October 16, 2019, 2:36 pm

শিরোনাম :
সুন্দরগঞ্জের পি আই ও কর্তৃক ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা বগুড়ায় আর কোন মাদক বিক্রি ও সেবন করতে দেওয়া হবে না ——– এস.আই আব্দুর রহিম ঝালকাঠির খোকন মিয়া জাল টাকাসহ ঢাকায় আটক আগামী ৭ নভেম্বর সংসদ অধিবেশন বসছে জগন্নাথপুরে সরকারি গাড়ির ধাক্কায় শিশু আহত জৈন্তাপুরে বিজিবি-বিএসএফ’র পতাকা বৈঠক আটক ভারতীয় নারী ও বাংলাদেশী পুরুষ হস্তান্তরে উভয়দেশ সম্মত বিদ্যুৎ না থাকালেও শিক্ষার আলোই আলোকিত পাঠশালা কুড়িগ্রামবাসী দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ আন্তনগর ট্রেনের শুভ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রংপুরের পীরগঞ্জ ভেন্ডাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে আসামির রহস্যজনক মৃত্যু র‌্যাব-১০ এর পৃথক মাদক বিরোধী অভিযানে দেশীয় চোলাইমদ, ফেন্সিডিল ও ইয়াবাসহ ২০ জন আটক

রোহিঙ্গাদের ছয় মাস রাখতে লাগবে ২০ কোটি ডলার: জাতিসংঘ

Spread the love

রোহিঙ্গাদের ছয় মাস রাখতে লাগবে ২০ কোটি ডলার: জাতিসংঘ

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র রাখাইন রাজ্যে সহিংসতা বন্ধে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে রয়টার্স বলেছে, সেনাবাহিনীর দমন অভিযানে রাখাইনে যে সংকট সৃষ্টি হয়েছে, তা দেশটির অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সংস্কারকে স্থবির করে দিতে পারে।

গত ২৪ অগাস্ট রাতে রাখাইন রাজ্যে একসঙ্গে ৩০টি পুলিশ পোস্ট ও একটি সেনা ক্যাম্পে হামলার ঘটার পর থেকে রোহিঙ্গা গ্রামগুলোতে এই সেনা অভিযান চলছে।

সেনাবাহিনী কীভাবে গ্রামে ঢুকে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ মারছে, ঘরের ভেতরে আটকে রেখে কীভাবে পুড়িয়ে মারা হচ্ছে, লুটপাট চালিয়ে কীভাবে গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়া হচ্ছে, সেই বিবরণ পাওয়া যাচ্ছে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের কথায়।

জাতিসংঘের হিসাবে, গত চার সপ্তাহে ৪ লাখ ২২ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে, যাদের অনেকেই সীমান্ত পার হয়েছেন গুলির বা পোড়া জখম নিয়ে।

বাংলাদেশ আগে থেকেই ৪ লাখের বেশি শরণার্থীর ভার বহন করে আসছে। নতুনে করে বিপুলসংখ্যক এই শরণার্থীর জন্য ত্রাণ ও পুনর্বাসন চালাতে হিমশিম খাচ্ছে সরকার ও সাহায্য সংস্থাগুলো।

জাতিসংঘের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশে ছয় মাসে এসব শরণার্থীর সহায়তায় ২০ কোটি ডলারের প্রয়োজন হবে। মিয়ানমার প্রবেশাধিকার সীমাবদ্ধ দিলেও রাখাইন রাজ্যেও মানবিক সংকট সৃষ্টি হচ্ছে বলে ত্রাণকর্মীরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দপ্তরের ডেপুটি অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি সাংবাদিকদের বলেন, “আমাদের ধারণা এই সহিংসতা বন্ধে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে হবে, মানবিক সহায়তা কার্যক্রমকে তরান্বিত করতে হবে, বাগাড়ম্বর ও উত্তেজনা কমাতে হবে…এবং দীর্ঘমেয়াদী সমস্যাগুলোর সমাধানে কঠোর পরিশ্রম শুরু করতে হবে।”

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ