November 16, 2019, 2:11 pm

শিরোনাম :
প্রতাপগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও মিলাদ মাহফিল চৌগাছায় পেয়াজের কেজি ২৫০ টাকা, বিপাকে নিন্ম আয়ের মানুষ পেঁয়াজের সিন্ডিকেট চিহ্নিতের চেষ্টা চলছে -সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য দেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ যশোর সদর উপজেলা ও শহর আওয়ামীলীগের সম্মেলন খতিয়ে দেখা হচ্ছে ট্রেন দুর্ঘটনায় নাশকতা আছে কিনা – রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন আজ জাতীয় সম্মেলন,স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃত্বেও নতুন মুখ র‌্যাব-৫ এর অভিযানে ৫০৫ বোতল ফেন্সিডিল ১টি প্রাইভেট কারসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার রাজশাহী কলেজ অডিটোরিয়ামকে ‘শহীদ দুলাল’ নামে নামকরণের দাবি পেঁয়াজ আমদানিতে এখন কোনও শুল্ক নেই: অর্থমন্ত্রী

লক্ষ্মীপুরে কথিত মোবাইল চুরির ঘটনায় শিশুর উপর নির্মম নির্যাতন

Spread the love
লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি ঃ
গত ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  রবিবার লক্ষ্মীপর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন কুশাখালী ইউনিয়ন এর  শাহাদাত হোসেন তুহিন (১৪) কে কথিত মোবাইল চুরির ঘটনায় বেদম প্রহার করা হয়।স্থানীয় সূত্রে এবং ভিকটিমের পিতার ভাষ্যমতে, গত  ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বৃহস্পতিবার  রাতে চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন কুশাখালী ইউনিয়নের কাঠালি গ্রামের আবদুল কুদ্দুস এর ঘর থেকে কে বা কাহারা তাহার  মোবাইল ফোন ও চার্জার লাইট চুরি করে নিয়ে যায়। চুরির ঘটনা কেন্দ্র করে একই বাড়ির আবদুল কুদ্দুসের  ছোট ভাই আবু কালামের মেঝো ছেলে শাহাদাত হোসেন তুহিন (১৪) কে গত ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  রবিবার  প্রথমে একই গ্রামের ইসমাইল ভান্ডারীর বাড়ির সামনে এবং পরে খুরশিদ মাঝির দোকানের সামনে কাঁচা বাশের লাঠি দিয়ে নির্মম নির্যাতন করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন শাহাদাত হোসেন তুনিনকে উদ্ধার করে তার বাবা আবু কালামের কাছে হস্তান্তর করে। পরবর্তীতে শাহাদাত হোসেন তুহিনকে  রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পাঠিয়ে দেয়। পরবর্তীতে  ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সোমবার  শাহাদাত হোসেন তুহিনের পিতা আবু কালাম এ বিষয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা একটি অভিযোগ দায়ের করেন। শাহাদাতের বাবা আবু কালাম জানান, ঘটনার দিন রাতে শাহাদাত বাড়িতে ছিল না। সে পাশের নুরুল আমিনের বাড়িতে নুরুল আমিনের ছেলে নোমানের সাথে একই খাটে শোয়া ছিল, যা পরবর্তীতে নোমানও এর সত্যতা জানায়।  এবিষয়ে এলাকার সাধারন মানুষের মনে মিশ্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে, এবং এলাকাবাসী এর দৃষ্টান্ত শাস্তির দাবী করে। এ বিষয় কুশাখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল আমিনের সাথে একাধিক বার মোবাইলে চেষ্টা করেও কোন ভাবে যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নাই।চন্দ্রগঞ্জ থানা ডিউটি অফিসার এএসআই মিজান অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে এবং তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান।
প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইকবাল
Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ