July 15, 2019, 5:54 pm

নারীর সাথে অসাদাচরণ, একবছর নিষিদ্ধ আফতাব আলম

Spread the love

নারীর সাথে অসাদাচরণ, একবছর নিষিদ্ধ আফতাব আলম

ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক

লতি ইংল্যান্ড ও ওয়েলস বিশ্বকাপে বিতর্কের ঢালি সাজিয়েই বসেছিল আফগানিস্তান ক্রিকেট। বেশ হাঁকডাক করে এসেও হেরেছে টুর্নামেন্টের সবকটি ম্যাচেই। তবে মাঠের ক্রিকেটে নাজুক আফগানরা মাঠের বাইরেই বিতর্কে সরব ছিলেন বেশি। এবার একবছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন পেসার আফতাব আলম, আইসিসির কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গের দায়ে তাকে দুই ম্যাচ আগেই দেশে ফেরত পাঠায় আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। চলতি বিশ্বকাপের শুরু থেকেই আফগানিস্তান ছিল আলোচনায়, হুট করেই দলের অধিনায়কত্বে বড়সড় পরিবর্তন এনে সমালোচনার শুরু। এরপর মোহাম্মদ শেহজাদকে আনফিট দাবি করে বিশ্বকাপের মাঝপথে দেশে ফেরত পাঠানো, দলের বেশ কজন খেলোয়াড়ে রেস্টুরেন্টে মারামারিসহ নানা বিতর্কে জড়িয়ে শিরনাম হয় দলটি। যার মধ্যে টিম হোটেলে এক নারীর সাথে অসাদাচরণে অভিযুক্ত আফতাব আলমের দেশে ফেরত যাওয়া অন্যতম। আইসিসির নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগের পরই তাকে দ্রুত দেশে ফেরত পাঠানো হয়, অপরাধ তদন্তে গঠন করা হয় তদন্ত কমিটিও। নিজেদের বিশ্বকাপ মিশন শেষে দেশে ফিরেই ২৬ বছর বয়সী এই পেসারের ব্যাপারে সিদ্ধান্তে আসে আফগান বোর্ড। তদন্ত কমিটির দেওয়া রিপোর্টের ভিত্তিতেই দেওয়া হয় তার শাস্তি। সবধরনের ক্রিকেট থেকে ১২ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয় ২৭ ওয়ানডেতে ৪১ উইকেট ও ১২ টি-টোয়েন্টিতে ১১ উইকেট নেওয়া আফতাব আলমকে। সাউদাম্পটনে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের পরই তার দেশে ফেরার আদেশ জারি হয়। চলতি বিশ্বকাপে তিন ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়ে ৪ উইকেট নিয়েছেন আফতাব আলম।

প্রসঙ্গত এর আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে হারের পর দর্শকদের দিকে তেড়ে যাওয়া, বোর্ডের আন্তঃকোন্দল, নতুন অধিনায়ক গুলবেদিন নাইবের সাথে সিনিয়র ক্রিকেটারদের সম্পর্কের টানাপোড়নে গুঞ্জনসহ নানা ইস্যুতে টালমাটাল আফগান শিবিরের প্রভাব মাঠের ক্রিকেটেও বেশ ভালোভাবে টের পাওয়া যায়। ৯ টি ম্যাচে মাঠে নেমে একমাত্র দল হিসেবে কোন ম্যাচ না জিতে দেশে ফেরে রাশিদ-নবিরা।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ