October 15, 2019, 6:31 pm

বৈষম্য নিরসনে অন্তর্ভুক্তিমূলক অবাধ বাণিজ্য নীতি প্রণয়ন করতে হবে: স্পিকার

Spread the love

বৈষম্য নিরসনে অন্তর্ভুক্তিমূলক অবাধ বাণিজ্য নীতি প্রণয়ন করতে হবে: স্পিকার

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন একটি বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ। এ ক্ষেত্রে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ অত্যাবশ্যকীয় উপাদান বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি বলেন, বৈশ্বিক বাণিজ্যে বিরাজমান অসমতা ও বৈষম্য নিরসনে অন্তর্ভুক্তিমূলক অবাধ বাণিজ্য নীতি প্রণয়ন করতে হবে। গতকাল সোমবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ১৩৯তম ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) অ্যাসেম্বলি’র স্টান্ডিং কমিটি অন সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট, ফিন্যান্স অ্যান্ড ট্রেড শীর্ষক ডিবেটে এসব কথা বলেন তিনি। ড. শিরীন শারমিন বলেন, দরিদ্র, প্রান্তিক ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে প্রাধান্য দিয়ে তাদের কার্যকর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বাণিজ্য নীতি তৈরি করতে হবে, যাতে করে ন্যায্য মজুরি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি নিশ্চিত হয়। তিনি আরও বলেন, ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য অবাধ বাণিজ্য জরুরি যার মাধ্যমে স্বল্পোন্নত ও উন্নয়নশীল দেশসমূহ উপকৃত হবে এবং পরিবর্তনের সুবিধা দরিদ্র জনগোষ্ঠী ভোগ করতে পারবে। স্পিকার বলেন, সহ¯্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) অর্জনে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। এসডিজির ক্ষেত্রেও এ সকল উপাদান কার্যকর ভূমিকা রাখবে। স্টান্ডিং কমিটি ব্যুরো’র সদস্য সিলভিয়া ডিনিকা ডিবেটে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের সদস্য হিসেবে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, মো. আবদুল কুদ্দুস, এ বি তাজুল ইসলাম, মমতাজ বেগম, কে.এইচ আজিজুল হক, আশেক উল্লাহ রফিক, মোহাম্মদ আবদুল মুনিম চৌধুরী এবং শামীম হায়দার পাটোয়ারী উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ