April 6, 2020, 5:20 pm

শিরোনাম :

ফিঞ্চের দাপুটে সেঞ্চুরিতে ম্লান হারিসের প্রথম

Spread the love

ফিঞ্চের দাপুটে সেঞ্চুরিতে ম্লান হারিসের প্রথম

ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক

 

ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে দলকে লড়াই করার মতো সংগ্রহ এনে দিলেন হারিস সোহেল। এসেই শট খেলা সহজ নয় এমন উইকেটে রান তাড়ায় দলকে পথ দেখালেন অ্যারন ফিঞ্চ। অধিনায়কের দাপুটে সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় দিয়ে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করল অস্ট্রেলিয়া।

প্রথম ওয়ানডেতে ৮ উইকেটে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ২৮১ রানের লক্ষ্য ৬ বল বাকি থাকতে ছুঁয়ে ফেলে তারা।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুক্রবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি পাকিস্তানের। ন্যাথান লায়নকে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে শুরুতেই ফিরে যান ইমাম-উল-হক। অভিষিক্ত ওপেনার শান মাসুদ ফিরে যান থিতু হয়ে।

অনেক দিন পর দেশের হয়ে খেলতে নামা উমর আকমলের সঙ্গে ৯৮ রানের জুটিতে দলকে টানেন হারিস। তিন ছক্কায় ৫০ বলে ৪৮ রান করা আকমলকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন ন্যাথান কোল্টার-নাইল।

দ্রুত রান তোলার চেষ্টায় থাকা শোয়েব মালিক ফিরে যান দ্রুত। বেশিদূর যেতে পারেননি অলরাউন্ডার ফাহিম আশরাফ। শেষের দিকে ঝড় তোলেন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হারিস। ক্রিজে গিয়েই বোলারদের ওপর চড়াও হন ইমাদ ওয়াসিম। তাদের শেষের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ২৮০ পর্যন্ত যায় পাকিস্তান।

১১৫ বলে ছয় চার ও এক ছক্কায় ১০১ রানে অপরাজিত থাকেন হারিস। ওয়াসিম ১৩ বলে করেন অপরাজিত ২৮ রান।

চ্যালেঞ্জিং রান তাড়ায় শুরুতেই ভাঙতে পারতো অস্ট্রেলিয়ার উদ্বোধনী জুটি। অভিষেকে নিজের প্রথম ওভারে উইকেট পেতে পারতেন মোহাম্মদ আব্বাস। বল ওসমান খাওয়াজার ব্যাটের কানা ছুঁয়ে কিপারের গ্লাভসে জমা পড়লেও ক্যাচের আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। রিভিউও নেয়নি পাকিস্তান, নিলে ১ রানে ফিরে যেতেন খাওয়াজা।

ছন্দে থাকা এই ব্যাটসম্যান অবশ্য খুব বেশি দূর যেতে পারেননি। তিন চারে ৩০ রান করা বাঁহাতি এই ওপেনারকে ফিরিয়ে ৬৩ রানের শুরুর জুটি ভাঙেন আশরাফ।

শন মার্শের সঙ্গে ১৭২ রানের জুটিতে দলকে জয়ের পথে এগিয়ে নেন ফিঞ্চ। নিজের জোনে বল পেলেই বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে তুলে নেন দ্বাদশ সেঞ্চুরি। ১৩৫ বলে আট চার ও চার ছক্কায় ১১৬ রান করা ডানহাতি এই ওপেনারকে ফিরিয়ে নিজের প্রথম ওয়ানডে উইকেট নেন আব্বাস।

পিটার হ্যান্ডসকমকে নিয়ে বাকিটা সহজেই সারেন মার্শ। ৯১ রানে অপরাজিত থেকে যান এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। তার ১০২ বলের ইনিংস সাজানো চারটি চার ও দুটি ছক্কায়। দুটি চরে ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন হ্যান্ডসকম।

১১৬ রানের অধিনায়কোচিত ইনিংসের জন্য ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ফিঞ্চ।

আগামী রোববার একই ভেন্যুতে হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ২৮০/৫ (ইমাম ১৭, মাসুদ ৪০, হারিস ১০১*, আকমল ৪৮, মালিক ১১, আশরাফ ২৮, ওয়াসিম ২৮*; রিচার্ডসন ১/৬৪, কোল্টার-নাইল ২/৬১, লায়ন ১/৩৮, ম্যাক্সওয়েল ১/৫৭, জ্যাম্পা ০/৪৪, স্টয়নিস ০/১৪)

অস্ট্রেলিয়া: ৪৯ ওভারে ২৮১/২ (খাওয়াজা ২৪, ফিঞ্চ ১১৬, মার্শ ৯১*, হ্যান্ডসকম ৩০*; আমির ০/৫৯, আব্বাস ১/৪৪, ওয়াসিম ০/৫০, আশরাফ ১/৫০, ইয়াসির ০/৫৬, মালিক ০/১০)

ফল: অস্ট্রেলিয়া ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: অ্যারন ফিঞ্চ

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ