January 24, 2020, 10:59 am

শিরোনাম :
নির্বাচিত হলে ২৪ ঘণ্টা সেবা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস ২৪শে জানুয়ারির চট্টগ্রাম গনহত্যা, শহীদ বেদীতে সৈনিকলীগ(কামরুল/ওয়াদুদ) নগর ও দক্ষিণ জেলার পুস্পান্জলী অর্পন পীর মুর্শিদ ও বিশ্বের সকল অলি আল্লাহর স্মরণে আগাণী ৯ই ফেব্রুয়ারি রোজ রবিবার ২০২০ইংরেজি তারিখে পালিত হতে যাচ্ছে ৯তম বার্ষিক ফাতেহা শরীফ সামনে রমজানে বাজার তদারকিতে সরকারের উদ্যোগ যেন ফলপ্রসূ হয় রাজধানী ঢাকার মিরপুরে চলন্তিকা বস্তিতে ফের ভয়াবহ আগুন নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস্ লিঃ এর শ্রমিক ইউনিয়নের দ্বী-বার্ষিক নির্বাচন সম্পূর্ণ দেশের ৯৭৩টি টেক্সটাইল কোম্পানি ৫ হাজার ৫১ কোটি টাকা গ্যাস বিল বকেয়া রেখেছে লাহোরে প্রথম টি-২০ আজ জয় দিয়েই সিরিজ শুরু করতে চায় বাংলাদেশ শক্তিশালী ঝড় গ্লোরিয়ার আঘাতে স্পেনে ১৩ জন নিহত হয়েছেন আজ ২৪ জানুয়ারি ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস

যে কারনে জিহ্বা সাদা হয়

Spread the love

যে কারনে জিহ্বা সাদা হয়

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

সাদা জিহ্বা সাধারণত ক্ষণস্থায়ী হয়ে থাকে। তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে এটি দীর্ঘস্থায়ী এবং বারবার হতে পারে। জিহ্বার প্যাপিলার প্রদাহের কারণে সাদা জিহ্বার সৃষ্টি হয়। সূক্ষ্ন খাদ্যকণা, ব্যাকটেরিয়া এবং মৃত কোষ প্রদাহজনিত প্যাপিলাতে আবদ্ধ হয়ে সাদা আবরণ সৃষ্টি করে থাকে।

অনেক কারণে জিহ্বায় প্যাপিলার প্রদাহ হতে পারে। যেমন ধূমপান, মদ্যপান, মৃদু ডিহাইড্রেশন বা পানিশূন্যতার কারণে প্যাপিলার প্রদাহ হয়ে সাদা জিহ্বার সৃষ্টি হতে পারে। ঘুম থেকে ওঠার পর অনেকেই মাঝে মধ্যে সাদা জিহ্বা দেখতে পান। ঠান্ডাজনিত কোনো অসুখ বা অ্যালার্জির কারণে এমন হতে পারে। আবার ক্রমাগত রাতের বেলায় মুখ দিয়ে শ্বাস নেয়ার কারণেও এমনটি হতে পারে। সাধারণভাবে সাদা জিহ্বার এ অবস্থার অবসানে যা করণীয়, তা হলো- ক. জিহ্বা ব্রাশ করতে হবে। খ. ধূমপান বন্ধ করতে হবে। গ. প্রচুর পানি পান করতে হবে। ঘ. আঁশযুক্ত খাবার গ্রহণ করতে হবে।

সাধারণ কারণ ছাড়াও বিভিন্ন অসুস্থতার কারণে জিহ্বা সাদা হতে পারে। সেগুলো হলো- ১. ক্যান্ডিডোসিস; ২. ক্রনিক অসুস্থতা বা সব সময় অসুস্থ থাকা; ৩. এপস্টেন বা ভাইরাস; ৪. হেয়ারি টাং বা জিহ্বা; ৫. রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার সমস্যা বা এইডস হলে; ৬. লিউকোপস্নাকিয়া; ৭. ডায়রিয়ায় পানিশূন্যতা বেশি হলে; ৮. অ্যাজমা রোগীদের ক্ষেত্রে স্টেরয়েড ইনহেলার ব্যবহারের কারণে।

ধূমপান বা এলকোহল সেবন না করলেও জিহ্বার রঙ সাদা হতে পারে। এ ক্ষেত্রে রোগীর ক্রনিক ওরাল থ্রাশ থাকতে পারে। ক্রনিক ওরাল থ্রাশ হলে যথাযথ চিকিৎসা গ্রহণ না করলে সমস্যা থেকেই যাবে। এ ছাড়া যেসব ওষুধ সেবনের কারণে শুষ্ক মুখ হয়ে যায়, সে ক্ষেত্রে জিহ্বা সাদা হতে পারে। ওষুধ সেবন শেষ হয়ে গেলে জিহ্বা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। সাধারণ কারণ ছাড়া জিহ্বা সাদা হলে অবশ্যই আপনাকে বুঝতে হবে আপনি কোনো না কোনো শারীরিক সমস্যায় আক্রান্ত। হয়তো অসুখটি সম্পর্কে এখন পর্যন্ত আপনি জানেন না বা আপনার সঠিক চিকিৎসা হচ্ছে না। তাই কোনো কিছুকে অবেহেলা করা ঠিক নয়। বিশেষ করে মুখের অভ্যন্তরে সাদা সংক্রমণে আপনাকে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। মুখের অভ্যন্তরে সাদা সংক্রমণ দীর্ঘস্থায়ী হলে দ্রম্নত চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। নিজে সচেতন হোন এবং অন্যকেও সচেতন করে তুলুন। আর হ্যাঁ কোনো অবস্থাতেই মুখস্থ কোনো ওষুধ সেবন করবেন না।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ