February 18, 2020, 12:28 pm

শিরোনাম :
যশোরের বাঁকড়া হাজির বাগ সাবাস চেয়ারম্যানের ১৬ তম মৃত্যু বার্ষিকী ও স্বরণ সভা -২০২০ অন্ন বস্ত্র নিয়ে অসহায়দের পাশে দাঁড়াই; জননেতা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ রংপুর শ্যামলী আইডিয়াল টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ বকশিগঞ্জে শিক্ষার্থী বিহীন প্রতিবন্ধী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে ভাতাভোগীদের ভাতা প্রদানের লক্ষে যাচাই বাছাই সম্পূর্ণ জৈন্তাপুরে সূচনা এর উপকার ভোগীদের স্ববজি চাষ সম্পর্কে মৌলিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত চিলমারীতে দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত দাদন ব্যাবসায়ীর কবলে নারী রেমিটেন্স যোদ্ধা, প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদে পাঠানটুলী রোড় কলাবাগানে ডাস্টবিনে মৃত শিশু পাওয়া গেছে গাজীপুরের শ্রীপুরে দুই লাখ টাকা যৌতুক না দেয়ায় স্বামী,শাশুড়ি ও দুই মামা শ্বশুরের বিরুদ্ধে গৃহবধূ মুন্নি আক্তারের মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে ঘরে আটকে রাখার অভিযোগ

ভোলা বোরহানউদ্দিনের পদ্মামনসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রকে, সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে মানব বন্ধন

Spread the love

রুজিনা বেগম, ভোলা জেলা প্রতিনিধিঃ

ভোলা বোরহানউদ্দিন কাচিয়া ০৮ নং ওয়ার্ড এর দালাল বাজার এ একদল সন্ত্রীদের হামলায়, ৬ ই ফেব্রয়ারি বৃহস্পতিবার, পদ্মামনসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মোঃ ছালমান (১৫) কে, ও তার মা কে একদল সন্ত্রাসী বাহিনী, গুরুত্ব আহত করেছেন। সেই হামলার প্রতিবাদে ১০ ই ফেব্রুয়ারি সোমবার দুপুর ১১ ঘটিকার সময় হতেই পদ্মামনসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষক শিক্ষিকা সহ অত্ত এলাকার জনগন সহ, এই সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানব বন্ধন করেছেন। তাদের একটাই দাবি এই সন্ত্রাসী বাহিনীদের বিচার হওয়া উচিৎ না হয়, এই রকমই সন্ত্রাসীদের আক্রমণ এর ভয়ে স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রীরা আসতে পারবেনা, কখন যে আবার কার উপরে আক্রমণ হয়। আহত হওয়া ছাত্র, মোঃ ছালমান স্কুল ছুটি হওয়ার পরপরই তার বাড়িতে যাওয়ার পথে তাদের বাড়ির দরজায় বসার বৈঠক খানার সামনে যেতে না যেতেই হঠাৎ পাচঁ হুন্ডা ভর্তি সন্ত্রাসী বাহিনী হঠাৎ এসে তাকে হুন্ডার উপর উঠাতে চেষ্টা করে, তার পরই ছালমান উঠতে না চাইলে তখনই সন্ত্রাসীরা দশম শ্রেণির ছাত্রকে থাপর ও গুসি এবং পা দিয়ে লাথি শুরুকরে এবং ছালমান এর চিৎকার শুনতে পেয়ে তার মা বাড়ি থেকে আসতে দেখে ছালমানকে মাথায় লাঠি দিয়ে বারিদেয় এবং তার নাকমুখ থেকে রক্ত বের হয়, এমন কি তার একটি বই বেসে যায় রক্তে এবং তার মাকে ও এলোপাতাড়ি মাইর দোর করার পরই ছালমান ও তার মা অজ্ঞান হয়ে পড়েছে। এলাকার জনগনের ডাক চিৎকার শুনতে পেয়ে সন্ত্রাসীরা তাৎক্ষণিক পালিয়ে যায়, ১/মোঃ নাঈম, পিতা ছলেমান, ২/মোঃ সেলিম ও ৩/সোহেল সহ অন্যান্য অচেনা সন্ত্রাসী বাহীনিরা, সেলিমও সোহেল তার নিজ বাড়িতে গিয়ে পালিয়ে থাকে এবং নাঈম সহ অন্যান্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এলাকার জনগন ডাকচিৎকার শুনতে পেয়ে, তাৎক্ষণিক পাটোয়ারী বাড়িতে এসে ভিরকরে এবং তারা থানায় জানালে, তাৎক্ষণিক থানা থেকে পুলিশের সদস্য ও ঐ এলাকার মেম্বার মোঃ দ্বিন ইসলাম সহ, এসআই দেলোয়ার, এস আই হেমায়েত সহ সংজ্ঞিয় পোর্স সহ এসে ঘটনা স্থানে এসে জনগনের কাছে এই ঘটনার কথা শুনে এবং সেলিমদের ঘরে ঢুকে, সেলিম কে ঘর থেকে বের করে আনে। কিছু কথা জিজ্ঞেস করলে সেলিম পুলিশ সদস্যদের বলে আমি ঐ ছেলেদের মারামারি যেন না করতে পারে তার জন্য তাদের ছারিয়ে দিয়েছি, আর আহতো হওয়া ছালমান ও তার মা বলে সেলিম, এবং সোহেলও নাঈম সহ অন্যান্য অচেনা ছেলেরা আমাদেরকে এলোপারি মাইর দোর করে। এই মানব বন্ধন এর, শিক্ষক এবং ছাত্রছাত্রী দের একটাই দাবি, এই সন্ত্রাসী হামলার বিচার চাই। এবং আমরা এর তিব্র নিন্দা জানাই। এবং বোরহান উদ্দিন থানায় এই জগন্য ঘটনার ৬ই ফেব্রুয়ারি দশম শ্রেণির ছাত্র ছালমান এর মা শাহানুর বেগম বাদি হয়ে একটি মামলা দাখিল করেন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১১ ফেব্রুয়ারী ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ