August 20, 2019, 8:04 am

সকাল ৮টায় প্রধান ঈদের জামাত পাইকগাছায় ঈদ-উল-আযহার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন : শেষ মুহুর্তের কেনাকাটায় ব্যস্ত ক্রেতারা

Spread the love

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা (খুলনা)প্রতিনিধিঃ

পাইকগাছায় পবিত্র ঈদ-উল-আযহার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে এবং উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদ-উল-আযহা উদযাপন হবে বলে উপজেলা প্রশাসন ও পৌর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। সোমবার সকাল ৮টায় পৌরসভার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। কোরবানীর পশুসহ অন্যান্য কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পার করছেন অনেকেই। এদিকে, ঈদে ঘরে ফেরা মানুষ সহ সাধারণ মানুষের যাতায়াতে চরম দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে পৌর সদরের প্রধান সড়ক। সড়কে বাস রাখায় এ দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। উল্লেখ্য, আগামী সোমবার বিপুল ত্যাগ ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভির্য্যরে মধ্য দিয়ে সারা দেশে উদযাপন হতে যাচ্ছে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা। সারা দেশের ন্যায় অত্র উপজেলাও যথাযথ মর্যাদায় ও উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদ-উল-আযহা উদযাপন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন স্থানীয় প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে এলাকাবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু, সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক, এ্যাডঃ সোহরাব আলী সানা, উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর ও ওসি এমদাদুল হক শেখ। ঈদ-উল-আযহার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে ইউএনও জুলিয়া সুকায়না জানিয়েছেন। কর্মস্থলেই ঈদ উদযাপন করবেন বলে তিনি জানান। সোমবার সকাল ৮টায় পৌরসভার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ (সিনিয়র মাদরাসা) মাঠে প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র এস,এম, ইমদাদুল হক। অন্যদিকে, জমঈয়তে আদলে হাদীসের প্রধান এবং মহিলা ঈদের জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় ঘোষাল-বান্দিকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর ও ওসি এমদাদুল হক শেখ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করবেন বলে জানিয়েছেন। এদিকে, শেষ মুহুর্তের কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পার করছেন অনেকেই। ইতোমধ্যে বেশির ভাগ মানুষের কোরবানীর পশু কেনা হলেও এখনও অনেকেই কিনতে পারেননি। তবে হাতে এখনও এক দিন সময় থাকায় এরই মধ্যে স্থানীয় পশু হাট থেকে কোরবানীর পশু কেনার কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ বছর পশু হাটগুলোতে উন্নত জাতের দেশীয় প্রজাতির গরু বেশি বিক্রি হয়েছে। বিশেষ করে, ৪০-৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা মূল্যের গরুর চাহিদা এবং বিক্রয় অনেক বেশি। কোরবানীর পশুর পাশাপাশি নতুন পোশাক ও ঈদ সামগ্রি কেনাকাটায় শেষ মুহুর্তে ব্যস্ত সময় পার করছেন ক্রেতা-বিক্রেতাসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ। শেষ মুহুর্তে পছন্দের পোশাক কিনতে পেরে খুশি বলে জানিয়েছেন রমনী মুক্তা। বিগত ঈদের ন্যায় এবারের ঈদেও জমজমাট কেনাবেচা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পৌর সদরের ফজলু ক্লথ স্টোরের স্বত্ত্বাধিকারী মোঃ ফজলুর রহমান। অপরদিকে, দেশের বিভিন্ন স্থানে কর্মরত ঘরে ফেরা মানুষ এলাকায় এসে যাতায়াতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন। ঘরে ফেরা অনেকেই অভিযোগ করেন পৌর সদরের জনগুরুত্বপূর্ণ প্রধান সড়কের জিরো পয়েন্ট থেকে তেল পাম্প পর্যন্ত সড়কের পাশ দিয়ে বাস রাখায় যানজট সৃষ্টি হয়েছে। ফলে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। ঈদের ব্যস্ততম সময়ে প্রধান সড়ক থেকে বাসগুলো সরিয়ে নেয়ার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১১ আগস্ট ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ