October 23, 2019, 8:36 pm

শিরোনাম :
মোদির ওপর আত্মঘাতী হামলার হুমকি সাতক্ষীরায় অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষার খাতা দেখছে ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী পলাশবাড়ীতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের ৪৩ লক্ষ টাকা ব্যায়ে হিয়ারিং বন্ড রাস্তা নির্মানে স্মরন কালের শ্রেষ্ঠ অনিয়ম গোবিন্দগঞ্জে মৎস্যজীবি নেতা শম্ভু হাওলাদারের উপর হামলার মূল আসামী শাহিন গ্রেফতার সাঘাটায় সিগারেট নিতে গিয়ে পুলিশের ভূয়া এসআই আটক জামালপুরে অনলাইন ক্যাসিনো পরিচালনার অভিযোগে প্রায় ৪ লাখ টাকা ও মোবাইলসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব সারিয়াকান্দিতে পৌর কাউন্সিলার মাফু কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা চৌগাছায় অভিযানে ১০০ বোতল ফেন্সিডিল ও গাজাসহ ৪ জন আটক জগন্নাথপুরে পুলিশের সচেতনতা মূলক সভা যশোরে অস্ত্র-গুলি ও ম্যাগজিনসহ সন্ত্রাসী আটক

রাজধানীতে ৫৬৮টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে

Spread the love

রাজধানীতে ৫৬৮টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এবার রাজধানীতে ৫৬৮টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে এসব ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়েছে। সিটি কর্পোরেশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, দুই সিটিতেই প্রতিটি ওয়ার্ডের মসজিদ, মাঠ ও ঈদগাহে ৪ বা ৫টি করে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র কার্যালয়ের কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায় জানান, ডিএসসিসি’র ৭৪টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটিতে ৪টি করে এবং জাতীয় ঈদগাহ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাঠসহ মোট ২৯৮টি স্থানে ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়েছে। এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার জানান, এই সিটি কর্পোরেশনের ৫৪টি ওয়ার্ডের প্রতিটিতে ৫টি করে ঈদ জামাতের আয়োজন করতে মেয়র আতিকুল ইসলাম সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলরদের নির্দেশনা দিয়েছেন। সে অনুযায়ী এই সিটিতে মোট ২৭০টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় ঈদগাহে রাজধানীর প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন গত রোববার জাতীয় ঈদগাহের সার্বিক প্রস্তুতি পরিদর্শন করেছেন। পরিদর্শন শেষে মেয়র বলেন, ঈদগাহের নিরাপত্তার দায়িত্বভার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিরাপত্তা তল্লাশির কারণে কেউ যাতে ঈদগাহের বাইরে না থেকে যায় সে জন্য প্রবেশ পথের মুখ বাড়ানোসহ দ্রুত নিরাপত্তা তল্লাশি শেষ করার জন্য তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি জানান, এবারের ঈদে কম-বেশি এক লাখ মুসল্লি জাতীয় ঈদগাহে নামাজ আদায় করতে পারবেন। এতে পাঁচ হাজার মহিলার নামাজ আদায়ের জন্যও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এ ছাড়া ঈদগাহে এক সঙ্গে দেড় থেকে দুই হাজার মানুষের অজুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। মুসল্লিদের সুবিধার্থে টয়লেটের ব্যবস্থাও রয়েছে। মেয়র বলেন, যদি স্থান সংকুলান না হওয়ার কারণে সামনের রাস্তায় নামাজ আদায় করতে হয় সে জন্য রাস্তায় চাদর বিছানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এতে প্রয়োজনীয় মাইক, সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জনসংযোগ শাখার সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জানান, জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। এই জামাতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। বিকল্প ইমাম হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মিরপুর জামেয়া আরাবিয়া’র শায়খুল হাদিস মাওলানা সৈয়দ ওয়াহীদুযযামান। তিনি জানান, পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে এবারও ৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত হবে সকাল ৭টায়। এর পরপর আরো ৪টি জামাত হবে যথাক্রমে ৮টা, ৯টা, ১০টা ও পৌনে ১১টায়। প্রথম জামাতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মুহিবুল্লাহিল বাকী নদভী, দ্বিতীয় জামাতে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি মহিউদ্দিন কাসেম, তৃতীয় জামাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ড. মাওলানা মুশতাক আহমাদ, চতুর্থ জামাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস মাওলানা ওয়ালীয়ূর রহমান খান এবং পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক মাওলানা জুবাইর আহাম্মদ আল আযহারী ইমামতি করবেন। জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদুল ফিতরের জামাতের আয়োজন করা হয়েছে। এখানে মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবর্গ, জাতীয় সংসদের হুইপবৃন্দ, সংসদ সদস্য ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ এলাকার মুসল্লিগণ জামাতে অংশ নেবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ মসজিদুল জামিআয় ঈদের দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায় এবং দ্বিতীয় জামাত হবে সকাল ৯টায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হল মেইন গেইট সংলগ্ন মাঠে সাড়ে ৮টায় ও ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ হল লনে সকাল ৮টায় পৃথক দু’টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া রাজধানীর মীরবাগ জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছরের মতো এবারও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় দেশের সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এবার শোলাকিয়ায় ১৯২ ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০টায়। জামাতে ইমামতি করবেন বাংলাদেশ ইসলাহুল মুসলেমিন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ। ইতোমধ্যে সেখানেও ঈদ জামাতের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এবার নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে চলছে ঈদ জামাতের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ