June 13, 2019, 3:44 pm

শিরোনাম :
হোমিওপ্যাথি ঔষুধ খাওয়ার সময়ে এই ১০টি নিয়ম না মানলে হতে পারে আপনার সর্বনাশ কারো যদি ডায়াবেটিস হলে কি করবেন হাকিমপুরে মাদকসহ এক নারী আটক গাবতলীর কাগইলে ইজারাকৃত জলমহলে পোনা মাছ অবমুক্ত করন পাইকগাছায় বই-পাঠ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ সুন্দরগঞ্জে বেইজলাইন ফাইন্ডিং শেয়ারিং কর্মশালা প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী টি জামান নিকেতাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিন বগুড়ার মাটি বিএনপির ঘাটি, একথা এখন আর কেউ বিশ্বাস করে না-ডাবলু বগুড়া সদরের গোকুলে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে শ্লীতাহানী থানায় অভিযোগ ডৌবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্র জমিয়তের ঈদ পুনর্মিলনী ও সংবর্ধনা

রাজনগরে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু স্বামী আটক

Spread the love

রাজনগর প্রতিনিধি :

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার তারাচং গ্রামে এক গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। নিহতের স্বামীর বাড়ির লোকজন মৃত্যুর ঘটনাকে আত্মহত্যা বললেও বাবার বাড়ির লোকজনের দাবি তাকে শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এঘটনায় নিহতের বাবা আব্দুল খালিক রাজনগর থানায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা করেছেন। পুলিশ নিহতের স্বামীকে গ্রেফতার করেছে। রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে এঘটনা ঘটে।এলাকাবাসী ও মামলা সূত্রে জানাযায়, গত ২০১৬ সালে উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নের তারাচং গ্রামের আব্দুন নূর মুহুরির ছেলে এনায়েতুর রহমান শাহিনের (৩৫) সাথে একই উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাজুয়া গ্রামের আব্দুল খালিকের মেয়ে হালিমা বেগমের (২৪) বিয়ে হয়। তাদের একটি ১৪ মাস বয়সী কন্যা সন্তান রয়েছে। রবিবার সকালে পারিবারিক কলহের জেরে শাহিন তার স্ত্রীকে মারধর করেন। রাত সাড়ে ১২টার দিকে হালিমা সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় কাপড় পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা যায়। পরিবারের লোকজন গিয়ে মৃতের গলায় কাপড়ের কাঁটা একটি অংশ ও অপর অংশ সিলিংয়ের সাথে আটকানো অবস্থায় দেখতে পান। এসময় মৃতদেহ বিছানায় রাখা ছিল। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।এর আগেও শাহিন আরো দুটি বিয়ে করেছেন। প্রথম স্ত্রীর সাথে ২৬ দিন সংসার করেছিলেন। প্রথম স্ত্রীর সাথে বিচ্ছ্যেদের পর ২০১০ সালে উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের মেলাগড় গ্রামে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। ২০১৬ সালে দ্বিতীয় স্ত্রীকে না জানিয়ে গোপনে হালিমাকে তৃতীয় বিয়ে করেন। এনিয়ে আদালতে দ্বিতীয় স্ত্রীর করা একটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এদিকে হালিমাকে নির্যাতন ও আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার অভিযোগ এনে ৩ জনের নাম উল্ল্যেখ করে অজ্ঞাত ২/৩ জনকে আসামী করে নিহতের বাবা থানায় মামলা করেছেন।নিহতের শ্বশুর আব্দুন নূর বলেন, রবিবার সকালে পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে শাহিন স্ত্রী হালিমাকে চড় মারে। শাহিন তার স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা থাকলে আমাদের কোনো আপত্তি ছিল না। রাতে আমাদের পশ্চিশের ঘর থেকে সে বেরিয়ে স্ত্রীর কক্ষে গিয়ে দেখতে পায় হালিমা সিলিংয়ের সাথে কাপড় পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও পুলিশকে জানিয়েছি।নিহতের বাবা আব্দুল খালিক বলেন, আমার মেয়েকে সকালে তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন মারধর করেছে। আমি তাদেরকে বলেছি মেয়েকে আমার বাড়িতে পাঠিয়ে দিতে। কিন্তু রাতে মেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে তারা আমাদেরকে খবর দেয়। তাদের শারিরিক ও মানসিক নির্যাতনে এঘটনা ঘটেছে।রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসিম বলেন, খবর পেয়ে আমরা মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। নিহতের বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। এঘটনায় নিহতের স্বামী শাহিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/ ১০ জুন ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ