July 16, 2019, 9:09 pm

শিরোনাম :
অনলাইন পত্রিকায় ও ভিডিও পোষ্টে মিথ্যা সংবাদ প্রচারের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানালেন মুসলেম চেয়ারম্যান রাজধানীতে র‌্যাবের অভিযান; ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার তানোর থানা পুলিশ কর্তৃক ওয়ারেন্টভুক্ত ও মাদকসেবী ২আসামী গ্রেফতার রাজশাহী নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের চার দফা দাবিতে বিক্ষোভ নওগাঁর মান্দায় দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার ১৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত পাইকগাছায় মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত রেকজিল এগ্রো ডাচ কোম্পানির সাথে কৃষি মন্ত্রীর বৈঠক ৬৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধ ঘোষণা ব্রহ্মপুত্র নদের চিলমারী পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৭৬ সে.মি উপর দিয়ে প্রবাহিত তাহিরপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের ত্রাণসামগ্রী ও জরুরী ওষুধপত্র বিতরণ সুন্দরগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতিতে একজনের মৃত্যু: পানি সম্পদ সচিবের পরিদর্শন

নিয়োগবিধি হালনাগাদ না হওয়ায় পদোন্নতি নেই পরিবার পরিকল্পনা কর্মীদের

Spread the love

নিয়োগবিধি হালনাগাদ না হওয়ায় পদোন্নতি নেই পরিবার পরিকল্পনা কর্মীদের

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের রাজস্ব খাতে স্থানান্তরিত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের নিয়োগবিধি হালনাগাদ করার দাবি জানিয়েছেন। বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা মাঠ কর্মচারী সমিতি বলছে, নিয়োগবিধি হালনাগাদ না হওয়ায় তাদের পদোন্নতি হচ্ছে না। গতকাল শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে সমিতির পক্ষ থেকে এ দাবি তুলে ধরা হয়। লিখিত বক্তব্যে সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ ফিরোজ মিয়া বলেন, ২০০১ সালে শেখ হাসিনা সরকারে আসার পর মাঠকর্মীসহ ৪৩ হাজার ৫৪০ কর্মকর্তা-কর্মচারীর চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু দীর্ঘ ২১ বছরেও নিয়োগবিধি হালনাগাদ না করায় অনেক কর্মী কোনো পদোন্নতি ছাড়াই অবসরে গেছেন। বর্তমান বেতন কাঠামোতে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের ১৬ এবং পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শকদের ১৭ নম্বর গ্রেডে রাখা হয়েছে যা পুরনো নিয়মে চতুর্থ শ্রেণির সমতুল্য। নিয়োগ বিধি হালনাগাদ করে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের ১১ এবং পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শকদের ১০ নম্বর গ্রেড (পুরনো নিয়মে তৃতীয় শ্রেণি) দেওয়ার দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। পাশাপাশি নিয়োগবিধিতে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচএসসি এবং পরিদর্শকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি নির্ধারণের দাবি জানানো হয়। বর্তমানে ৪ হাজার ৫০০ পরিদর্শক এবং ২৩ হাজার ৫০০ সহকারী পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরে চাকরিরত বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নাজনীন আক্তার বলেন, আমরা যদি চতুর্থ শ্রেণির হয়ে থাকি, তাহলে কোনো কক্ষের সামনে বসে থাকব, পিয়নের কাজ করব; আমাদের কাছে তো টেবিল কাগজ কলম থাকার কথা নয়। দাবি পূরণ না হলে আগামি সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন এবং তারপর প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ