October 11, 2019, 9:59 pm

রাজারহাটে নেশার টাকা না পেয়ে স্ত্রীর গাঁয়ে আগুন স্বামী আটক-

Spread the love

 

মোঃ রেজাউল হক, রাজারহাট প্রতিনিধিঃ

রাজারহাট উপজেলা,
কুড়িগ্রামের রাজারহাটে নেশার টাকা না পেয়ে মঙ্গলবার গভীর রাতে নিজের স্ত্রীর গাঁয়ে কেরোসিন তেল ঢেলে দিয়ে আগুন দিয়েছে এক পাষন্ড স্বামী। প্রতিবেশীরা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন। এ ঘটনায় ২অক্টোবর রাতে রাজারহাট থানা পুলিশ পাষন্ড স্বামী শহিদুল ইসলাম(২৫) কে গ্রেফতার করেছে।
এলাকাবাসীরা জানান, উপজেলার রাজারহাট ইউনিয়নের মেকুরটারী গ্রামের শহিদুল ইসলামের সাথে রংপুর বদরগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুর কুটিপাড়া গ্রামের এমদাদুল হকের কন্যা এসমেতারা বেগম ওরফে কুসুম(২২) এর ৩বছর আগে বিয়ে হয়। সংসারের অভাব ঘুচানোর জন্য পার্শ্ববর্তী একটি লার্নিং ওয়ার্কসপে দিনমজুরের কাজ করতো এসমেতারা বেগম। ঘটনার দিন গত ১অক্টোবর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নেশার জন্য স্ত্রীর কাছ থেকে শহিদুল ইসলাম ৫শত টাকা চায়। সে দিতে অস্বীকৃতি জানালে দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। শহিদুল ইসলাম গভীর রাতে সকলের অগোচরে ঘরে রাখা কেরোসিন তেল এসমেতারা বেগমের গাঁয়ে ঢেলে দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। এসমেতারার আত্মচিৎকারে পাশের বাড়ীর লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এতে তার শরীরের ১০ শতাংশ পুড়ে গেছে বলে চিকিৎসক জানিয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা আশংকা জনক। বিষয়টি জানাজানি হলে বুধবার রাতে কুড়িগ্রাম অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উৎপল কুমার রায় ভিকটিমকে দেখতে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে তার খোঁজ খবর নেন। ৩অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃষ্ণ কুমার সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এঘটনায় ২অক্টোবর বুধবার রাজারহাট থানায় একটি মামলা দায়ের হওয়ায় রাতেই মুল আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ