May 26, 2020, 2:45 am

শিরোনাম :
হাফিজ আখতারকে অভিনন্দন জানাতে তার বাড়িতে ভাইস চেয়ারম্যান কয়েছ ঈদের দিন ও করোনার ক্লান্তিলগ্নে কাউন্সিলর প্রার্থী রাসেদের সেবা কার্যক্রম অব‍্যাহত আখাউড়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক এসআই তাজুল ইসলাম আখাউড়া বাসীসহ বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ঈদের দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা ৫০০ ছাড়াল অভিনেতা আজম খানের আটটি নাটক এবার ঈদে প্রচারিত হচ্ছে ঈদে আনন্দ করুন ঘরে বসেই-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারে চার রোহিঙ্গাসহ আরো ৪৯ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত আখাউড়ায় নিরীহ অসহায় ও ভাসমান মানুষের মাঝে সাধ্যমত ঈদ সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবী সাথী আক্তার পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে ঈদের শুভেচ্ছা জানান ক্রাইম পেট্রোল বিডি ভৈরব জোনাল অফিস পরিচালক মোঃ সিজান খাঁন সোহাগ

লালমনির হাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলার প্রথম করোনাভাইরাস রুগি মোঃ শাহিন এখন তার নিজ বাড়িতে সুস্থ হয়ে ফিরিয়ে গেলেন

Spread the love

মোঃ মিথুন,পাটগ্রাম (লালমনির হাট) প্রতিনিধিঃ

করোনায় আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতাল ছাড়া প্রসঙ্গে নির্দেশনা দিয়েছে কভিড-১৯ কারিগরী কমিটি। নির্দেশনা অনুযায়ী একজন করোনা রোগীকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র কখন দেয়া হবে সে প্রসঙ্গে সুপারিশ করা হয়েছে।শুক্রবার (৮ মে)  করোনা ভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।তিনি বলেন, ছাড়পত্র দেয়া হবে  – প্যারাসিট্যামল ব্যতীত জ্বর সেরে গেলে। শ্বাসকষ্ট বা তার কোনো উপসর্গ যেমন শুষ্ক কাশি, কফ, নিশ্বাসের দুর্বলতা এগুলো লক্ষণের উন্নতি হলে। ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে পর পর দুটি আরটিপিসিআর পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ হলে।পাটগ্রামে করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন শাহিন আলম (৩৮)। শুক্রবার ১৫ মে সন্ধ্যা ৬ টায় পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।শাহিন আলম জেলার পাটগ্রাম উপজেলার পাটগ্রাম ইউনিয়নের মেছিরপার এলাকার বাসিন্দা ।গত ৪ মে তার করোনা পজেটিভ হয়।তারপর থেকে তাকে পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়।শাহিন আলম নারায়নগঞ্জের ইগলূ আইসক্রিম ফ্যাক্টরি তে কাজ করতেন।তার করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তিনি ২ মে পাটগ্রামে আসেন।তারপর তার নমুমা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হলে তার শরীরে কোভিড-১৯ পাওয়া যায়।তার শরীরে পর পর দুই দফা পরীক্ষা করে তার শরীরে করোনা নেগেটিভ আসে।তাই তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।আগামী ১৪ দিন তাকে বাড়িতে হোম কোরেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে।পাটগ্রাম স্বাস্থ্য বিভাগের সকল চিকিৎসক নার্স তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বিদায় জানান।তবে শুধু ন্যাজোফেরিয়াল সোয়াবের ক্ষেত্রে যদি দুটি আরটিপিসিআর পরীক্ষা করা সম্ভব না হয় উপরের লক্ষণগুলো যদি টানা ৭২ ঘণ্টা না থাকে তবে রোগীকে হাসপাতালের ছাড়পত্র দেয়া যাবে। ছাড়পত্র পেয়ে রোগীকে বাসায় গিয়ে অবশ্যয় নিজেকে ১৪ দিন আইসোলেশনে রাখতে হবে।তবে ভাইরাস টি ডিসেম্বরে প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে বেশিরভাগ দেশই ভাইরাসটিতে তেমন পাত্তা দেয়নি। অনেক দেশই ধারণা করেছিল, এটি চীনা ভাইরাস এবং এর সংক্রমণ হয়তো ইউরোপ-আমেরিকায় ছড়িয়ে পড়বে না। এজন্য সেখানকার দেশগুলো তেমন কোনো পদক্ষেপও নেয়নি। ফলও দিতে হচ্ছে তাদের। কারণ সংক্রমণ সংখ্যার দিক থেকে প্রথম দেশগুলোর তালিকার মাঝেই নেই চীন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৮ মে ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ