October 15, 2019, 9:39 am

শিরোনাম :
ছিনতাইকারী চক্রের চার সদস্য আটক বগুড়ার মাটিডালীতে নেশার টাকা না পেয়ে এক ব্যক্তির আত্মহত্যা শিবগঞ্জে পানির ফোয়ারা সহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক সুনামগঞ্জ সীমান্তে ৩ লক্ষ টাকার ভারতীয় প্রকার পণ্য আটক পাইকগাছায় মহিলা লীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে আপত্তিকর জিডি করায় ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদককে গণপিটুনী ফুলবাড়ী থানা পুলিশের অভিযানে ৫ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক-১ ফুলবাড়ীতে বিপুল পরিমাণ নকল জুস ধ্বংস বোয়ালমারীতে নিখোঁজ অটোভ্যান চালক কিশোরের কঙ্কাল উদ্ধার যশোরের শার্শা সীমান্তে ফেনসিডিলসহ আটক-১ মিঠাপুকুরে ফটোসেশনেই সীমাবদ্ধ বাল্যবিবাহ নিরোধ দিবসের কর্মসূচী

বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ করছেন শেখ হাসিনা: শিল্পমন্ত্রী

Spread the love

বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ করছেন শেখ হাসিনা: শিল্পমন্ত্রী

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষকে মুক্ত করতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশে এসেছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘শেখ হাসিনা ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, আজকে সাধারণ মানুষ বাবা-মা মারা গেলে দেশে আসে না। দেশে ধন-সম্পদ থাকলে সেটা বিক্রির জন্য আসে। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা সেটা করেননি। তার (শেখ হাসিনা) স্বামী ছিল, সংসার ছিল। সব কিছু ফেলে দেশে এসে তিনি আত্মত্যাগ করেছেন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা চান জনগণের কল্যাণ করতে। দেশবাসীকে অত্যাচারী শাসকের হাত থেকে রক্ষা করতে। জিম্মিদশা অত্যাচার-নির্যাতন থেকে বাঁচাতে। তাই ১৯৮১ সালে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশে আসেন। শিল্পমন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত কাজ তিনি করে যাচ্ছেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে এটা বলতে দ্বিধা নেই বঙ্গবন্ধুর চেয়ে আরও কঠিন কাজও তার মোকাবেলা করতে হয়েছে। কতবার তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু আল্লাহ তাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। আজকে বাংলাদেশকে তিনি যে মাত্রায় নিয়ে গিয়েছেন, আমি বিশ্বাস করি অনেক জায়গায় তিনি বঙ্গবন্ধুকে পেরিয়ে গেছেন। সভায় এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেন, বঙ্গবন্ধু জন্ম না নিলে বাংলাদেশের জন্ম হত না। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ পাওয়া যেত না। শেখ হাসিনা সঠিক সময় দেশের হাল না ধরলে দেশ পুনরায় পাকিস্তানী আইন-আদালতে চলত। নিপীড়ন নির্যাতন বাড়তই। অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, বঙ্গবন্ধুকে খুন করার পর জিয়া তার দোসরদের নিয়ে দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল। দেশে সাম্প্রদায়িক ও ধর্মীয় রাজনীতি চালু করেছিল। কিন্তু শেখ হাসিনা বিএনপি-জামায়াতের সব ষড়যন্ত্রের বীজ উৎপাটন করেছিলেন। শেখ হাসিনা ৮১ সালে যখন দেশে ফিরলেন তখন দেশ অমানিশার অন্ধকারে ডুবেছিল। জিয়াউর রহমান দেশে তখন সাম্প্রদায়িকতার বিষবাস্প ছড়িয়ে রেখেছিলেন। দেশ তখন অস্থিতিশীল ছিল। সমাজে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান তিনি। সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য অ্যারোমা দত্ত বলেন, শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর মতোই স্বপ্ন দেখাচ্ছেন এবং তা বাস্তবায়নও করছেন। সব দুর্গতি, অসঙ্গতি, দুনীতি, নির্যাতন ও নিপীড়ন নির্মূল করবেন শেখ হাসিনা, এতে কোনো সন্দেহ নেই। দেশবাসী এটাই আশা করছে। সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন। সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন সাবেক সচিব ও সম্প্রীতি বাংলাদেশের যুগ্ম আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ