August 20, 2019, 3:55 am

র‌্যাব-৫ এর বিশেষ ভ্রাম্যমান আদালতে বিপুল পরিমান অনুমোদনহীন মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ জব্দ ও অর্থ দন্ড

Spread the love
রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান :
র‌্যাব-৫, রাজশাহী এর উপ-অধিনায়ক মেজর শিবলী মোস্তফা, সিপিএসসি কোম্পানী
অধিনায়ক এ.টি.এম মাইনুল ইসলাম, মেডিকেল অফিসার ক্যাপ্টেন মোঃ আশরাফুল ইসলাম, এবং এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট নিজাম উদ্দীন আহমেদ, র‌্যাব সদর দপ্তর এর সমন্বয়ে গঠিত একটি ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক ১২ মে ২০১৯ ইং ১১.০০ ঘটিকা হইতে ০৪.৩০ ঘটিকা পর্যন্ত রাজশাহী মহানগরীর লক্ষীপুরে বিভিন্ন ফার্মেসীতে অভিযান পরিচালনা করেন।উক্ত অভিযান পরিচালনাকালে বিক্রয় নিষিদ্ধ সরকারী ঔষধ, অনুমোদনহীন বিদেশী ঔষধ মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিক্রয় ও সংরক্ষণের অভিযোগে ১। ওল্ড ফার্মেসীকে ৫,০০,০০০/- (পাঁচ লক্ষ) টাকা ২। সোসো এন্টার প্রাইজকে ৩০,০০০/- (ত্রিশ হাজার) টাকা ৩। জামান ফার্মেসীকে ৫০,০০০ (পঞ্চাশ হাজার) টাকা ৪। রয়েল ফার্মেসীকে ২০,০০০/- (বিশ হাজার) টাকা ৫। দৃষ্টি ফার্মেসীকে ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা ৬। রুনা ফার্মেসীকে ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা ৭। ট্রপিক্যাল ফার্মেসীকে ৩০,০০০/- (ত্রিশ হাজার) টাকা ৮। আল-নুর ফার্মেসীকে ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা  ৯। মাদার ল্যান্ড হসপিটালকে ৩০,০০০/- (ত্রিশ হাজার) টাকা  ১০। ওমি এন্টার প্রাইজকে ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকাসহ সর্বমোট ৭,৮০,০০০/- (সাত লক্ষ আশি হাজার) টাকা জরিমানা দন্ড প্রদান করেন।এ সময় মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর বিপুল পরিমান ঔষধ জব্দ করা হয় যা পরে আদালত কর্তৃক জনসম্মুখে ধ্বংস করা হয়েছে। জরিমানাকৃত সমুদয় অর্থ সরকারী নিয়মানুসারে সরকারী কোষাগারে জমা করা হয়েছে।
প্রাইভেট ডিটেকটিভ/ ১৩ মে ২০১৯/ইকবাল
Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ