September 20, 2019, 12:32 am

শিরোনাম :
ভোলা লালমোহনে নাতনীর সাথে অসামাজিক কাজের চেষ্টা,এবং দাদা আটক কেশবপুরে অধ্যক্ষের দূর্ণীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় মাদ্রাসা প্রভাষককে মারপিট নগদ অর্থ ও মোবাইল ছিনতাই সুন্দরগঞ্জে পোনা মাছ অবমুক্ত করণ ২০ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে পায়রা বন্দরে নোঙর করেছে জাহাজ এমভি ঝিং হাই টং-৮ আলফাডাঙ্গায় আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা লালপুরে ডাকাতির নাটক সাজাতে গিয়ে বিকাশ কর্মীসহ আটক ২ লতিফিয়া ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সংবর্ধনা সম্পন্ন সহকারী শিক্ষকদের ১১ তম ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ তম গ্রেডের দাবিতে আলফাডাঙ্গায় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মানব বন্ধন শৈলকুপা পৌর ভবন থেকে বিপুল পরিমান ভিজিএফ’র চাউল জব্দ শৈলকুপায় প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডের দাবিতে মানববন্ধন

নজর দিন ত্বকের স্বাস্থ্যে

Spread the love

নজর দিন ত্বকের স্বাস্থ্যে

ডিটেকটিভ লাইফস্টাইল ডেস্ক

গায়ের রঙ ফর্সা হোক আর কালো হোক ত্বকের স্বাস্থ্য যদি ভালো না হয় তাহলে সৌন্দর্য খানিকটা ভাঁটা পড়ে যায়। তাই নিজের সৌন্দর্য ধরে রাখতে চাইলে ত্বকের রঙ নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে ত্বকের স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিন।  ত্বক ভালো রাখতে অনেকেই বাজারের নামকরা কোম্পানির ক্রিম ব্যবহার করেন কিংবা ছুটে চলেন নামী দামী পার্লারে। এসব ক্রিম কিংবা পার্লার ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য যথেষ্ট নয়। ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে আপনাকে খাবারের দিকেও নজর দিতে হবে। কিছু খাবারের কারণেই আপনার ত্বক নষ্ট হয়ে যেতে পারে।  অনেকেই খাবারে লবণ বেশি খান। এই ধরণের বদ অভ্যাস দেহের পাশাপাশি ত্বকেরও ব্যাপক ক্ষতি করে। অতিরিক্ত লবণ খাওয়ার কারণে সোডিয়াম দেহে অতিরিক্ত লিকুইড তৈরি করে যা ত্বকের নীচে এসে জমা হয়ে ত্বকের টিস্যুকে নষ্ট করে দেয়। সে কারণে যে খাবার গুলিতে অতিরিক্ত লবণ রয়েছে যেমন আচার, ভাজাপোড়া, টিনজাত খাবার একেবারে এড়িয়ে চলুন। ডিহাইড্রেশন হলে ত্বকে মারাত্বক প্রভাব পড়তে পারে। এর কারণে ত্বক যেমন রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে পড়ে পাশাপাশি ত্বকে বলিরেখাও দেখা দিতে পারে।

 

কফি, অতিরিক্ত চিনি যুক্ত খাবার, ভাজাপোড়া, জাঙ্ক ফুড ইত্যাদি খাবার খেলে পানির অভাব ঘটতে পারে। ত্বক ভালো রাখতে চাইলে এই ধরণের খাবার থেকে দূরে থাকুন। যে ধরণের খাবারে ক্যাফেইন রয়েছে সেগুলি এড়িয়ে চলুন। ক্যাফেইন দেহে কারটিসোল উৎপন্ন করে যা ত্বকে দ্রুত বয়সের ছাপ ফেলতে সাহায্য করে এবং বলিরেখা পরতে সাহায্য করে।

অ্যালকোহল ও অ্যালকোহল জাতীয় খাবারও ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। অতিরিক্ত অ্যালকোহল পানের ফলে শরীরে অ্যান্টি-ডিউরেটিক হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যাওয়ায় শরীরের পানি শুণ্যতা বেড়ে যায়। ফলে ত্বকে মারাত্বক প্রভাব পড়ে। বেকড বা টিনজাত খাবারে গ্লাইসেমিকন নামক উপাদান থাকে যা রক্তের সুগারের মাত্রার তারতম্যের জন্য ব্যাপক ভাবে দায়ী। এসব খাবার খেলে ত্বকের নিচে মৃত কোষ ও ব্রণের পরিমান বেড়ে যায়।

অতিরিক্ত চিনি জাতীয় খাবার ত্বকের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। রক্তে শকর্রার মাত্রা বেড়ে গেলে তা ত্বকের নিচে রক্ত সঞ্চালনকে বাধা প্রাপ্ত করে। এতে ত্বক নিস্তেজ হয়ে যায় ও ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা নষ্ট হয়ে যায়। শুধু চিনি নয় অতিরিক্ত গুড় বা মধুও ত্বকের জন্য সমান ক্ষতিকর। রেড মিট শরীর এবং ত্বক দুটোর জন্যে সমান ক্ষতিকর। রেড মিট খেলে দেহে ইনফ্ল্যামেটরি রিঅ্যাকশন বেড়ে যায়। ফলে ত্বকে দ্রুত বয়সের ছাপ পড়ে। কোল্ড ড্রিংক কিংবা কোমল পানীয় পানে ত্বক ঝুলে পড়ে এবং বয়সের ছাপ পড়ে। ত্বক ভালো রাখতে কোমল পানীয় খাওয়া বন্ধ করুন।  খুব বেশি তেলেভাজা খাবার বা হাইড্রোজেনেটেড ফ্যাট যেমন ঘি, চর্বি ইত্যাদি শরীরের ফ্যাটি অ্যাসিডের অক্সিডাইজেশন ঘটায়। এটি দেহের ভিটামিন ই ও ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের মতো অ্যান্টি অক্সিডেন্টগুলি নষ্ট করে দেয়। ফলে ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা নষ্ট হয়ে যায় ও ত্বকের টিস্যুকে শুকিয়ে ফেলে। তাই খুব বেশি তেলেভাজা একেবারেই খাবেন না। ক্যালারি কম খাওয়ার আশায় অনেকেই আর্টিফিশিয়াল সুগার খেয়ে থাকেন। এটি ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়াও ফুড কালার ও ফ্লেভারে যে কেমিকেল ব্যবহার হয় তা ত্বকের টিস্যুর মারাত্মক ক্ষতি করে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ