November 13, 2019, 2:54 pm

শিরোনাম :
আইন মেনে গ্রাম আদালতে বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে – ইউএনও শারমিন আক্তার লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে ছাত্র-ছাত্রীদের মানববন্ধন ভিডিও কনফারেন্সে গাইবান্ধার ৩টি উপজেলাসহ দেশের ২৩টি উপজেলার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির শতভাগ বিদ্যুৎ কার্যক্রমের উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী বোয়ালমারীতে সরকারি পুকুর দখল করে মাছ ও লাউ চাষ চৌগাছায় ৪০ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক এক যুবক বেনাপোল সীমান্তে স্বর্ণেরবার সহ পাচারকারী আটক শার্শার রামপুর বাজারে সরদার ফুড এন্ড বেকারীতে ভ্রম্যমান আদালতের অভিযান ফতেহপুরে ভাই ভাই সমাজ কল্যাণ সংঘর শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠিত সংসদীয় কূটনীতি গুরুত্বপূর্ণ -স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী জনগণ ক্ষমা করবে না কটাক্ষকারীদের -সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

নিজের লেখা গল্পে অভিনয়ে শমী কায়সার

Spread the love

নিজের লেখা গল্পে অভিনয়ে শমী কায়সার

ডিটেকটিভ বিনোদন ডেস্ক

টিভি নাটকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শমী কায়সার। এই সময়ে অভিনয়ে তাকে তেমন দেখা যায় না। প্রতিবছর বিশেষ দিবসের দু’একটি নাটকে অভিনয় করেন। তারই ধারাবাহিকতায় আসছে বিজয় দিবসের জন্য ‘সাড়ে তিন খানা চিঠি’ শিরোনামের একটি নাটকে অভিনয় করলেন তিনি। তবে, এই নাটকের গল্পটি তিনি নিজেই লিখেছেন। তার গল্প থেকে নাটকটি নির্মাণ করেছেন চয়নিকা চৌধুরী। এই নাটকে শমীর সঙ্গে আরো দেখা যাবে জনপ্রিয় অভিনেতা মাহফুজ আহমেদকে। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে আরো অভিনয় করছেন আবুল হায়াত, শর্মিলী আহমেদ, আজম খান এবং শিশুশিল্পী নাদীভ।

আগামী ১৪ই ডিসেম্বর নাটকটি চ্যানেল আইয়ে দুপুর ৩টা ৫ মিনিটে প্রচার হবে। নাটকের গল্পটি প্রসঙ্গে শমী কায়সার বলেন, গল্পের বেশিরভাগ অংশ সত্য ঘটনা থেকে নেয়া। একাত্তরের ১৪ই ডিসেম্বর, যেদিন বাবাকে (শহীদুল্লা কায়সার) পাকিস্তানি বাহিনী ধরে নিয়ে যায়, সেদিনের অনুভূতির জায়গা থেকে গল্পটি লিখেছি। নতুন প্রজন্মের কাছে ১৪ই ডিসেম্বরের ঘৃণ্য অধ্যায়কে সামনে নিয়ে আসার জন্য গল্পটি ছোটপর্দায় তুলে ধরা হচ্ছে। গল্পে দেখা যাবে, একাত্তরে পাকিস্তানিরা বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে যাওয়ার সময় শমীর বাবাকেও ধরে নিয়ে যায়। এরপর তার বিয়ে হয় ধনী পরিবারে। যারা কি না ধনসম্পদ, টাকা-পয়সা, স্বর্ণ-গহনার বাইরে আর কিছুই চিন্তা করে না। নাটকে শমীর শ্বশুরবাড়ির লোকজন মুক্তিযুদ্ধকে উপেক্ষা করে উল্টো ‘গ-গোল’ বলে আখ্যায়িত করে। এদিকে তার শ্বশুর ছিল রাজাকার। ঘটনার পরিক্রমায় ১৪ই ডিসেম্বর শমীর বাবাকে ধরে নিয়ে যায়। কিন্তু প্রতিবছর এ দিনেই তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন বাড়িতে নানা রকম পার্টি করে। এ রকম একটা টানাপড়েন সম্পর্ক নিয়ে এগিয়ে যায় নাটকের গল্প।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ