June 23, 2019, 9:03 am

শিরোনাম :
ইসলামপুরে মটর সাইকেল প্রতিযোগিতায় নিহত ১ গ্রাম আদালতে শতাধিক মামলা নিস্পত্তিতে সন্মাননা পেল ইসলামপুরে দুই ইউনিয়ন পরিষদ বিরামপুরে বি,এন,পি’র ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন পাইকগাছায় সর্বহারা ১৬টি দলিত পরিবারকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা : প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ পাইকগাছায় বজ্রপাতে দু’ঘের কর্মচারী নিহত : আহত ১ শিবগঞ্জে বাড়ির মূল গেট বন্ধ করে আগুন লেগে দেওয়ায় অল্পের জন্য বেচে গেল স্বামী স্ত্রী মানুষের কর্মফলে জলবায়ু ও পরিবেশের বিপর্যয় ঘটছে জগন্নাথপুরে ইউনিয়ন তালামীযের কাউন্সিল সম্পন্ন জগন্নাথপুরে পুষ্টি বিষয়ে কর্মশালা জগন্নাথপুরে ২৮ হাজার শিশুকে খাওয়ানো হয় ভিটামিন এ ক্যাপসুল

পীরগঞ্জে চতরা ভূমি অফিসের উদ্দেগ্যে ভূমি সেবা ক্যাম্প বণার্ঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা

Spread the love

রুবেল ইসলাম,রংপুর অফিসঃ

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার চত্তরা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উদ্দেগ্যে ভূমি সেবা সপ্তাহ পালিত হয়। “রাখব নিস্কন্টক জমি-বাড়ি,করব সবাই ই-নামজারি”-এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ভূমি সেবা সপ্তাহ ও ভূমি উন্নয়ন কর মেলা-২০১৯ উপলক্ষে ভূমি সেবা ক্যাম্প এর আয়োজন করা হয়।সোমবার দুপুরে র‌্যালী শেষে চতরার ভূমি অফিসের সামনে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।আলোচনা সভার শুরুতে সেবা সপ্তাহের বর্ণাঢ্য র‌্যালী ইউনিয়নের চতরা বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ভূমি অফিসে এসে শেষ হয়। র‌্যালীতে এতে উপস্থিত ছিলেন-উপজেলা সহকারি ভূমি কমিশনার সঞ্জয় কুমার মহন্ত,ইউনিয়ন ভূমি সহকারী ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রবিউল সিদ্দিকী, ১৪ নং চতরা ইউপি চেয়ারম্যান এনামূল হক শাহীন,১৫ নং কাবিলপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রবিউল ইসলাম।পরে ভূমি সপ্তাহে ভূমি সেবার ওপর আলোচনা করা।আলোচনায় সভায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ মোজাহার আলী সভাপতিত্ব করেন।আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে কাবিলপুর ইউপি সদস্য হারুন অর রশিদ স্বপন ইউনিয়নের খাস জমি সম্পর্কে আলোচনা করেন।এছাড়া ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা রবিউল সিদ্দিকী জানান- কাবিলপুর ও চতরা ইউনিয়নের শ্যামাদাস রায় চৌধুরীর ৮০ একর , সৌরাঙ্গ মোহন গুহ রায় এর প্রায় ৮০ একর,দেবত্তর রায় এর ১৭ একর খাস জমির কথা উল্লেখ করেন।এছাড়া চতরা হাটে প্রায় ১০ একর খাস জমির কথা,তিনি আরোও মুসলমানদের ওপফ করা প্রায় ৫০ একর জমির কথা বলেন।তিনি বলেন-এইসব জমি সহ জেড়াছড়ি ও সন্যাসির দহ বিলের জমি প্রভাবশালীরা দখল করে আসছে যদি এইসব জমি দখলমুক্ত করা হয় তাহলে সরকার এখান থেকে ব্যাপক রাজস্ব আয় করতে পারবে।উপজেলা সহকারি ভূমি কমিশনার সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন- আগামীতে আইনের মাধ্যমে সকল খাস জমি উদ্ধার করে জনগনের সেবা নিশ্চিত করা হবে।এছাড়া তিনি ৬২,৮৪,৯২ সালের রেকর্ড সর্ম্পকে অবগত করেন।পাশাপাশি জনগনের সকল সমস্যা সমাধান এবং জটিল সমস্যা সমাধান করার জন্য ভূমি অফিসে আসার জন্য অনুরোধ করেন।এসময় তিনি সাধারণ জনগনের সকল প্রশ্নের উত্তর দেন।একই সাথে খাজনা,রেকর্ড সংরক্ষণ ও সংশোধন,সরকারী সম্পতি নজরদারী করার কথা উল্লেখ করেন।পাশাপাশি তিনি হাট-বাজারে বৈধ ব্যবসায়ীদের কাগজপত্র সহ নবায়ন করার জন্য অনুুরোধ করেন।সর্ব প্রকার জলামহল তদারকি করার তাদিগ করেন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/ ১৫ এপ্রিল ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ