October 24, 2020, 5:15 pm

শিরোনাম :
সরিষাবাড়ীতে পিডিবি‘র একটি খুটির মূল্য ৪ হাজার টাকা ঝড়ো আবহাওয়ায় কুয়াকাটা সৈকতে পর্যটকদের ভীড় যাত্রাবাড়ী ও চকবাজার থানা এলাকা থেকে ইয়াবা ও ফেসিডিলসহ আটক ০২ মধ্যনগরে মসজিদ নির্মাণের টাকা আত্নসাদের অভিযোগ র‌্যাব-৫ এর পৃথক দুটি অভিযানে অবৈধ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার’ দুই মাদক ব্যাবসায়ী অটক ভারতে পাচার ৩ যুবক-যুবতীকে বেনাপোলে হস্তান্তর র‌্যাব-১০ পৃথক পৃথক অভিযানে ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকা থেকে ইয়াবা ও বিয়ারসহ আটক ০৩ আদমদীঘিতে ১২০বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার রংপুরে পুলিশ কর্মকর্তার বাসায় চুরি ও এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা খোয়া পল্লীতে সুলেমান বাহিনীর হামলায় দফায় দফায় একের পর এক ক্ষতবিক্ষত!আতঙ্কিত এলাকাবাসী ! হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত উত্তম কুমার দাসের বদলি বন্ধ হলো যশোরের নাভারণ আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরী জামালপুরের সরিষাবাড়িতে র‍্যাব-১৪ এর অভিযানে ৩৫০ বস্তা খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল উদ্ধার জগন্নাথপুরে অপহরণের ১০ দিন পর প্রেমিক জুটি আটক জৈন্তাপুরে ভাতিজার দা’য়ের কোপে আহত চাচা সারিয়াকান্দিতে মেয়াদ উত্তীর্ণ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য রাখার দায়ে-জেলা ভোক্তা অধিকারের জরিমানা সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচিতেসড়ক দূর্ঘটনায় ১ জন আহত পাহাড় কাটতে গিয়ে দুই শ্রমিক নিহত এনু ও রুপনের জামিন আবেদন খারিজ নবীগঞ্জে বিভিন্ন মামলায় পরোয়ানাভুক্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

প্রতারনার অভিযোগে যশোরে বিজিবির হাবিলদারের বিরুদ্ধে মামলা

Spread the love
ইয়ানূর রহমানঃঃ
যশোরের বাঘারপাড়ার হাবুল্লাহ গ্রামের নাজমুল হক মুন্না এক
বিজিবি সদস্যের কাছ থেকে মোটরসাইকেল কিনে বিপাকে পড়েছেন। দীর্ঘদিন হলেও
তিনি মোটরসাইকেলের কাগজপত্র বুঝে পাননি।

অবশেষে মোটরসাইকেল কেনাবেচার মধ্যস্থ্যকারী বহরামপুরের মাসুদ হোসেন
প্রতারনার অভিযোগে রোববার ১১ অক্টোবর বিজিবির হাবিলদার ফারুক হোসেনকে
আসামি করে আদালতে মামলা করেছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক
মামুনুর রহমান অভিযোগটি গ্রহন করে পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা
দেয়ার আদেশ দিয়েছেন। আসামি বিজিবি সদস্য ফারুক হোসেন বাঘারপাড়ার আদমপুর
গ্রামের মৃত ওমর মোল্লার ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, মামলার বাদী মাসুদ হোসেন ও আসামি পরস্পর
আত্মীয়। আসামি ফারুক হোসেন একটি ১০০ সিসি ডিসকভার মোটরসাইকেল ( যার
নম্বর- যশোর-হ-১৩-১৫০৮) বিক্রি করবেন বলে মাসুদ হোসেনকে জানান। মাসুদ
হোসেন তার পূর্ব পরিচিত আব্দুল আলীমের মাধ্যমে নাজমুল হক মুন্নুর কাছে
মোটরসাইকেলটি বিক্রির প্রস্তাব করেন আসামি ফারুক হোসেনের কাছে।

২০১৪ সালের ১০ অক্টোবর মোটরসাইকেটি দেখে পছন্দ হওয়ায় মুন্নুা ১ লাখ ২০
হাজার টাকায় কিনে নেন। এ সময় আসামি ফারুক হোসেন মোটরসাইকেলের মালিকানা
পরিবর্তনের কথা বলে কাজগপত্র রেখে দেন। এরপর মধ্যস্থকারীর মাধ্যমের তিনি
ফারুক হোসেনর সাথে যোগাযোগ করলেও তিনি কাগপত্র দেননি। মুন্না
মোটরসাইকেলের কাগজপত্র না পেয়ে মধ্যস্থকারী মাসুদ হোসেনকে আসামি করে
আদালতে সিআর মামলা করেন।

মামলার প্রতিবেদনে মোটরসাইকেলে মালিক ফারুক হোসেন কোন কাগজপত্র দেননি বলে
প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। সেহেতু ফারুক হোসেন মোটরসাইকেল বিক্রি করে
কাগজপত্র না দিয়ে প্রতারনা করায় তিনি এ মামলা করেছেন।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ