August 21, 2019, 11:04 pm

শিরোনাম :
মানুষের কল্যাণে কাজ করতে গিয়ে বারবার মৃত্যুর সম্মুখীন হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না: তথ্যমন্ত্রী জন্মাষ্টমী ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা পরিকল্পনা ডিএমপি’র একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা উচ্চ আদালতে তারেকের সর্বোচ্চ সাজার আবেদন করা হবে: ওবায়দুল কাদের চট্টগ্রামে কাভার্ড ভ্যান থেকে ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৩ গ্রেনেড হামলা মামলার আপিল শুনানি ২-৪ মাসের মধ্যে: আইনমন্ত্রী গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের বিচারে উদ্যোগ নেবে সরকার: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী গ্রেনেড হামলার সুষ্ঠু তদন্ত হয়নি, জোর করে তারেকের নাম বলানো হয়েছে: রিজভী ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা কমলেও আতঙ্ক কমছে না

প্রযুক্তিই কৃষির সম্মৃদ্ধি-কৃষি মন্ত্রী ড.মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি

Spread the love

মোহাম্মদ ইকবাল হাসান সরকারঃ

চলমান কৃষি শ্রমিক সংকট মোকাবেলা করে উৎপাদন দিগুন করে কৃষি বিপ্লবকে বেগবান করতে যন্ত্রপাতির ব্যবহার বাড়াতে হবে। শস্য সংগ্রহোত্তর পর্যায়ে এর বড় একটি অংশ নষ্ট হয়ে যায়, উৎপাদিত শস্য প্রক্রিয়াজাতের জন্য কৃষি প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি এটাও দেখতে হবে নতুন উদ্ভাবিত জাত ও প্রযুক্তি কৃষক পর্যায় কিভাবে গ্রহণ করছে।আজ ১০ ফেব্রুয়ারি  (রোববার) কৃষি মন্ত্রী ড.মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এর ২ দিন ব্যাপি ‘বারি প্রযুক্তি প্রদর্শনী ২০১৯’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। দিনের শুরুতে মন্ত্রী ড.মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি বারি’র ক্যাম্পসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।কৃষি মন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক বলেন, কৃষি অর্থনীতিবিদদের গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা রয়েছে, উদ্ভাবিত জাতের অর্থনৈতিক গুরুত্ব এবং উপযোগিতা নিরুপন করা। কৃষক উৎপাদিত পণ্যের  বাজার জাত ও মূল্য সংযোজন কিভাবে করা যায় তা উদঘাটন করা।সমন্বিত কর্মসুচী নিতে হবে আামাদের নিজস্ব চাহিদা ও রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারনের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কৃষিজাত পণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণ ও মূল্য সংযোজনের মাধ্যমে রপ্তানির সুযোগ ও সম্ভাবনা কাজে লাগাতে হবে। প্রক্রিয়াজাতকরণে দেশের ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা এবং বিদেশী বিনিয়োগকারীগণদের  কৃষি প্রক্রিয়াজাত শিল্পে বিনিয়োগে উদ্ভুদ্ধ করতে হবে।কৃষি দেশের বৃহত্তর গ্রামীন জনগোষ্ঠীর প্রধান পেশা ও কর্মসংস্থান। এই শিল্পে সঞ্চালন ও প্রেষনাই কৃষি অর্থনীতিতে ব্যাপক বিস্ফোরণ সৃস্টি করতে এবং গ্রমীন জনগণের জীবন মানের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে। খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিজ্ঞান, গবেষণা ও বিনিয়োগয়কে সমন্বয় করতে হবে। সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহারের দ্বারা উদ্ভাবনী কৃষি খাদ্য উৎপাদন ও বিতরণের মাধ্যমে জাতীয় খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা বৃদ্ধি করতে হবে।কৃষি মন্ত্রী ড.মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি  বলেন, এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে কৃষি খাদ্য ব্যবস্হাপনা গবেষণা ও বিনিয়োগে জোর দিতে হবে। দেশের কৃষি উৎপাদন আরো বেগবান করার লক্ষে উদ্ভাবিত প্রযুক্তিসমূহের যথাযথ প্রয়োগ ও লাগসই প্রযুক্তিসমূহ শনাক্ত করে কৃষক এবং কৃষি সংশ্লিষ্টদের কাছে দ্রুত পৌঁছে দিতে হবে। এমতাবস্থায়, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত প্রযুক্তির গুরুত্ব অপরিসীম।বারি’র মহাপরিচালক ড.আবুল কালাম আযাদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান মাননীয় সংসদ সদস্য, মো. নাসিরুজ্জামন, সচিব কৃষি মন্ত্রণালয়।আরও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ড. কাজী এম বদরুদ্দোজা, প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক (অব.) বিএআরআই ও এমেরিটাস সায়েন্টিস্ট,এনএআরএ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন জনসংযোগ কর্মকর্তা।

 

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ