September 18, 2019, 3:25 am

প্রতিকি ছবি

পেকুয়ায় জমিতে প্রবেশ না করতে সতর্ক করল প্রশাসন

Spread the love

এম.জাফর আলম দিদার,কক্সবাজার বিশেষ প্রতিনিধি:

প্রতিকি ছবি

পেকুয়ায় সদর ইউনিয়েন উত্তর মেহের- নামালীজপাড়াগ্রামে মেহেরনামা মৌজারবিরোধপূর্ণ আর,এস ৫৩৪ নংখতিয়ানের১০১ একর সেইজমিতেজবর দখলনাকরতেসতর্ক করলপ্রশাসন। রেকর্ড সংক্রান্তবিষয়েআদালতেমামলাবিচারাধীন। স্থিতিবস্থা বিরাজসহ ওই জমিতেশান্তি-শৃংখলাবিনষ্ট ও রক্তপাত এড়াতেপ্রশাসনসর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থা জোরদারকরেছে। বিরোধীয়বিষয়টিনিস্পত্তিকরতে পেকুয়ায়উপজেলানির্বাহীকর্মকর্তারকার্যালয়ে বৈঠকহয়েছে। বৈঠকেজমির স্থিতিবস্থা ও দালিলিককাগজপত্র উপস্থাপনকরাহয়। এ সময়কাগজপত্রপর্যালোচনা ও এ সম্পর্কিত তথ্যাদি যাচাইবাছাইকরাহয়। বৈঠকেইউএনও নেতৃত্বে সালিশিপ্রতিনিধিরাদ্বিপাক্ষিকসিদ্ধান্তেউপনীতহয়েছেন। এ সময়বিরোধীয় দু’পক্ষেরমধ্যে চৈরভাঙ্গা গ্রামেরমৃতছিদ্দিকআহমদের ছেলেজহিরআহমদ গংদের অনুকূলে সিদ্ধান্তযায়। দ্বিতীয়পক্ষ এই এলাকার আমিরুজ্জামানের ছেলেশাহআলমপ্রকাশমুইচ্ছাশাহআলমগংদের ওই জমিতেঅনুপ্রবেশনাকরতেপ্রশাসনসহসালিশিপ্রতিনিধিরানিদের্শা দেয়। ২৭ আগষ্ট (মঙ্গলবার) সকাল ১০ টারদিকে পেকুয়ায়উপজেলানির্বাহীকর্মকর্তারকার্যালয়েলীজপাড়ারজমিনিয়েরুদ্ধদার বৈঠকঅনুষ্টিতহয়েছে। ইউএনওমাহাবুবউলকরিমেরমধ্যস্থতায় ওই বৈঠকেশাহআলমগং ও জহিরআহমদ গংদের পক্ষেসালিশিপ্রতিনিধিরাউপস্থিত ছিলেন। প্রাপ্তসূত্রজানায়, সদরইউনিয়নেরলীজপাড়াগ্রামে ১০১ একরজমিনিয়েবিগত ৩০/৪০ বছরআগেপর্যন্তবিরোধচলছিল। তথ্য সূত্রে জানায় ওই জমির রেকর্ডীয়মালিকআ’লীগ নেতাজহিরআহমদ গংদের সিএস ও আরএস রেকর্ড ওই পক্ষেরপূর্বপুরুষ ও অলীওয়ারিশদের নামেপ্রচারহয়েছে। বিএস রেকর্ড ওই পক্ষেরহাতছানিহয়। বি,এস রেকর্ড নিয়েশাহআলমগং ওই জমির স্বত্ব দাবী করছে। অপরদিকে ইউনিয়নআ’লীগসহসভাপতিজহিরআহমদ গংবিএস রেকর্ডের বৈধতাচ্যালেঞ্জকরে জজ আদালতকক্সবাজার ও আদেশনিয়েউভয়পক্ষরিভিশনমামলাওরুজুকরে। মামলাটি উচ্চ আদালতেবিচারাধীন। জহিরআহমদ গং ২০/৩০ বছরধরে ওই জমি ভোগকরে। ১৯৯৭ সালেবিএনপির দুর্ধষ নেতাশাহআলমগং ও জহিরআহমদ গংদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। সে সময়প্রতিপক্ষেরছুড়া গুলিতেবর্তমান ৭নং ওয়ার্ড আ’লীগেরসাধারণসম্পাদককাইছারউদ্দিনেরপিতা মোস্তাকআহমদ নিহতহন। সে সময়হত্যামামলা রেকর্ড হয়। ২০০১ সালেবিএনপি ও জোটসরকারক্ষমতায়অধিষ্টিতহয়। সেসময় ফের ছন্দ ফিরেপায়বিএনপির নেতাশাহআলম। ভাড়াটে অস্ত্রধারী ও সন্ত্রাসীজড়োকরেপ্রশাসনসহলীজপাড়ায়যায়। এ সময়আ’লীগসমর্থিত লোকজনেরবাড়িঘরভাংচুরসহলুটপাঠচালায়। অনেক কৃষকেরবসতবাড়িতেআগুনধরিয়ে দেয়। হামলা, মামলা, ভীতি ও আতংকছড়িয়ে সে সময়শাহআলমগংকিছুজমি দখলে নেয়। আ’লীগসরকারেরসময়জহিরআহমদ গং ওই জমিপুন:রায়উদ্ধারকরে। সে সময় থেকে ১০১ একরজমিজহিরআহমদ গং ভোগকরছিলেন। সম্প্রতিশাহআলমগং পেকুয়া থানায়একটিঅভিযোগ প্রেরণকরে। এরসূত্রধরেপুলিশলীজপাড়ায়গিয়েপাওয়ারটিলার, কৃষকদের আরওকিছুসামগ্রীজব্দকরে। ওই দিনইউএনওকার্যালয়ে এ সংক্রান্তবিষয়েনিষ্পত্তি বৈঠকহয়। বৈঠকেজহিরআহমদ গংদের পক্ষেসিদ্ধান্তেউপনীতহয়।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ