January 23, 2020, 10:34 pm

শিরোনাম :
রাজশাহীতে টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রিতে অনিয়ম’ পেঁয়াজ না পেয়ে খালি হাতে বাড়ি ফিরছেন ক্রেতারা র‌্যাব-৫, এর অভিযানে ভাগনিকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদী চাঞ্চল্যকর মামা হত্যার প্রধান আসামী গ্রেফতার মানববন্ধনে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম ধর্ষক শের আলীর ফাঁসির দাবীতে উত্তাল ভোলা জামালপুরে বন্য হাতির আক্রামনে ১ জনের মৃত্যু ঝিনাইদহের মহেশপুরে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্রী নিহত বকশিগঞ্জে যুগ্ম সচিবের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত গোয়াইনঘাট সরকারি কলেজের রজতজয়ন্তীর সফলতা কামনা করছেন ভাইস চেয়ারম্যান কয়েছ ফেসবুকে ইসলাম ধর্মকে নিয়ে কটুক্তি করায় শৈলকুপায় শিক্ষক গ্রেফতার যশোরে দুই বিঘা জমির ক্ষীরা গাছ কেটে সাবাড় যশোরে ১২ ফুট লম্বা গাঁজা গাছসহ ব্যবসায়ী আটক

শিডিউল বিপর্যয় ঠেকাতে পারছে না রেলওয়ে

Spread the love

শিডিউল বিপর্যয় ঠেকাতে পারছে না রেলওয়ে

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় ঠেকাতে পারছে না বাংলাদেশ রেলওয়ে। ঈদযাত্রার শুরুর দিন থেকেই বেশ কয়েকটি ট্রেন শিডিউল বিপর্যয়ে পড়ে। ঝড়বৃষ্টিসহ নানা করণে নির্ধারিত গন্তব্য থেকে ট্রেনগুলো কমলাপুর স্টেশনে ফিরে আসতে দেরি করে। ফলে কমলাপুর থেকেও বিভিন্ন গন্তব্যে ট্রেন ছাড়তে দেরি হচ্ছে। খুব দ্রুতই শিডিউল বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠা যাবে বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ। তবে এ নিয়ে সংশয়ে রয়েছেন যাত্রীরা। গতকাল রোববার কমলাপুরে গিয়ে দেখা গেছে, যে ট্রেনটি স্টেশন থেকে সকাল ৬টায় রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা, সেটি সকাল ৯টার পরেও স্টেশনের ২ নম্বর প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে ছিল। পরে প্রায় সাড়ে ৩ ঘণ্টা দেরিতে সকাল সাড়ে ৯টায় ট্রেনটি রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

অন্যদিকে, চীলাহাটিগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল ৮টায় কমলাপুর ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও ১১টা ৫০ মিনিটে স্টেশন ত্যাগ করে। এছাড়া, খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ২০ মিনিটে ছাড়ার কথা থাকলেও তা ছেড়েছে সকাল ৮টায়।

গত ২৪ মে যারা দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষার পর কাক্সিক্ষত টিকিট হাতে পেয়েছিলেন, ঘরমুখো সেসব মানুষ গতকাল রোববার সকালে পরিবার নিয়ে কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যাচ্ছেন ঈদ উদযাপন করতে। ট্রেনের এই বিলম্বের কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন যাত্রীরা।

গত ২৪ মে ১৪ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে আজকের (২ জুন) টিকিট কিনেছিলেন সাজেদা বেগম। তিনি বলেন, ‘এত কষ্ট করে টিকিট কেনার পর যাত্রার সময়ও যদি ভোগান্তি পোহাতে হয়, এটা দুঃখজনক। কর্তৃপক্ষ আন্তরিক হলে এমন হতো না।’

এ বিষয়ে কমলাপুর স্টেশনের ম্যানেজার আমিনুল হক বলেন, ‘যে ট্রেনগুলো দেরিতে এসে কমলাপুরে পৌঁছেছে, সেগুলো ছাড়তে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। তবে বেশিরভাগ ট্রেনই যথাসময়ে ছেড়ে গেছে। আমরা চেষ্টা করছি, সব ট্রেন যেন যথাসময়ে ছেড়ে যেতে পারে। সব মিলিয়ে যাত্রীদের ভোগান্তি নিরসনে সার্বিক সহযোগিতার চেষ্টা করছি আমরা।’

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ