July 18, 2019, 6:24 pm

ফুলগাজীতে ৭ টি গ্রাম প্লাবিত, পানিবন্দি হজারো মানুষের চরম ভোগান্তি

Spread the love

আবু সাঈদ মামুন,ফুলগাজী ফেনী প্রতিনিধি

গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড় থেকে নেমে আসা উজানের পানির চাপে ফেনী

র ফুলগাজী ও পরশুরামউপজেলায় মুহুরী নদীর আটটি ও কহুয়া নদীর ১টি স্থানে ভাঙন সৃষ্টি হয়েছে। এতে দুই উপজেলার প্রায় ১৫টিগ্রাম প্লাবিত হয়।এর মধ্যে ফুলগাজীতে ৭টি ও পরশুরামে ৮টি গ্রাম রয়েছে। এসব গ্রামে গ্রামীণ সড়ক, মাছেরঘের, ফসলি জমি তলিয়ে গেছে এবং বসতবাড়িতে পানি উঠেছে। গত ১০ জুলাই বুধবার বিকেলে বন্যায়ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে ফুলগাজী উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াওউপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভাঙ্গন কবলিত এলাকাগুলো তদারকি করতে কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে।

ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন , গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুহুরীনদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হতে শুরু করে। এতে উপজেলার মুহুরী নদীর বেড়ি বাধেরউত্তর শ্রীপুর, উত্তর দৌলতপুর, কিসমত ঘনিয়ামোড়া ও জয়পুর এলাকায় ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়। ফুলগাজীউপজেলার সাতটি গ্রাম প্লাবিত হয়। গ্রামগুলো হলো উত্তর শ্রীপুর, দক্ষিণ শ্রীপুর, নীলক্ষী, পশ্চিম ঘনিয়ামোড়া,কিসমত ঘনিয়া মোড়া, জয়পুর ও উত্তর দৌলতপুর।

উজানের পানিতে গ্রামীন সড়ক তলিয়ে গেছে এবং ভেসে গেছে পুকুরের মাছসহ আমনের বীজ তলা ও ফসলিজমি।

এদিকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২৫ পরিবারের মাঝে গতকাল বুধবার বিকেলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রান সামগ্রীবিতরণ করা হয়। এছাড়াও ভাঙনের স্থানসমূহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা ওউপজেলা প্রশাসনের লোকজন পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থ লোকজনকে শান্তনা প্রদান করেন।

এদিকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২৫ পরিবারের মাঝে গতকাল বুধবার বিকেলে ফুলগাজী উপজেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে ফুলগাজী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল আলিম, নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম ও প্রকল্পকর্মকর্তা (পিআইও) মো. মেশকাতুর রহমান ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন এবং ভাঙ্গনের স্থান পরিদর্শনকরেন।

ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, বর্তমানে বন্যার সার্বিক অবস্থাউন্নতির দিকে রয়েছে এবং বন্যাকবলিত এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ত্রাণসামগ্রী মজুদরয়েছে।

ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান জানান, পরশুরাম-ফুলগাজী উপজেলার বন্যায় বেশি ক্ষতিগ্রস্থএলাকাসমূহে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।এছাড়াও তাদের এই সমস্যার স্থায়ীসমাধানে টেকসই বাঁধ নির্মাণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১১জুলাই ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ