July 16, 2019, 8:30 pm

শিরোনাম :
রাজশাহী নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের চার দফা দাবিতে বিক্ষোভ নওগাঁর মান্দায় দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার ১৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত পাইকগাছায় মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত রেকজিল এগ্রো ডাচ কোম্পানির সাথে কৃষি মন্ত্রীর বৈঠক ৬৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধ ঘোষণা ব্রহ্মপুত্র নদের চিলমারী পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৭৬ সে.মি উপর দিয়ে প্রবাহিত তাহিরপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের ত্রাণসামগ্রী ও জরুরী ওষুধপত্র বিতরণ সুন্দরগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতিতে একজনের মৃত্যু: পানি সম্পদ সচিবের পরিদর্শন তাহিরপুরে “স্বপ্নচূড়ার” বন্যা কবলিত ২ শতাধিক পরিবাকে শুখনো খাবার ও ঔষুধ প্রদান ৩১ মাসের মধ্যে সূচক সর্বনিম্ন অবস্থানে বাজারে হোন্ডার নতুন দুই মোটরসাইকেল

মশা মারতে লগ বুক খুলছে ডিএনসিসি

Spread the love

মশা মারতে লগ বুক খুলছে ডিএনসিসি

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

ডেঙ্গু জ¦রের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রতিটি এলাকায় মশার ওষুধ ছিটানো নিশ্চিত করতে লগ বুক খোলা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। মশক নিধনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেওয়ার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, এই লগ বুকের মাধ্যমে জানা যাবে কোন এলাকায় কখন মশা নিধন করা হয়েছে বা হয়নি। গতকাল রোববার সচিবালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগে মশক নিধন বিষয়ে আয়োজিত এক সমন্বয় সভায় মেয়র আতিকুল এ কথা জানান।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকনসহ দু’সিটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, মশক নিধনকর্মীদের একটি লগ বুক করে দিয়েছি। লগ বুক আগামি সাতদিনের জন্য প্রকাশ করবো। কোন এলাকাতে কোন মশক নিধককর্মী যাবেন এবং তার মোবাইলফোন নম্বর, সেটি আমরা স্থানীয় সবাইকে জানিয়ে দিচ্ছি। তখন আপনারা ফোন করে বলতে পারবেন, আমার রোডে মশক নিধককর্মী আসেনি।

জনগণকে সম্পৃক্ত করে সমস্যা সমাধান করতে হবে জানিয়ে মেয়র আতিকুল বলেন, মশক নিধনকর্মীরা কেনো যাচ্ছেন না, এজন্য লগ বই খুলেছি। এ ছাড়া বিভিন্ন স্টিকার, পোস্টার এবং বিভিন্ন বাজারে দিয়ে দিচ্ছি। স্কুল-মাদ্রাসা ও মসজিদের ইমামদের সঙ্গে বসেছি।

মেয়র আতিকুল আরও বলেন, উত্তর সিটি করপোরেশন থেকে এটি (মশক নিধন) একটি চ্যালেঞ্জ বলে মনে করি। এই চ্যালেঞ্জ নেওয়ার জন্য নির্বাচিত মেয়র হিসাবে এটা আমার প্রথম সিজন (মশা)। আমি অভিজ্ঞতা অর্জন করছি। অভিজ্ঞতা অর্জন করতে গিয়ে দেখলাম যে, এখানে অনেক ধরনের চ্যালেঞ্জ আছে।

উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র বলেন, আমাদের এক কন্ট্রাকটর দ্য লিমিট এগ্রো প্রোডাক্টটস, তার মশার ওষুধ চার বার টেস্ট করার পর দেখেছি খারাপ ওষুধ। দ্য লিমিট এগ্রো প্রোডাক্টকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন থেকে ব্ল্যাক লিস্ট করা হয়েছে। তার ওষুধ আমরা নেবো না। আমরা দেখেছি, এই ওষুধে যে কম্পোজিশন থাকে, গত ১১ বছর ধরে একই ধরনের কম্পোজিশন (রাসায়নিক মিশ্রণ) চলছে। আমরা আইসিডিডিআরবি, স্বাস্থ্য অধিদফতর এবং সিডিসির সঙ্গে কথা বলে ইমিডিয়াটলি মশার ওষুধের কম্পোজিশন পরবর্তী যে চালান আসবে, তার আগে কিছু চ্যালেঞ্জ রয়েছে।

আমরা মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি, এটিকে আমরা ডব্লিউএইচও এর অনুমতি নিয়ে নতুন ওষুধ কম্পোজিশন এনে প্রথমবারের মতো ট্রাই করতে যাচ্ছি বলে যোগ করেন মেয়র আতিকুল।

এখানে তিনটি কম্পোজিশন দিয়ে এই ওষুধ হয় জানিয়ে মেয়র বলেন, তার একটি পরিবর্তন করা হয়েছে। কিন্তু আমি বলেছি যে, তিনটিই পরিবর্তন করতে হবে। এটি নিয়ে প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলছি। আমাদের বিশ্বাস আমরা একটা ভালো রেজাল্ট আনতে পারবো।

মশার ওষুধের যদি কোনো ধরনের সমস্যা থেকে থাকে এটাও আমাদের সমাধান করতে হবে। সেজন্য প্রথমবারের মতো দ্য লিমিট এগ্রো প্রোডাক্টসকে ব্ল্যাক লিস্ট করা হয়েছে। উত্তর সিটি করপোরেশনের কোনো টেন্ডারে অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ