April 2, 2020, 3:25 am

শিরোনাম :
ভৈরবে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৮ জন কে আইনের আওতায় আনা হয় ও ১৭৫০০ টাকা জরিমানা করা হয় নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ব্রহ্মপুত্র নদে হিন্দু সম্প্রদায়ের অষ্টমী পালন কুয়াকাটায় দেয়াল চাপা পরে ৬ষ্ঠ শ্রেনীর শিক্ষার্থী নিহত গভীর রাতে কর্মহীন অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহিন যশোরে কেটলির গরম পানিতে চা-দোকানির হাত ঝলসে দিল পুলিশ বাদাঘাট শ্রী কৃষ্ণ সেবা সংঘের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সাবেক ডিসি,আরডিসি,দুই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের বিরুদ্ধে মামলা নথিভুক্ত ফুলবাড়ীতে বাজার পরিস্কার করলো রংধণু পাঠাগার ও চাষী ক্লাবের সেচ্ছাসেবীরা ভোলায় সাংবাদিকের উপর হামলা সেই চেয়ারম্যানের ছেলে নাবিল হায়দার গ্রেফতার রাজশাহী মেডিকেলে শুরু হয়েছো করোনা পরীক্ষা’ রিপোর্ট মিলবে ৮ থেকে ১২ ঘণ্টায়

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন

Spread the love

আব্দুল্লাহ আল মামুন,বিশেষ প্রতিনিধি:

গতকাল ১৭ মার্চ ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে মহান সৃষ্টিকর্তার দরবারে দোয়া ও মাগফিরাত কামনা শেষে কেক কেটে প্রিয় নেতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন করেছেন ঢাকা-৭ আসনের সাবেক সাংসদ ও বিএমএ. সভাপতি ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।
সবাই জনতার নেতা নয়, কেউ কেউ জনতার নেতা, টুঙ্গিপাড়ার খোকা মুজিব ধীরে ধীরে সেই কেউ কেউদের অন্যতম এক জনতার নেতায় পরিনত হয়েছিলেন। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ তদানীন্তন ফরিদপুর মহকুমার গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান এবং মাতা সায়েরা খাতুনের ঘর আলোকিত করে জস্মগ্রহন করেন শেখ মুজিবুর রহমান। চার বোন এবং দুই ভাইয়ের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে যখন অর্থনৈতিক মুক্তির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন, তখনই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট একদল বিপথগামী সেনার হাতে প্রাণ হারান বঙ্গবন্ধু।
‘যদি রাত পোহালে শোনা যেত বঙ্গবন্ধু মরে নাই.. .’ এই গানের আকুতির মতোই সত্যিই যদি বঙ্গবন্ধু মারা না যেতেন, তাহলে আজ শতবর্ষী হতেন তিনি। আজ জনতার নেতা মুজিব না থাকলেও তাঁর আদর্শ ও অনুপ্রেরণা আজও বাঙালির মননে গেঁথে আছে, থাকবে চিরদিন। তাই পরম শ্রদ্ধায়, ভালোবাসায় আর কৃতজ্ঞচিত্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করবে বাঙালি।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরান ঢাকার নিজ বাসভবনে প্রিয় সহধর্মীনি ও আদরের মেয়েকে পাশে রেখে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মীদের উপস্থিতিতে এক অনাড়াম্বর ও আনন্দঘন পরিবেশে আনুষ্ঠানিকভাবে কেক কাটেন ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সদস্য আবুল হাসনাত, মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক নেতা শরফুদ্দিন আহমেদ সেন্টু, ২৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোসাদ্দেক হোসেন জাহিদ, চকবাজার থানা আওয়ামীলীগ নেতা ইউনুস সুমন, লালবাগ থানা আওয়ামীলীগ নেতা সেলিম আল মাহমুদ, মোমীন, মোঃ সেলিম এবং আওয়ামী মহিলালীগ নেত্রী ফারজানা ইসলাম প্রমূখসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।
পরে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর কেক পরম মমতায় এক এক করে উপস্থিত নেতা-কর্মীদের মুখে তুলে খাইয়ে দেন শান্ত মেজাজের মানুষ ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৮ মার্চ ২০২০/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ