April 2, 2020, 6:16 am

শিরোনাম :
যশোরের ঝিকরগাছার এসিল্যান্ডকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যাওয়া সুব্রত দাস আটক যশোরের শংকরপুরে এএসআই নিয়ামুলের নিজ উদ্যোগে করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাঁচতে জনসচেতনা ভৈরবে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৮ জন কে আইনের আওতায় আনা হয় ও ১৭৫০০ টাকা জরিমানা করা হয় নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ব্রহ্মপুত্র নদে হিন্দু সম্প্রদায়ের অষ্টমী পালন কুয়াকাটায় দেয়াল চাপা পরে ৬ষ্ঠ শ্রেনীর শিক্ষার্থী নিহত গভীর রাতে কর্মহীন অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহিন যশোরে কেটলির গরম পানিতে চা-দোকানির হাত ঝলসে দিল পুলিশ বাদাঘাট শ্রী কৃষ্ণ সেবা সংঘের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সাবেক ডিসি,আরডিসি,দুই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে মামলা নথিভুক্ত ফুলবাড়ীতে বাজার পরিস্কার করলো রংধণু পাঠাগার ও চাষী ক্লাবের সেচ্ছাসেবীরা

ব্রীজ আছে,রাস্তা নাই

Spread the love

মোঃ রেজাউল হক, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলায়, পান্ডুলিপি ইউনিয়নের,৩নং ওয়ার্ড ও ৭নং ওয়ার্ড এর মাঝে এই ব্রীজ রয়েছে। কিন্তু সংযোগ সড়ক নেই। ২০ বছর আগে ব্রীজটি নির্মাণ হলেও এখনও সংযোগ সড়ক তৈরি করা হয়নি।
জনসাধারন চলাচলের আগেই ব্রীজটির বিভিন্ন অংশে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়েছে। সংযোগ সড়ক না থাকায়, ৩নং ওয়ার্ড ও ৭নং ওয়ার্ড এর ১০ টি গ্রামের প্রায় অর্ধলক্ষাধিক মানুষ চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
লোকজন বর্ষাকাল, বর্ষার সময় ব্রীজের উপর থেকে চতুর সাইটে মুটাজাল দিয়ে, মাছ ধরা হয়।
তাছাড়া এই সেতুটি ঠিক আছে, কিন্তু ব্রীজটিতে সংযোগ সড়ক মেরামত না থাকায়, চলাচলের কারণে দূর্ভোগে পড়তে হয়। আর এই দূর্ভোগ বর্ষাকালে চরম আকার ধারন করে। সংযোগ সড়ক মেরামত না থাকায় ব্রীজের উপরে উঠা বা যাতায়াত করা যায় না তেমনি আবার নিচে পানি থাকায় নিচ দিয়েও চলাচল করা যায় না।
এই গ্রামের লোকজন বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ জনপ্রতিনিধিরা একাধিকবার এই সেতুর সংযোগ সড়ক নির্মাণ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও আজ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন হয়নি। এ ব্যাপারে অনেকের দ্বারস্থ হলেও তেমন সাড়া মেলেনি।
স্থানীয় কৃষক মোঃ আকিনুর মিয়া বলেন, সেতুর সংযোগ সড়ক না থাকায়, এতে শারীরিক পরিশ্রমের পাশাপাশি নিজের শারীরিক ক্ষতি হয় বলে জানান তিনি। ৩নংও ৭নং ওয়ার্ডের কৃষকরা বলেন, নির্বাচনের সময় জনপ্রতিনিধিরা এসে ওয়াদা করেন। নির্বাচনের পর বর্তীকালে তাদের আর খুঁজে পাওয়া যায় না। হাজারো মানুষের দূর্ভোগে কেউ এগিয়ে আসেন না বলে জানান তিনি।
উলিপুর উপজেলার, পান্ডুল ইউনিয়নের, প্রায় ২০টি গ্রামের মানুষের চলাচল এই সড়ক দিয়ে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৭ মার্চ ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ