March 24, 2020, 5:51 pm

শিরোনাম :
রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড সচিবের বির্তকিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ব্যাখ্যা চেয়ে জেলা প্রশাসকের চিঠি রুয়েট কর্মচারী সমিতির নির্বাচনী ফলাফল প্রত্যাখ্যান নিরপেক্ষ কমিশনের অধীনে নির্বাচন দাবি রাজশাহীর তানোরে দ্রব্যমূল্যের দাম স্বাভাবিক রাখতে উপজেলা নির্বাহী ও থানার ওসির বাজার মনিটরিং লামার মেরাখোলায় কুকুরের কামড়ে দুই শিশু গুরুতর আহত চন্দ্রগঞ্জ উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরামের উদ্যোগে রিক্সা ও সিএনজি চলাকদের মধ্যে করনা প্রতিরোধী উপকরণ বিতরণ পীরগঞ্জেআরডিএস বাংলাদেশ সীড্স প্রকল্প করোনা ভাইরাস লিফলেট বিতরণ কেশবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু সারিয়াকান্দিতে করোনা মোকাবেলায় আব্দুল মান্নান মহিলা কলেজে কোয়ারেন্টাইন প্রস্তুত যশোরে ১৩৫৬জন হোম কোয়ারেন্টাইনে ভারতে প্রবেশে বাধা বেনাপোলে আটকে আছে শতাধিক শিক্ষার্থী

রাজশাহীর তানোরে দ্রব্যমূল্যের দাম স্বাভাবিক রাখতে উপজেলা নির্বাহী ও থানার ওসির বাজার মনিটরিং

Spread the love

রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান :

রাজশাহীর তানোরে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে যেন কোন ভাবেই বাজারের নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য দ্রব্যের বাজার দর উর্ধগতি না হয় সে ব্যাপারে দাম সঠিক রাখার লক্ষ্যে চলছে বাজার মনিটরিং। এর’ই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার ২৪শে মার্চ ২০২০ ইং তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহতো এবং তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাকিবুল হাসান তানোর উপজেলা সদরের গোল্লাপাড়া বাজারের দোকান গুলোতে চালায় এক যৌথ মনিটরিং অভিযান।করোনা ভাইরাসের অজুহাতে সংকট তৈরি করে কেউ যাতে দ্রব্য মুল্যের দামবৃদ্ধি না করতে পারে সেজন্য নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজার নিয়ন্ত্রনে রাখতে তানোরের বাজার গুলোতে মনিটরিং করেছেন উপজেলা নিবার্হী অফিসার ও থানোর থানার অফিসার ইনচার্জ। এ সময় গোল্লাপাড়া বাজারের চাল, ডাল, আটা, ময়দা, পেয়াজ, রসুন আদা, তেল, মসলাসহ কাচাঁ বাজার ঘুরে দেখেন এবং দোকানে মুল্য তালিকা ঝুলিয়ে রাখার নির্দেশ দেন। এ সময় উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির বিভিন্ন পদের ব্যাক্তিবর্গরাসহ সুশীল সমাজের অনেকে উপস্থিত ছিলেন।এ বিষয়ে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি রাকিবুল হাসান বলেন, দেশে চলমান করোনা আতঙ্ককে দ্রব্যমূল্যে দাম স্বাভাবিক রাখতে আমরা তানোর উপজেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন একযোগে কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের এই বাজার মনিটরিং অভিযান চলমান রয়েছে এবং থাকবে। আমরা দেখেছি, অতীতেও বহুবার সময় ও সুযোগের সদ্ব্যবহার করে নিত্যপণ্যসহ অন্যান্য পণ্যের বাজার অস্থিতিশীল করার অপপ্রয়াস চালানো হয়েছে। যোগসাজশের মাধ্যমে বাজার ব্যবস্থার স্বাভাবিক গতি যদি বাধাগ্রস্ত করা হয়, তাহলে একদিকে যেমন ভোক্তাস্বার্থের হানি ঘটে, অন্যদিকে দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে পড়ে এর বিরূপ প্রভাব।ওসি আরো বলেন, ব্যবসায় মুনাফা অর্জন একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। তবে মুনাফা অর্জনের নামে নীতিজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ড সমর্থনযোগ্য নয়। ব্যবসায়ীরা সাধারণ মানুষের দুর্দশা লাঘবে আন্তরিক হলে বছরের অধিকাংশ সময় দ্রব্যমূল্যের বাজার স্থিতিশীল থাকবে বলে আমাদের বিশ্বাস। নিত্যপণ্যসহ সব ধরনের পণ্য ও সেবার দাম স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ী সমাজ আন্তরিকতার পরিচয় দেবে- এটাই প্রত্যাশা।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/২৪ মার্চ ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ