January 15, 2020, 1:22 am

শিরোনাম :
ভোলা বোরহানউদ্দিনের কাচিয়া ৬নং ওয়ার্ডে ছেলে এবং ছেলের বউর অত্যাচারে গর্ভধারীনি মাতা ঘর ছাড়া ৬০ কেজি গাঁজাসহ আটক ৬ : অভিযানে র‌্যাব-১০ দক্ষিণ জেলা সৈনিক লীগের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত সভাপতি- কাজেমুল, সম্পাদক নিজামুদ্দিন র‌্যাব-৫ এর অভিযানে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিলসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মাদার বখসের মৃত্যুবার্ষিকীকে সামনে রেখে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ শার্শার নাভারণে রুগ্ন গরুর মাংস বিক্রির অভিযোগ বেনাপোল পৌরসভার উন্নয়নের নামে মেয়র লিটনের ভাগ্যের উন্নয়ন বকশিগঞ্জে উদ্ভাবিত লাগসই প্রযুক্তির প্রয়োগ ও সম্প্রসারণ শীর্ষক সেমিনার গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জারীকৃত পাঁচ মিনিটের ভিডিও ক্লিপ ধারণের জন্য অটিজম ও প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রতি আহবান বেনাপোলে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

যশোর জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক মিলন গ্রেপ্তার

Spread the love

ইয়ানূর রহমান,শার্শা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

হত্যাসহ একাধিক মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামি জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক জাহিদ হোসেন মিলন ওরফে টাক মিলনকে (৪৫) যশোর ডিবি পুলিশ আটক করেছে। আটক মিলন শহরের কাজিপাড়া মানিকতলা এলাকার মৃত শেখ রুস্তম আলীর ছেলে।যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম জানান,গত ১২ জানুয়ারি ২০২০ ইং তারিখ  রোববার রাতে ঢাকার শাহজ্বালাল আর্ন্তজাতিক বিমান বন্দর থেকে ইমিগ্রেশন পুলিশ মিলনকে আটক করে। মিলন যশোর কোতয়ালি থানার তিনটি মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামি। মামলা গুলো তদন্ত করছে যশোর ডিবি পুলিশ। ওয়ারেন্ট নাম্বার হচ্ছে এস টিসি ২২৫/১৬, এস টিসি ২৬৩/১৫, এর জি আর ৪১৮/১২, এস টিসি ২৪৮/১৭।এসব মামলায় দীর্ঘদিন মিলন পলাতক থাকায় যশোর পুলিশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন থানায় ও ইমিগ্রেশন গুলোতে ইনফরমেশন দেয়া ছিলো। এর ভিত্তিতে ইমিগ্রেশন পুলিশ মিলনকে আটক করে ডিবি পুলিশকে খবর দেয়।গতকাল ১৩ জানুয়ারি ২০২০ ইং তারিখ সোমবার  সকালে ইমিগ্রেশন পুলিশ মিলনকে ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।তৌহিদুল ইসলাম আরো জানান, গত ১২ জানুয়ারি ২০২০ ইং তারিখ রোববার রাতে মিলন দুবাই থেকে শাহাজ্বালাল আর্ন্তজা তিক বিমান বন্দরে পৌছুলে ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে আটক করে।ডিবির ওসি মারুফ আহমেদ জানান, মিলন কাজিপাড়ার সোহাগ হত্যা, সিনবাদ হত্যা,হাতকাটা মুনির হত্যাসহ বেশ কয়েকটি হত্যার সাথে পরোক্ষ ভাবে জড়িত। সোহাগ হত্যা মামলার আসামি আকাশ আটকের পর সে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবান বন্দি দেয় মিলনের নির্দেশে সোহাগকে হত্যা করা হয়।এছাড়াও মিলনের নামে কোত য়ালি থানায় হত্যা, চাঁদাবাজি, ছিনতাইসহ অর্ধ ডজন মামলা রয়েছে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৪ জানুয়ারি ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ