June 1, 2020, 1:23 am

শিরোনাম :
আলফাডাঙ্গায় জীবন বাঁচাতে সংবাদ সম্মেলন করলেন এক বৃদ্ধ রাজশাহীর পুঠিয়ায় কাঠমিস্ত্রির কাজ করে এবারের এসএস’সি পরীক্ষায় সফল রাসেল মিয়া! কৃষক পর্যায়ে রাজাহীর তানোরে নূর মোহাম্মদের ক্ষেতে ৩৭ প্রকারের নতুন ধান উদ্ভাবন! র‌্যাব-৫ এর মাদক বিরোধী অভিযান হেরোইনসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার! পটুয়াখালীতে অতিরিক্ত যাত্রী বহনের দায়ে সুন্দরবন লঞ্চকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা চিলমারী ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে নিখোঁজের তিনদিন পর শিশুর লাশ উদ্ধার গোয়াইনঘাটে জমিয়তের ১লক্ষ টাকার ত্রাণ বিতরণ করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা নয় -ডা. দিপু মনি বক‌শিগঞ্জে জনপ্রতি‌নি‌ধি ও সরকা‌রি কর্মকর্তা-কর্মচারী‌দের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ মৌলভীবাজার নাজিরাবাদ ইউনিয়নের আটঘর এলাকায় এক ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যা

নির্বাচনে হস্তক্ষেপের জন্য এবার পুতিনকেই ‘দায়ী’ করলেন ট্রাম্প

Spread the love

নির্বাচনে হস্তক্ষেপের জন্য এবার পুতিনকেই ‘দায়ী’ করলেন ট্রাম্প

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের ‘কোনো কারণ নেই’ বলার দুদিনের মধ্যেই নিজের অবস্থান পাল্টে ওই হস্তক্ষেপের জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ব্যক্তিগতভাবে দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফিনল্যান্ডের হেলসিংকিতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে একান্তে বৈঠকের পর দেশে ফিরে গত বুধবার সিবিএস নিউজকে তিনি এমনটাই বলেছেন বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। দেশে যা ঘটছে তার জন্য আমি যেমন নিজেকে দায়ী মনে করি, তেমনি একটি দেশের নেতা হিসেবে আপনি তাকেও দায়ী করবেন, অবশ্যই,” সাক্ষাৎকারে বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সোমবার পুতিনের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠকের পর ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে হস্তক্ষেপের জন্য রাশিয়ার সমালোচনা না করে উল্টো মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর বক্তব্য নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে গোটা বিশ্বকে বিস্মিত করেছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প ২০১৬ সালের নির্বাচন নিয়ে ‘রাশিয়ার মাথা ঘামানোর কোনো কারণ নেই’ বলে মন্তব্য করেছিলেন। নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা না রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট, কাকে বিশ্বাস করছেন তিনি, এমন প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেছিলেন, রাশিয়ার এটি করার কোনো কারণ আমি দেখছি না। রাশিয়া এটি করেনি বলে জোরালভাবেই জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন। রুশ প্রেসিডেন্টকে বিশ্বাস না করে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে বিশ্বাস করার কোনো কারণ নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি। রাশিয়ার সঙ্গে নাজুক সম্পর্কের জন্য বিগত মার্কিন প্রশাসনগুলোকেও দায়ী করেন তিনি। যা নিয়ে দেশের ভেতর ট্রাম্পকে কঠোর সমালোচনার মুখে পড়তে হয়, তার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীতারও অভিযোগ তুলেন কেউ কেউ। শীর্ষস্থানীয় অনেক রিপাবলিকান নেতাও তার তীব্র সমালোচনা করেন।

এসব সমালোচনার মুখে ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় পর ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের বলেন, আমি রাশিয়া কেন ওই কাজ ‘করবে না’ বলতে গিয়ে কেন ‘এটি করবে’ বলে ফেলেছিলাম। বাক্যটা আসলে হবে রাশিয়ার এটি না করার কোনো কারণ দেখি না। নিজের বক্তব্যের এ ব্যাখ্যা দেওয়া ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর উপর ‘পূর্ণ আস্থা ও সমর্থন আছে’ বলেও জানান ট্রাম্প। হেলসিংকিতে পুতিন ও ট্রাম্পের মুখোমুখি বৈঠকে দুই নেতার সঙ্গে তাদের দোভাষী ছাড়া আর কেউই উপস্থিত ছিল না। এ নিয়েও সমালোচনার মুখে পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানাতে আগামি সপ্তাহেই মার্কিন কংগ্রেসের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হবেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও।

 

 

 

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ