August 23, 2019, 11:19 am

শিরোনাম :
চাদাঁ দিয়ে নয় ,একই মায়ের অভিন্ন সন্তান হিসেবে বসবাস করতে চাই-কংজরী চৌধুরী তোয়াকুল ছাত্র জমিয়তের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত বগুড়ার মহাস্থান উচ্চ বিদ্যালয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের নিয়ে জনসেচনতামূলক র‌্যালী ও লিফলেট বিতরন বোয়ালমারীতে প্রাইম ব্যাংক কর্মকর্তার বিদায় বরণ অনুষ্ঠান সারিয়াকান্দিতে বজ্রঘাতে মানুষ সহ গরুর মৃত্যু তাহিরপুর প্রেসক্লাব সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে তাহিরপুর প্রেসক্লাবের নিন্দা ও প্রতিবাদ দেশে সত্যিকারের হিরো কৃষক- কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া তালায় এক বৃদ্ধ রহস্যজনকভাবে আত্নহত্যা আলফাডাঙ্গায় ভাতিজার হাতে চাচী খুন কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে কিশোরীকে ধর্ষণ শেষে হত্যার অভিযোগ

বিদ্রোহী দমনে কাশ্মিরে ভারতীয় নিরাপত্তা অভিযান, নিহত ৫

Spread the love

বিদ্রোহী দমনে কাশ্মিরে ভারতীয় নিরাপত্তা অভিযান, নিহত ৫

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

 

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের কুলগাম জেলায় বিদ্রোহী দমনে পরিচালিত ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনীর অভিযানে পাঁচ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

ভারতীয় পুলিশ জানিয়েছে, গতকাল রোববার জেলার কেল্লাম ডেভসার এলাকায় টানা ছয় ঘণ্টার বন্দুকযুদ্ধের সময় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এখবর জানিয়েছে। কাশ্মিরে সশস্ত্র বিদ্রোহী সংগঠনগুলোর কেউ কেউ সরাসরি স্বাধীনতার দাবিতে আন্দোলনরত। কেউ কেউ আবার কাশ্মিরকে পাকিস্তানের অঙ্গীভূত করার পক্ষে। ইতিহাস পরিক্রমায় ক্রমেই সেখানকার স্বাধীনতা আন্দোলনের ইসলামীকিকরণ হয়েছে। এখন সেখানকার বিদ্রোহী সংগঠনগুলোর মধ্যে হিজবুল মুজাহিদীন সবথেকে সক্রিয়। তবে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ কাশ্মিরের জাতিমুক্তি আন্দোলনকে বিভিন্ন জঙ্গিবাদী তৎপরতার থেকে আলাদা করে শনাক্ত করে না। সন্দেহভাজন জঙ্গি নাম দিয়ে বহু বিদ্রোহীর পাশাপাশি বেসামরিকদের হত্যার অভিযোগ রয়েছে ভারতীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে।

ভারতীয় পুলিশ জানায়, পুলিশ, রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ও সিআরপিএফের যৌথ অভিযানে গতকাল রোববার ভোর ছয়টায় বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়। গোপন খবরের ভিত্তিতে যৌথবাহিনী জঙ্গিদের অবস্থান ঘিরে রেখে তল্লাশী শুরু করলে গোলাগুলি শুরু হয়। দুপুর ১২টার দিকে বন্দুকযুদ্ধ থামলে পাঁচ জঙ্গির মৃতদেহ পাওয়া গেছে। নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা প্রথমে সন্দেহ করেছিল গ্রামটিতে দুই থেকে তিনজন জঙ্গী অবস্থান করছে। বন্দুকযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর ওই এলাকায় ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে।

সেনাবাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল রাজেশ কালিয়া বলেন, পাঁচ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত জঙ্গিরা ছিল স্থানীয়। বন্দুকযুদ্ধে নিহতের ঘটনার পর পুলিশের কর্ডন ভেঙে ফেলার চেষ্টা করলে উত্তেজিত জনতার সঙ্গে নিরাপত্তাবাহিনীর সংঘর্ষ হয়। গত সপ্তাহে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে এক সংক্ষিপ্ত বন্দুকযুদ্ধে পুলওয়ামা জেলায় লস্কর-ই-তৈয়বার এক শীর্ষ কমান্ডার নিহত হয়েছিলেন।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ