October 11, 2019, 11:19 pm

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজশাহীতে বিভাগীয় সমাবেশে অনুষ্ঠিত

Spread the love

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজশাহীতে বিভাগীয় সমাবেশে অনুষ্ঠিত

 

রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ইং বাদ জোহর নগরীর পাঠানপাড়া সংলগ্ন মোড়ে এ সমাবেশের আয়োজন করে রাজশাহী মহানগর বিএনপি। সমাবেশে নানান বাধার অভিযোগ থাকলেও হাজারও নেতাকর্মীদের ঢল নামে।

 

দলীয় প্রধানের মুক্তির দাবিতে সমাবেশে রাজশাহী মহানগরীতে, বিভাগের বিভিন্ন জেলা উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে সমাবেশ স্থলে উপস্থিত হন তারা।

 

এ দিন বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটের দিকে সমাবেশ স্থলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়াও কেন্দ্রীয় নেতা জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ইকবাল হোসেন টুকুসহ বিভাগীয়, মহানগর এবং জেলা বিএনপির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

 

স্থানীয় নেতারা বলেন, আজকে প্রধান অতিথি ও জাতীয় নেতৃবৃন্দের নিকট বলব আমরা কোন সমাবেশ চাই না, আমরা রাজপথে কর্মসূচি চাই। অবিলম্বে সেই কর্মসূচির মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটাতে চাই।

 

স্থানীয় নেতারা আরও বলেন, আমরা কোন মানববন্ধন চাই না, লাগাতার আন্দোলন চাই। আমরা কর্মসূচি চাই। যেই কর্মসূচির মাধ্যমে আমাদের মা’ (খালেদা জিয়া)’কে মুক্ত করতে পারব।

 

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ইকবাল হোসেন মাহমুদ টুকু, রাজশাহীর সাবেক মেয়রল মিজানুর রহমান মিনু, চেয়ারপাসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবসহ আরো অনেকে।

 

অন্যান্যদের মাঝে উপস্তিত ছিলেন, গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ-এমপি, রাজশাহীর সাবেক আরেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, নাদিম মোস্তফা, শ্যামা ওবায়েদ, শাহিন শওকত, ইঞ্জি গোলাম মোস্তফা, অ্যাড মাহমুদা হামিদা, যুবদল সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সিনিয়র সহ সভাপতি মুরতাজুল করিম বাদরু, স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল, আমিরুল ইসলাম খান আলীম, শ্রমিক দল সভাপতি আনোয়ার হোসেন, মোরতাজুল করিম বাদরু, তাতী দলের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, চেয়ারপাসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার প্রমুখ।

 

অপরদিকে: রাজশাহী মহানগর বিএনপির দফতর সম্পাদক নাজমুল হক ডিকেন সাংবাদিকদের বলেন, সমাবেশকে কেন্দ্র করে গতকাল ৮০ জন নেতাকর্মীকে অন্যায়ভাবে আটক করা হয়েছে। সেইসঙ্গে সমাবেশ যাতে সফল না হয়, সেজন্য বিভিন্ন এলাকার বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

 

এ ব্যাপারে রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলম সাংবাদিকদের বলেন, গত তিন দিনে মোট ১৩২ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে বিভিন্ন মামলায় ও সুর্নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

ইফতেখায়ের আলম আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় (২৯ সেপ্টেম্বর) রাজশাহী জেলা পুলিশের নিয়মিত মাদকবিরোধী অভিযানে মোট ৪৪ জনকে আটক করা হয়েছে। রাজশাহী জেলার বিভিন্ন থানা ও ডিবি পুলিশ জেলার বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানা ৬ জন, তানোর থানা ৭ জন, মোহনপুর থানা ১ জন, পুঠিয়া থানা ৩ জন, বাগমারা থানা ৭ জন, দূর্গাপুর থানা ৪ জন, চারঘাট মডেল থানা ৮ জন ও বাঘা থানা ৮ জনকে আটক করে। এরমধ্যে ৩২ জন ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি এবং ১২ জনকে মাদকদ্রব্যসহ ও অন্যান্য মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, গত তিন দিনে মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে ১৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অযথা কাউকে হয়রানি করতে গ্রেফতার করা হয়নি। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিয়মিত অভিযানের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখানে রাজনৈতিক কোনও উদ্দেশ্য নেই।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ