January 26, 2020, 5:50 am

পোড়া মাটি স্কুলে পড়াশুনা করছে ইটভাটায় কাজ করা দরিদ্র শ্রমিকদের সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা। ছবি: প্রাইভেট ডিটেকটিভ

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার সোনাকুড়া ইটভাটায় ব্যতিক্রমধর্মী স্কুল সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য

Spread the love

শিবপুর (নরসিংদী) প্রতিনিধিঃ

পোড়া মাটি স্কুলে পড়াশুনা করছে ইটভাটায় কাজ করা দরিদ্র শ্রমিকদের সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা। ছবি: প্রাইভেট ডিটেকটিভ

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার সোনাকুড়া মডার্ন ইটভাটায় কর্মরত ২ শতাধিক শ্রমিকের কোমলমতি সন্তানদের জন্য একটি ব্যতিক্রমধর্মী বিদ্যালয় পরিচালনা করছেন শিক্ষানুরাগী ইটভাটার মালিক হাজ্বী আছর আলী সরকার। বিদ্যালয়টির নাম তিনি রেখেছেন ইট ভাটায় কাজ করা মানুষদের কথা চিন্তা করে ‘পোড়া মাটি’।আছর আলী জানান, এসব শিশু যখন চোখের সামনে কাদা, ধুলাবালি, ময়লা নিয়ে খেলা করতো তখন তাদের দেখে তাদের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে এই বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করার চিন্তা করেন তিনি। ২০১৬ সালে নিজ প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠিত ব্যতিক্রমধর্মী স্কুলটিতে কোমলমতি শিশুদের উৎসাহ দেওয়ার জন্য তিনি আছর আলী প্রতিদিন মজাদার খাবার পরিবেশন করেন। তাছাড়া বাচ্চাদের বিদ্যালয়ের মনোগ্রামসহ পোশাক, বই, খাতা, কলম, বেতন ফ্রি করে দিয়েছেন তিনি।বর্তমানে স্কুলে শিক্ষার্থী ৩০জন। শিক্ষক দুইজন। স্কুলটিতে প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯ থেকে বেলা ১২ পর্যন্ত বাংলা, অংক, ইংরেজি, আরবী শিক্ষা দেওয়া হয়। এছাড়া অবসর সময়ে মহিলা ও পুরুষ শ্রমিকদের নাম লেখা শিখানো হয়।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: হুমায়ুন কবীর  প্রাইভেট ডিটেকটিভ এর  সাংবাদিককে বলেন, ‘বিষয়টি আমি এইমাত্র আপনার মাধ্যমে জানলাম।এটি একটি মহৎকাজ।বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা হাজ্বী আছর আলী সরকার বলেন, ‘আমার মতো প্রতিটি ইটভাটায় এ ধরণের পদক্ষেপ নিলে এই শিশুরা শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হবে না।বিদ্যালয়ের শিক্ষক মুফতি মো: আকরাম হুসাইন বলেন, ‘এই ধরণের প্রতিষ্ঠানে শ্রমিকদের সন্তানদের পাঠদান করতে পেরে আমি ধন্য।কিশোরগঞ্জের মহিলা শ্রমিক মালা বেগম বলেন, ‘আমগর পোলাপানের জন্য এইডা একটা বালা কাজ করছে আমগর মালিক।কিশোরগঞ্জের পুরুষ শ্রমিক হেলাল বলেন, ‘আমার পোলাপানেরা আগে নাম লেকতে পারতো না এহন এই ইস্কুলে লিকতে ও পড়তে পারে।এই জন্য আমরা সবাই খুব খুশি।উল্লেখ্য, আছর আলী সরকার ২০০৪ সালে মোহড় পাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য, বায়তুল ফালাহ জামে মসজিদের সভাপতি ও ইক্করা মহিলা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়া মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল, কবরস্থান, ঈদগাহ সাধ্যমতো সহযোগিতা করেন।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/৩১ ডিসেম্বর ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ