November 8, 2019, 3:02 pm

শিরোনাম :
সুনামগঞ্জ সীমান্তে ভারতীয় গাঁজা আট সরকার দলীয় জাতীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম রতনের স্ত্রী সেই শিক্ষিকা ঝুমুর বরখাস্ত পলাশবাড়ীতে মহাসড়কে নৈশকোচ ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহত ১ মানুষের শরীরে প্লাস্টিকের উপস্থিতি; সচেতনা সৃষ্টিতে হেঁটে দেশ ঘুরছেন চট্টগ্রামের চিকিৎসক বাবর রূপকাঠীতে মুখডাকা ভ্রাম্মমান আদালত পরিচালনা ৫ দোকানে ২২ হাজার জরিমানা  বিশেষ নিরাপত্তা বাতিল হচ্ছে সোনিয়া-রাহুল-প্রিয়াঙ্কার ম্যাগনেট ক্রয়ের ছিনতাইকৃত টাকা উদ্ধারে ডিবির অভিযান শার্শার উলাশীতে পিস্তলসহ আটক-২ ৭ নভেম্বরের হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর দলমত নির্বিশেষে মানুষের সেবা করে গেছেন খোকা: মেয়র খোকন ভিসির দুর্নীতির প্রমাণ না দিলে অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী

সাঘাটায় শিক্ষার্থীদের মাঝে ফলদ ও ঔষধি চারা বিতরণ

Spread the love

মোস্তাফিজুর রহমান ফিলিপস্ শাহ্,সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় স্বপ্নের ভুবন বিদ্যাতরীর শিক্ষার্থীদের মাঝে বিভিন্ন

ফলদ ও ঔষধি চারা বিতরণ এবং অভিভাবক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে স্বপ্নের ভূবন বিদ্যাতরী স্কুলে ৫শত বিভিন্ন ফলদ ও ঔষধি চারা বিতরণ করেন, স্বপ্নের ভূবন বিদ্যাতরী চেয়ারম্যান জনাব, আমিনুর রহমান অরুন এবং তার সহধর্মীনি সাহেদা রহমান।আলোচনা কালে তিনি বৃক্ষ রোপনের নানান দিক তুলে ধরে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, আমরা আমাদের দৈনন্দিন চাহিদার জন্য বনায়ণ উজার করে গাছ কেটে নদী ভরাট করে প্রকৃতির উপর আঘাত হানছি। ফলে বন্যা, ভূমিধ্বসসহ প্রকৃতিক দূর্যোগ আমদের আক্রমন করছে। এবং আমদের অক্সিজেন সরবরাহের উপর ও প্রভাব পড়ছে। আমরা যদি বৃক্ষ রোপন করে বনায়ণ তৈরীতে সহযোগীতা করলে এই সামস্যা গুলো থেকে মুক্তি লাভ করতে পারবো। তাই আপনরা আপনাদের পরর্বতী প্রজন্মের ভবিষৎ এর কথা ভেবে বেশি বেশি বৃক্ষ রোপন করুন এবং পৃথিবীকে শীতল রাখতে নিজ নিজ উদ্দেগ্যে এগিয়ে আসুন।এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ২নং ভরতখালী ইউনিয়ন পরিষদ জনাব, ছামছুল আজাদ শীতল , স্থানীয় ব্যক্তিত্ব্য তৌফিকুল ইসলাম কাদেরী, নিয়াজ কাদেরী, স্বপ্নের ভূবন বিদ্যাতরীর পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ফারুক কাদেরী, আহম্মেদ দুদু প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হোসেন আলী, আকরাম মন্ডল শিক্ষক / শিক্ষিকা প্রমুখ। উল্লেখ্য আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে উক্ত প্রতিষ্ঠানে বৃত্তি প্রাপ্ত ছাত্র/ছাত্রীদের সন্মাননা সূচক নগদ অর্থ তুলে দেয়া হয়।
ছবি সংযুক্ত।

ঝুঁকি নিয়ে চলছে যান বাহন ও পথচারী সাঘাটা-গাইবান্ধা সড়কে জোড়া তালির ব্রীজ

মোস্তাফিজুর রহমান ফিলিপস্ শাহ্,সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধা-সাঘাটা সড়কে বাদিয়াখালী নামকস্থানে জোড়া তালির ব্রীজে ঝুঁকি নিয়ে চলছে যান বাহন ও পথচারী । সাঘাটা উপজেলা থেকে গাইবান্ধা জেলা শহরে প্রবেশের একমাএ সড়কটির বাদিয়াখালি আলাই নদীর উপর ব্রীজটি বিগত সময় বন্যায় পানির তোড়ে ক্ষতি হওয়ায় প্রশাসন আপদ কালিন টানা ব্রীজ ও বাকি অংশে লোহার পাটতন জোড়া তালি দিয়ে কোন মতে যান বাহন চলাচলের ব্যাবস্থা করেছেন । অস্থায়ী ভাবে লাগানো লোহার পাটাতন নড়বড়ে ও একপাশে রেলিং চুরি যাওয়ায়।যানবাহন চলাচলে মারাক্তক হুমকি হয়ে পড়েছে। প্রায় দুই যুগের পুরনো ওই ব্রীজ দিয়ে  মারাক্তক ঝুকি নিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলায় চলাচল করছে । প্রস্থত না হওয়ায় এ পর্যন্ত অন্তত অর্ধশতাধিক ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে ওই ব্রীজে । গত বন্যায় আরো ক্ষতির মুখে পড়েছে ব্রীজটি। নিচের মাটি এবং মাটি আটনো দেয়াল ভেঙ্গে যাচ্ছে। জানাযায়, সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার হাজার হাজার মানুষের গাইবান্ধা জেলা শহরে যাতায়াতের জন্য একটি মাএ ব্রীজ গত ১০ বছর পূর্বে একাংশ ধসে ও ভেঙ্গে যাওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। কর্তৃপক্ষ ধসে যাওয়া প্রায় ২০ ফুট স্থানে পাটাতন দ্বারা যানবাহন যাওয়া আসা ব্যবস্থা করে । তখন থেকে এ পর্যন্ত মেরামত কিংবা ব্রীজটি উন্নয়নে কোনো ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি নড়বড়ে পাটাতনের ওপর দিয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে যাএী বাহী যানবাহনসহ ভারি যান বাহন গÍলো চলাচল করছে। ব্রীজটি অন্যান্য অংশে ও অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে ক্ষতি গ্রস্ত হওয়ার আশংকা রয়েছে।যে কোন মূহুর্তে ব্রীজ ভেঙ্গে যান বাহন চলাচল বিছিন্ন হতে পারে। এ ছাড়া সাঘাটা – গাইবান্ধা সড়কে গত বন্যায় বিভিন্ন স্থানে মাটি ধসে, পিচ উঠে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসি জরুরী ভিত্তিতে একটি প্রস্থত আর সি সি গার্ডার ব্রীজ নির্মানের দাবী জানিয়েছেন সরকারের প্রতি । সাঘাটার পদুম শহর ইউপি চেয়ারম্যান তৌহিদুজ্জামান স্বপন জানান, একটি পাকা ব্রীজ দরকার ওই স্থানে। বোনার পাড়া বাজারের হটেল ব্যবসায়ী অবিনাস জানান, ব্রীজটি নির্মান করা হলে আর দূঘটনা ঘটবেনা। ভরতখালীর ওমর ফারুক বলেন,ব্রীজটি নির্মানের দাবী এলাকাবাসির বহুদিনের, জরুরী ভাবে ব্রীজ করা না হলে যে কোন মহুর্তে বড় ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। গাইবান্ধা সড়ক ও জনপদ বিভাগের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা বলেন,ব্রীজ হবে তবে একটু সময় লাগছে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ