April 2, 2020, 3:08 pm

শিরোনাম :
আখাউড়া পৌর শহরের ১ নং ওয়ার্ড দুর্গাপুর মৃত দেওয়ান মনির এর বাড়ির ভাড়াটিয়ার নিজ কক্ষ থেকে শিল্পী আক্তার(৩৪) এর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে আখাউড়া থানা পুলিশ আখাউড়ায় না খেয়ে দিন পাড় করা হকার কর্মচারীদের মাঝে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ প্রতি উপজেলার দুজনের নমুনা পরীক্ষার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় সাধারণ ছুটিতে ব্যাংক লেনদেনের সময় বাড়ল প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করুন,আমাদের সঙ্গে নয়-মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ইরান কাশ্মীরের বাসিন্দাদের সংজ্ঞা বদলে দিল নরেন্দ্র মোদির সরকার যুক্তরাষ্ট্রে মহামারী করোনাভাইরাসে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড  প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস- পুলিশ সদস্যদের বিনয়ী হতে বললেন আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বেড়ে ৫৬ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভলান্টিয়ার দিয়ে কাজ চালানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

বাংলাদেশ সমবায় ব্যাংকের আনাদায়ী ঋণ ১৯৪ কোটি টাকা

Spread the love

মোহাম্মদ ইকবাল হাসান সরকারঃ

বাংলাদেশ সমবায় ব্যাংকের ১৯৩ কোটি ৭২ লাখ ৮৪ হাজার টাকা ঋণ আনাদায়ী রয়েছে।এর মধ্যে কৃষি ঋণ ৩৬ কোটি ৬৯ লাখ ৭৯ হাজার টাকা, প্রকল্প ঋণ ১০ কোটি ৬৯ লাখ ৪২ হাজার টাকা, প্রকল্প ঋণ (মহিলা) ৫৩ লাখ ৮২ হাজার টাকা, কনজ্যুমার্স ঋণ ৭ কোটি ৯৬ লাখ ৫৭ হাজার টাকা, পার্সোনাল ঋণ ৫৫ কোটি ৯৪ লাখ ২ হাজার টাকা এবং স্বর্ণ বন্ধকি ঋণ ৮১ কোটি ৮৯ লাখ ২২ হাজার টাকা।গত ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং তারিখ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ তথ্য জানান স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ) প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্।এ কে এম রহমতুল্লাহর প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও জানান, মাঠপর্যায়ে সমবায় ব্যাংকের কোনো শাখা অফিস এবং কর্মকর্তা পদায়ন না থাকায় বকেয়া ঋণ আদায়ের লক্ষ্যে সম্প্রতি বিভাগীয় পর্যায়ে গ্রাহকসেবা/ঋণ আদায় বুথ স্থাপনপূর্বক ৫-৬ জন কর্মকর্তা পদায়ন করা হয়েছে। যে সমস্ত জেলায় বিনিয়োগকৃত ঋণের পরিমাণ বেশি ওই সব জেলায় অতিরিক্ত ১ জন করে কর্মকর্তা পদায়ন করা হয়েছে।পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী জানান, মাঠপর্যায়ে সমবায় ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারী পদায়নের ফলে ঋণ গ্রহীতার সঙ্গে ব্যক্তিগত পর্যায়ে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে ফলে অনাদায়ী ঋণ আদায়ের ক্ষেত্রে ক্রমান্বয়ে উন্নতি সাধিত হচ্ছে। ২০০১ সালের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৫ কোটি ৫৭ লাখ ৫১ হাজার বকেয়া ঋণ এবং ১ কোটি ৭৬ লাখ ৩১ হাজার টাকা বকেয়া প্রকল্প ঋণ আদায় করা হয়েছে। বিভিন্ন মামলা দায়েরের ফলে অনাদায়ী ঋণ আদায়ের ক্ষেত্রে অগ্রগতি সাধিত হচ্ছে। ঋণ খেলাপীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের মামলা দায়েরের ফলে ২০০১ সালের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ৮৪ লাখ ২১ হাজার টাকা বকেয়া ঋণ আদায় করা হয়েছে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০/ইকবাল

 

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ