July 22, 2019, 3:12 am

পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে পরিবারের সবাইকে ঘুমের ঔষুধ খাইয়ে চুরি

Spread the love

দিনেশ চন্দ্র বর্মন, আটোয়ারী (পঞ্চগড়)প্রতিনিধিঃ

পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে নলকূপের পানির সঙ্গে ঘুমের  ঔষুধ মিশিয়ে এক পরিবারের সবাইকে অচেতন করে চুরির ঘটনা ঘটেছে।গত২/৭/১৯ মঙ্গলবার রাতে অাটোয়ারি উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের নিতুপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বুধবার সকালে ওই পরিবারের পাঁচ সদস্যকে অচেতন অবস্থায় আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঠাকুরগাঁওয়ের রহিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও আটোয়ারী উপজেলা তোড়িয়া ইউনিয়নের নিতুপাড়া এলাকার একেএম সোহেল রানার পরিবারের সদস্যরা মঙ্গলবার রাতে খাবার পর ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে অনেক বেলা পর্যন্ত তারা ঘুমাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে প্রতিবেশীরা বুঝতে পারেন বাড়ির সবাই ঘুমের ঘোরে অচেতন অবস্থায় রয়েছেন। এই অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের ডেকে তোলেন। পরে অচেতন অবস্থায় স্কুলশিক্ষক একেএম সোহেল রানা (৩২), স্ত্রী নাজমা আক্তার (২৩), মেয়ে সামিয়া আক্তার (২), বাবা খলিলুর রহমান (৭০) ও মা খাইরুন নাহারকে (৬৫) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে খাইরুন নাহারের অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।সোহেল রানার চাচা আব্দুল আলিম বলেন, সকালে আমরা সোহেলের বাড়িতে গিয়ে দেখি সবাই অঘোরে ঘুমাচ্ছে। ঘুমের জন্য কেও উঠতেও পারছে না। শিশুসহ সবারই একই অবস্থা। পরে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করি এবং পুলিশকে জানাই। রাতে স্বর্ণালংকারসহ নগদ এক লাখ টাকা খোয়া গেছে।আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. হুমায়ুন কবির বলেন, হাসপাতালে ভর্তি পাঁচজনের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত। একজন নারীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।আটোয়ারী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, স্থানীয় একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্র ঘুমের  ঔষুধ খাইয়ে এভাবে চুরি করে আসছে। আমরা এই চোর চক্রকে শনাক্ত করেছি। এর আগেও কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/৫জুলাই ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ