March 31, 2020, 12:32 pm

শিরোনাম :
কলাপাড়ায় ভিজিএফ’র চাল বিতরনে অনিয়ম,২ কর্মকর্তাকে শোকজ করোনা আতঙ্কে কেউ যায়নি কাছে; পাশে দাঁড়ালেন পুলিশ কলাপাড়ায় স্বাস্থ্যকর্মীদের মাঝে পিপিই বিতরন করলেন এমপি মহিব কলাপাড়ায় সেনাবাহিনীর টহল জোরদার বোয়ালমারীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ২০টি দোকান পুড়ে ভষ্মিভূত আড়াই কোটি টাকার ক্ষতির শঙ্কা চৌদ্দগ্রামে বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রবাসীদের সচেতন করছে ব্র্যাক ‘প্রত্যাশা’র কর্মী যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় বন্ধন ক্লিনিকের মালিক নিহত যশোরে ফাঁদে ফেলে দুই সন্তানের জননীকে গণধর্ষণ, আটক ১ সাংবাদিক সাগর চৌধুরীর উপর সন্ত্রাসী হামলা এসএসপি’র নিন্দা হোম কোয়ারান্টাইনে থাকা অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন চেয়ারম্যান ফারুক
প্রতিকি ছবি

বাদী নিরাপত্তা হীনতায় রাত্রে বেড়াচ্ছে পালিয়ে পীরগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলা অগ্নি সংযোগ লুটপাটের মামলার আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরলেও পুলিশ দেখেও না দেখার ভান করছে

Spread the love

মোস্তফা মিয়া,পীরগঞ্জ(রংপুর) প্রতিনিধিঃ

প্রতিকি ছবি

রংপুরের পীরগঞ্জের ৫নং মদনখালি ইউনিযনের মদনখালি গ্রামে এক অসহায় পরিবারের বাড়ীতে প্রকাশ্যে দিবালোকে ফ্লিমি স্টাইলে সত্রাসী হামলা, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনার মামলার আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও নিরাপত্তা হীনতায় রাতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে মামলার বাদী। পুলিশ দেখেও না দেখার ভানে। প্রকাশ, গত ১৭ মার্চ সকাল ৯টায় উক্ত গ্রামের মৃত কফিল উদ্দিনের পুত্র প্রভাবশালী আলহাজ¦ কবির উদ্দিন মাষ্টার ও ইউপি সদস্য মধুমিয়া পুর্ব  শক্রুতার জেরে ৫০ থেকে ৬০জন লোক নিয়ে একই গ্রামের দিনমজুর অসহায় পরিবার মহির উদ্দিন এর পুত্র জাইতুল ইসলাম ও জহিরুল ইসলামের বাড়ীতে অতর্কিত হামল চালায়। হামলায় উক্ত পরিবারের নারী শিশু ও বৃদ্ধসহ সকল সদস্যদের বেধড়ক মারডাং, বাড়ী ও বাড়ীর আসবাব পত্র ভাংচুুর সহ বাড়ীতে গচ্ছিত থাকা ৩ লক্ষাধিক টাকাসহ মুল্যবান জিনিস পত্র লুট করে বাড়ীতে আগুন ধরিয়ে দেয়। গ্রামবাসী পীরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনলেও বাড়ীটির ২ টি থাকাঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। বর্তমানে অই পরিবারের সদস্যদের শোবার মত নেই কোন বিছানা পত্র, নেই রান্নার কোন বাসন পত্র, নেই ঘরে কোন খাবার সহ পরিধ্যায়ের কোন পোষাক। বর্তমানে অই পরিবারের সদস্যরা মানবেতর জীবন যাপন করছে। বিষয়টি নিয়ে গত ১৮ মার্চ, স্থানীয় সকল দৈনিক সহ জাতীয় বিভিন্ন পত্রিকায় ফলাও করে সংবাদও ছাপা হয়েছে। পীরগঞ্জ থানা পুলিশ এ ব্যাপারে একটি মামলাও রেকর্ড করেছে, মামলা নং-২১। কিন্তু দুঃখের বিষয় মামলার ৭ দিন অতিবাহিত হতে চললেও থানা পুলিশ অজ্ঞাত কারনে কোন আসামীকে গ্রেফতার করছে না, আসামীরা প্রকাশ্যে গুরে বেড়াচ্ছে বাড়ী ও গ্রামে। থানায় মামলা করার কারনে উল্টো আসামীগন বাদীসহ বাদীর পরিবারের সদস্যদের প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছে বলে জানান বাদী পক্ষ। প্রাননাশের ভয়ে বর্তমানে রাত্রে বাদীর পরিবারের সদস্যরা অন্যের বাড়ীতে রাত্রী যাপন করছে। এব্যাপারে অত্র ইউনিয়নের চেয়ার ম্যান সামছুল আলমের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ঘটনাটি অত্যান্ত দুঃখজনক, তারা দিবালোকে এ সন্ত্রাসী কর্মকান্ডটি চালিয়েছে, এব্যাপারে প্রশাসনিক ভাবে আমার পুর্ন সহযোগিতা থাকবে। এব্যাপারে মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই নুর আলম এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা আসামীদের ধরার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছি কিন্তু তাদেও খুজে পাচ্ছি না। অপরদিকে পীরগঞ্জ পুলিশের অফিসার্স ইনচার্জ সরেস চন্দ্রের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, আমি ছুটিতে আছি, বিষয়টি অবশ্যই গুরুত্ত¡ সহকারে দেখা হবে এবং দ্রুত আসামীদের গ্রেফতার করা হবে। এলাকাবাসী এব্যাপারে প্রশাসনের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ সহ মামলার বাদীর নিরাপত্তা বিধানসহ সন্ত্রাসী দুর্বিত্ত¡দের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/২২ মার্চ ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ