September 18, 2020, 2:58 pm

শিরোনাম :
দিঘলিয়া প্রেস ক্লাবের নিন্দা শার্শায় পথ শিশু ও ভারসাম্যহীন পাগলসহ ফ্রী খাবার বাড়ীতে খাবার খেল তিন শতাধিক মানুষ কেশবপুরে অন্যের জমির গাছ বিক্রি করার প্রতিবাদ করায় এক শিক্ষক মারপিটের শিকার হবিগঞ্জের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় “সিপাহসালার সৈয়দ নাসিরুদ্দীন রহ. কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়” নামকরণের দাবী জানাচ্ছি: ইতিহাসবিদ তরফরত্ন সৈয়দ আবদুল্লাহ জগন্নাথপুর থেকে মিশুক ছিনতাই || চালকের অচেতন দেহ বিশ্বনাথে উদ্ধার বান্দরবান সরকারী কলেজের বাস শুভ উদ্ভোধন বীর বাহাদুর উশৈসিং এম,পি কারিগরি কলেজের সভাপতির বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ চৌদ্দগ্রামে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সাথে যুবদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত করোনায় আক্রান্ত মাহবুবে আলম আইসিইউতে সুনামগঞ্জের ৪ লাখ ভারতীয় রুপিসহ এক হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে সরকারী রাস্তায় উচ্ছেদ করেন কমিশনার (ভূমি) বগুড়া সদরের নামুজা ঠেংরা হারমালা আদর্শ গ্রামে ৩শত বিভিন্ন প্রজাতির বৃক্ষ রোপন কুয়াকাটায় সড়ক দূর্ঘটনায় আহত-৪ রাজশাহীতে ফেন্সিডিল উদ্ধার’ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার করেছে র‍্যাব রাজশাহীতে বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ ০১ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার করেছে র‍্যাব রাজশাহীতে অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রণে পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হলো পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট চাল আত্মসাতের দায়ে বরখাস্তকৃত নবীগঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যান মুকুল হাইকোর্টে রীট করে স্বপদে বহাল ‘জমকালো আয়োজন ও মিষ্টি বিতরণ করায় সমালোচনার ঝড়! ঝিকরগাছার সাংবাদিক আফজাল হোসেন চাঁদকে প্রাননাশের হুমকি নবীগঞ্জে পর্নোগ্রাফি মামলায় উপজেলা কৃষকলীগের আহ্বায়ক শেখ শাহানুর আলম ছানু গ্রেপ্তার বোয়ালমারী জর্জ একাডেমীর সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা ;পরীক্ষার নামে অর্থ বাণিজ্যের অভিযোগ

রাজশাহী’তে রাক্ষসী সন্ধ্যা নদীর গহবরে পথচারীদের ভোগান্তি চরমে

Spread the love

রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান ::

সংস্কারের ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে বাঁশপুকুরিয়া-দোমাদি সড়কটি। গত একযুক ধরে সড়কটির কোন ধরনের সংস্কার করা হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন অত্র এলাকাবাসি।কর্তৃপক্ষের নজরদারির অভাবে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে সড়কটি সন্ধ্যা নদীর ভাঙ্গনের কবলে পড়ে বিলিন হয়ে যাবে।

সরজমিনে দেখাগেছে, উপজেলার বেলপুকুর ইউনিয়নের বাঁশপুকুরিয়া মসজিদের পাশ দিয়ে সন্ধ্যা নদীর ধার দিয়ে দোমাদি গ্রামের মধ্যে প্রায় ০১ কিলোমিটার সড়কটি এ এলাকার মানুষদের চলাচলের একমাত্র যোগাযোগের পথ। এখানে প্রতিদিন শত শত মানুষ সড়কটি দিয়ে চলাচল করেন। বর্তমানে সড়কটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সড়কটির পাশ দিয়ে সন্ধ্যা নদী বয়ে যাওয়ায় তার ভাঙ্গনে সড়কটির প্রায় অর্ধেক নদীর অংশ গহবরে চলে গেছে। নদীর পাড়ে প্রোটেকশন ওয়াল না থাকার ফলে সড়কটি নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে।

এ কারণেই মুলত সড়কটিতে পায়ে হাটা দায় হয়ে পড়েছে। এছাড়াও সড়কটির বেশির ভাগ জায়গায় কার্পেটিং ও খোয়া উঠে কাদামাটিতে পরিনত হয়েছে। বর্তমানে দেখে বুঝার উপায় নেই যে এটি একটি পাকা সড়ক। তাই এলাকাবাসির দীর্ঘদিনের দাবি জরুরী ভিত্তিতে সড়কটিতে প্রোটেকশন ওয়াল দিয়ে সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণের।

সড়কটির বিষয়ে পুঠিয়া উপজেলা এলজিইডি অফিসে যোগাযোগ করলে কোন ধরনের তথ্য তাদের অফিসে নাই অফিস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। তবে, স্থানীয় একাধিক এলাবাসীর সাথে কথা হলে তারা জানান, এই সড়কটি প্রায় এক যুগের বেশি সময় ধরে কোন ধরনের মেরামত করা হয়নি। নদীর ধার দিয়ে সড়কটি হওয়ায় নদীর ভাঙ্গনে রাস্তাটি অর্ধেক হয়ে গেছে। বর্তমানে পায়ে হাটা ছাড়াও ভ্যান যোগে কোন ধরনের মালামাল নিয়ে যাতায়াত করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এছাড়াও বর্ষকালে পায়ে হেটে চলাচল করতে অনেক ভোগান্তির শিকার হতে হয়। আমরা গ্রামবাসিরা পুঠিয়া উপজেলার এলজিইডি অফিসে সড়কটি মেরামতের জন্য জানিয়েছি কিন্তু এলজিইডি অফিস আমাদের কথার কোন দাম দেয় না।

এ বিষয়ে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন, সড়কটি সরজমিনে দেখে নতুন প্রকল্পের মাধ্যমে সংস্কার করা হবে। আমরা অল্প সময়ের মধ্যেই সরজমিনে সড়কটি পরিদর্শনে যাব। পাশাপাশি এর গুরুত্ব অনুযায়ী যথাযথ কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা ক্রমে যথারীতি ব্যাবস্থা গ্রহণ করবো।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ