November 14, 2019, 4:32 pm

শিরোনাম :
র‌্যাব-৫ এর অভিযানে ১৫৪ কেজি গাঁজা ও কাভার্ট ভ্যানসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার বেনাপোল পোর্ট থানার এএসআই শাহীনের অভিযান ২ কেজি গাঁজা সহ আটক-১ হাজী ছিদ্দেক মিয়া আদর্শ কে,জি স্কুলে ২০১৯ইং সমাপনী পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধণা প্রদান শার্শায় সিজারের সময় শিশুর মাথা কেটে মৃত্যুর অভিযোগ উত্তরবঙ্গে রেল-সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন,স্টেশন মাস্টারের ভুলে ৮ বগি লাইনচ্যুত সচিবালয়ে ঝাড়ুদার লেংড়া বাবুর ক্যাসিনো কারবার ফ্রিডম মিলনের ভাই ক্যাসিনো তুহিন ধরা ছোয়ার বাহিরে তরুন ক্যাটাকরিতে সুনামগঞ্জের শ্রেষ্ট করদাতা নির্বাচিত তাহিরপুরের জুয়েল আমিন বিএফএ লক্ষ্মীপুর জেলা ইউনিটের বার্ষিক সাধারন সভা ও কমিটি গঠন-২০১৯ অনুষ্ঠিত লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি বরাদ্ধ লুটপাটের অভিযোগ
পঞ্চগড়ে মারধরের শিকার শিক্ষা কর্মকর্তা আমিনুল (বাঁয়ে)। মারধর করা গাড়ি চালক ইমতিয়াজ আলী বাবলা (ডানে)। ছবি : সংগৃহীত

পঞ্চগড়ে এক শিক্ষা কর্মকর্তাকে পেটালেন গাড়িচালক

Spread the love

পঞ্চগড়  জেলা প্রতিনিধিঃ

পঞ্চগড়ে মারধরের শিকার শিক্ষা কর্মকর্তা আমিনুল (বাঁয়ে)। মারধর করা গাড়ি চালক ইমতিয়াজ আলী বাবলা (ডানে)। ছবি : সংগৃহীত

পঞ্চগড়ে একটি প্রশিক্ষণ কর্মশালার খাবার কেনার সুযোগ না দেওয়ায় এক কর্মকর্তাকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে জেলা শিক্ষা অফিসের গাড়িচালকের বিরুদ্ধে। গত ১২ অক্টোবর ২০১৯ ইং তারিখ  শনিবার দুপুরে জেলা শহরের বিপি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করেন জেলা প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী আমিনুল ইসলাম।এর পর ওই কর্মশালায় প্রশিক্ষণরত শিক্ষকরা গাড়িচালক ইমতিয়াজ আলী বাবলাকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেন এবং আহত আমিনুলকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। পঞ্চগড় জেলা শিক্ষা অফিসের আওতাধীন সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রামের (সেসিপ) জেলা প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী।আমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, প্রতিবছর শিক্ষা অফিসের বিভিন্ন কার্যক্রমে প্রভাব বিস্তার করেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হিমাংশু কুমার রায় সিংহের গাড়িচালক বাবলা। খাবার সরবরাহসহ বিভিন্ন কাজে জড়িত থেকে তিনি অর্থ আত্মসাৎ করতেন। এবারও ২০০ জনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকলেও তিনি আমাকে ১৮০ জনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে বলেন। আমি তার কথা শুনিনি। সব মিলিয়ে তিনি আমার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে হামলা করেন।আমিনুল আরও বলেন, দুপুরে গাড়িচালক বাবলা আমাকে বিদ্যালয় মাঠে ডেকে নিয়ে তাকে খাবার কেনার দায়িত্ব না দেওয়ার কারণ জানতে চান। এর পর দু-এক কথায় তিনি আমার ওপর চড়াও হন। তিনি আমাকে গালাগাল করেন এবং লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করেন। ছিঁড়ে ফেলেন আমার টি-শার্ট।প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী শিক্ষক কামাল হোসেন, রাশেদুল ইসলাম, রায়হান হোসেন, শাহ আলম, সোহেল রানা, ইব্রাহীম খলিল এবং জেলা শিক্ষা অফিসের প্রধান সহকারী আজিমুল গাড়িচালক বাবলাকে জেলা প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী আমিনুল ইসলামকে মারপিট করতে দেখেছেন বলে জানিয়েছেন।জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হিমাংশু কুমার রায় সিংহ জানান, আমার সামনেই ঘটনাটি ঘটেছে। বাবলা আমার কথাও শোনেনি। ঘটনার পর বিষয়টি আমি জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও মাধ্যমিক শিক্ষা ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের উপপরিচালককে অবহিত করেছি।মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর রংপুর অঞ্চলের উপপরিচালক মো. আকতারুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।তবে গাড়িচালক ইমতিয়াজ আলী বাবলা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি ওই কর্মকর্তাকে বলেছি আপনি একাই সব করছেন। খাবার কেনার কমিটি আছে তাদের অন্তত জানান। এ কথা বলার পরই তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে আমার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করেন। এক পর্যায়ে তিনি আমাকে মারতে শুরু করেন। আমি ওই কর্মকর্তাকে মারিনি, বরং তিনিই আমাকে মারধর করে আমার মাথা ফাটিয়েছেন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/১৩ অক্টোবর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ