April 1, 2020, 12:05 pm

শিরোনাম :
গোয়াইনঘাটে উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের মাস্ক বিতরণে ভাইস চেয়ারম্যান কয়েছ মরহুম মাও. মিজানুর রহমান স্মৃতি সংসদের ত্রাণ বিতরণ রংপুর মেডিকেলে করোনার নমুনা পরীক্ষা শুরু আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে চট্টগ্রামে হত দরিদ্রদের ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রাণ তুলে দিচ্ছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির পটিয়া শোভনদন্ডীতে ইউনিয়নে আ’লীগ নেতা আলমগীর খালেদের ত্রাণ বিতরণ চিলমারীতে সকল নির্দেশনা অমান্য করে হিন্দু ধর্মালম্বীদের অষ্টমির স্নান সম্পন্ন বেনাপোলে সংখ্যালঘু গৃহবধুকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে আওয়ামীলীগ নেতা আটক সামাজিক দূরত্ব গন্ডী এঁকে দিলো বিডি ক্লিন পীরগঞ্জ শাখা জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশের ত্রান মাস্ক ভিতরন ঘরে ছয় মাসের সন্তান রেখে ‘করোনাযুদ্ধে’ ইউএনও সুমি মজুমদার

যশোরের চৌগাছায় সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল জব্দ, তদন্ত কমিটি গঠন

Spread the love
বিল্লাল হুসাইন,ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

যশোরের চৌগাছায় সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরের ৫৯ বস্তা চাল জব্দ করেছেন উপজেলা প্রশাসন। ২টি আলোমসাধুযোগে কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে  বাজারে আনার সময় এই চাল জব্দ করা হয়। গত ২১-০৩-২০২০ইং তারিখ শনিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌগাছা-কুঠিপাড়া বাইপাস সড়ক থেকে সমুদয় চাল জব্দ করেন।জব্দকৃত চালের একটি বড় অংশ হচ্ছে ধুলিয়ানী ইউনিয়নের কাবিলপুর বাজারের এক ডিলারের বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় ৩ সদস্য বিশিষ্ঠ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন উপজেলা প্রশাসন।শনিবার দুপুরে ধুলিয়ানী বাজার হতে সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরের চাল কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে আলমসাধু বোঝাই করে চৌগাছায় নিয়ে আসা হচ্ছে।এমন খবরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌগাছা-কুঠিপাড়া বাইবাস সড়কে (পাকিস্থান সড়ক) অবস্থান নেয় এবং চালসহ আলমসাধু চালকদের হাতেনাতে ধরে ফেলে। চালের বড় একটি অংশ উপজেলার কাবিলপুর বাজার এবং বাকি অংশ পাশ্ববর্তী ঝিকরগাছা উপজেলার ছুটিপুর বাজার হতে চৌগাছায় আনা হচ্ছিল বলে জানা গেছে।কাবিলপুর বাজার থেকে চাল নিয়ে আসা আলমসাধু চালক আব্দুস সামাদ জানান, কাবলিপুর গ্রামের ছানার আলীর ছেলে জহুরুল ইসলাম কিছু চাল চৌগাছা বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে যেতে বলেন। আমি ভাড়া ঠিক করে কাবিলপুর বাজারস্থ্য জহুরুলের আড়ৎ থেকে ৩০ কেজির ৩৯ বস্তা চাল লোড করে চৌগাছার উদ্যোশে রওনা হই।চালের মালিক জহুরুল মোটরসাইকেলে আমার পিছুপিছু ছিল। কিন্তু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতি টের পেয়ে সে আমার পিছু থেকে পালিয়ে যায়। আমি পরে জানতে পারি সমুদয় চাল হচ্ছে সরকারী চাল।অপর আলমসাধু চালক নজরুল ইসলাম বলেন, পৌর এলাকার বিশ্বাসপাড়ার চাল ব্যবসায়ী মনু মিয়া শনি বার সকালে ভাড়া ঠিক করে আমাকে ছুটিপুর বাজার হতে চাল আনতে পাঠাই। আমি ছুটিপুর বাজার হতে জনৈক এক ব্যবসায়ীর আড়ৎ থেকে চাল নিয়ে আসছি লাম।পথিমধ্যে নির্বাহী কর্মকর্তা স্যার আমাকে আটক করে। এ সময় চাল ব্যবসায়ী মনুকে ফোন দিয়ে ঘটনাস্থলে আসতে বললে সে আসেনি, পরে ফোন বন্ধ করে রাখেন ।উপ জেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম চাল জব্দের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় সহকারি কমিশনার (ভূমি) নারায়ণ চন্দ্র পালকে আহবায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।কমিটিকে পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতি বেদন জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর যারা এর সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/২৬ মার্চ ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ