July 15, 2019, 9:56 pm

পাঠ্যসূচিতে ভোক্তা অধিকার অন্তর্ভুক্ত হলে সচেতনতা বাড়বে: বাণিজ্যমন্ত্রী

Spread the love

পাঠ্যসূচিতে ভোক্তা অধিকার অন্তর্ভুক্ত হলে সচেতনতা বাড়বে: বাণিজ্যমন্ত্রী

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ভোক্তা অধিকারের বিষয়টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাঠ্যসূচির অন্তর্ভুক্ত করা হলে সচেতনতা বাড়বে। এতে জাতি উপকৃত হবে। শিক্ষার্থীরা ছাত্রজীবন থেকেই ভোক্তা অধিকার সম্পর্কে জানতে পারবে। বাস্তব জীবনে এসে তা কাজে লাগানোর সুযোগ পাবে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় প্রচেষ্টা চালানো হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার ‘ভোক্তা অধিকার শক্তিশালীকরণ’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনের বিজয় হলে কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) জেলা প্রতিনিধিদের সম্মেলন ও সেমিনারটির আয়োজন করে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার ভোক্তা অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে গুরুত্ব সহকারে কাজ করে যাচ্ছে। সরকার উতোমধ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর এবং নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠা করেছে। দেশব্যাপী এখন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বাজারে অভিযান পরিচালনা করে অপরাধীদের জেল-জরিমানা করা হচ্ছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভোক্তারা এ বিষয়ে সচেতন হলে বেশি ফল পাওয়া যাবে। ভোক্তাদের সচেতন করতে প্রচারণা চালানো হচ্ছে, এতে ভালো ফল পাওয়া যাচ্ছে। ভোক্তাদের সংগঠন কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) এজন্য দেশব্যাপী কাজ করছে। ক্যাবের কার্যক্রম আরও জোরদার করা প্রয়োজন বলেও মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী। টিপু মুনশি বলেন, মানুষ যাতে প্রতারিত না হন, সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। নিজের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে। ব্যবসায়ী ও ভোক্তা উভয়ে যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হন, সেজন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। দেশের মানুষের আয় বৃদ্ধি পেয়েছে, মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। ক্রেতা যাতে প্রতারিত না হয়, সেজন্য নিজ নিজ অবস্থান থেকে এ বিষয়ে অবদান রাখতে হবে। ক্যাব সভাপতি সাবেক সচিব গোলাম রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আহম্মদ একরামূল্লাহ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মফিজুল ইসলাম, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক শফিকুল ইসলাম লস্কর এবং নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক। এর আগে বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ সচিবালয়ে তার কার্যালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত লিথুয়ানিয়ার রাষ্ট্রদূত জুলিয়াস প্রানেভিসিয়াস এবং ঢাকায় নিযুক্ত আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রদূত ডানিয়েল চুবুরুএর সঙ্গে বৈঠক করেন। এ সময় উভয় দেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির বিভিন্ন বাধা দূর করার কার্যকর পদক্ষেপ নিতে একমত পোষণ করেন। আগামি দিনগুলোতে বাংলাদেশের সঙ্গে দেশ দুটির বাণিজ্য বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করা হয়।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ