জাককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে অধ্যক্ষ মাসুদ রানাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৩ অক্টোবর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ