October 21, 2019, 2:13 am

রংপুরের সদ্যপুস্করিনীতে প্রতিপক্ষের আঘাতে চোখ হারালো যুবক

Spread the love
রংপুর অফিস:
রংপুরের সদ্যপুস্করিনীতে প্রতিপক্ষের আঘাতে চোখ হারালো সুজন নামে যুবক।সুজন এলাকার একজন হতদরিদ্র দিন মজুর, পৈত্রিক ভীটা না থাকায় দির্ঘ্য দিন ধরে নয়াপুকরের সরকারী খাস জমিতে বসবাস করে আসছিল। সুজন সহ উক্ত খাস জমিতে চৌদ্দটি পরিবার বসবাস করে।এলাকার প্রভাবশালী বাবলু ও চান্দু গং চৌদ্দটি পরিবারকে খাস জমিতে বাড়ি করতে দিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়।  হঠাৎ করে কিছু দিন ধরে পরিবার গুলোর চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে এক ঘড়ে করে রাখে। গতকাল এলাকাবাসী সহ সুজন বাবলু ও চান্দু গং এর কাছে রাস্তার জন্য গেলে তাদের সাথে সুজনের বাকবিতণ্ডা হয়, এক পর্যায়ে সুজনের উপর চড়াও হয়ে চান্দুর উষ্কানিতে বাবলু লোহার বল্লম দিয়ে সুজনের চোখে পর পর দুবার আঘাত হানে। পরে এলাকাবাসী গুরুতর অবস্থায় সুজনকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চক্ষু বিভাগে ভর্তী করে সুজনের মা প্রতিবাদ করতে গেলে তাকেও শ্লীলতাহানী করা হয় ।রমেকের চিকিৎসকরা জানায়,  সুজনের ডান চোখ গুরুতর জখম হওয়ায় চোখটি নষ্ট হয়ে যায় । এ ঘটনার জের ধরে এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে ।ঘটনার পর রংপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়, মামলা করায় বাবলু ও চান্দু গং বাদীপক্ষকে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছে।সদর থানার ওসি জানান, বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নেয়া হয়েছে এবং দোষীদের গ্রেফতারে সকল আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হবে।
প্রাইভেট ডিটেকটিভ/৭জুলাই ২০১৯/ইকবাল
Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ