October 15, 2019, 9:13 am

শিরোনাম :
ছিনতাইকারী চক্রের চার সদস্য আটক বগুড়ার মাটিডালীতে নেশার টাকা না পেয়ে এক ব্যক্তির আত্মহত্যা শিবগঞ্জে পানির ফোয়ারা সহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক সুনামগঞ্জ সীমান্তে ৩ লক্ষ টাকার ভারতীয় প্রকার পণ্য আটক পাইকগাছায় মহিলা লীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে আপত্তিকর জিডি করায় ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদককে গণপিটুনী ফুলবাড়ী থানা পুলিশের অভিযানে ৫ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক-১ ফুলবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ নকল জুস ধ্বংস বোয়ালমারীতে নিখোঁজ অটোভ্যান চালক কিশোরের কঙ্কাল উদ্ধার যশোরের শার্শা সীমান্তে ফেনসিডিলসহ আটক-১ মিঠাপুকুরে ফটোসেশনেই সীমাবদ্ধ বাল্যবিবাহ নিরোধ দিবসের কর্মসূচী

সম্রাটের সহযোগী কে এই আরমান?

Spread the love

সম্রাটের সহযোগী কে এই আরমান?

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

এনামুল হক আরমান। ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সহসভাপতি। বাড়ি নোয়াখালীতে।

ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের ক্যাসিনোর টাকার সংগ্রাহক তথা ক্যাশিয়ার হিসেবে পরিচিত আরমান। মূলত তার মাধ্যমেই ক্যাসিনো জগতে প্রবেশ ঘটে সম্রাটের। ক্যাসিনো কারবারে আরমানকে গুরু বলে মানেন সম্রাট।

 

আরমান একসময় সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় লাগেজ আনার ব্যবসা করতেন। সে সুবাদে সিঙ্গাপুরে ক্যাসিনোর সঙ্গে পরিচয় ঘটে আরমানের। পরবর্তী সময়ে সম্রাটকে এই লাভজনক কারবারের ধারণা দেন তিনি।

 

এ ছাড়া আরমান চলচ্চিত্র প্রযোজক হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেন। সম্প্রতি জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানকে কেন্দ্রীয় চরিত্রে রেখে দুটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে তিনি লগ্নি করেছেন কয়েক কোটি টাকা। নিজেই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান খোলেন। ‘দেশ বাংলা মাল্টিমিডিয়া’ নামের চলচ্চিত্র প্রোডাকশন হাউসের প্রধান কর্ণধার আরমান।

 

গত ঈদুল আযহায় মুক্তি পাওয়া শাকিব খান ও বুবলী অভিনীত ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ সিনেমাটির প্রযোজক আরমান। এটি আরমানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের প্রথম ফিল্ম। এরপর শাকিব খানের বিপরীতে নবাগতা এক নায়িকাকে নিয়ে ‘আগুন’ নামের দ্বিতীয় ফিল্মের কাজও শুরু হয় আরমানের প্রযোজনায়।

 

রোববার ভোর ৫টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রাম থেকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

 

এর আগে রাজধানীতে ক্লাব ব্যবসার আড়ালে অবৈধ ক্যাসিনো পরিচালনার অভিযোগে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েন সম্রাটের ডান হাত হিসেবে পরিচিত যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। এরপরই ধরা পড়েন রাজধানীর টেন্ডার কিং আরেক যুবলীগ নেতা জি কে শামীম। এ দুজনই অবৈধ আয়ের ভাগ দিতেন সম্রাটকে। তারা গ্রেফতার হওয়ার পর জিজ্ঞাসাবাদে সম্রাটের অবৈধ ক্যাসিনো সাম্রাজ্য নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দেন।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ