October 13, 2019, 10:13 pm

ত্রুটি স্বীকার করেছে ফেইসবুকের

Spread the love

ত্রুটি স্বীকার করেছে ফেইসবুকের

ডিটেকটিভ প্রযুক্তি ডেস্ক

মেসেঞ্জার কিডস অ্যাপে ত্রুটি থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে ফেইসবুক। দুই সপ্তাহ আগেই অ্যাপটির গোপনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন দুই মার্কিন সিনেটর। বিষয়টি নিয়ে মার্কিন ফেডারেল ট্রেড কমিশনের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে বলেও জানিয়েছে সামাজিক মাধ্যমটি। দুই সিনেটরকে দেওয়া এক চিঠিতে ফেইসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট কেভিন মার্টিন বলেন, “অনেক সমস্যা এবং পণ্য নিয়ে আমরা নিয়মিত এফটিসির সঙ্গে যোগাযোগ করছি, এর মধ্যে মেসেঞ্জার কিডস-এর বিষয়টিও রয়েছে। অ্যাপটিতে প্রযুক্তিগত ত্রুটি থাকার কথা বলা হয়েছে। ২৭ অগাস্ট ম্যাসাচুসেটস-এর সিনেটর অ্যাড মার্কি এবং কানেক্টিকাটের রিচার্ড ব্লুমেনথালের কাছে ফেইসবুকের পক্ষ থেকে ওই চিঠি দেওয়া হয়– খবর বার্তাসংস্থা রয়টার্সের। “আমাদের পর্যালোচনায় উঠে এসেছে, আপনারা যে প্রযুক্তিগত ত্রুটির বিষয়ে জানতে চেয়েছেন তা ২০১৮ সালের অক্টোবরে দেখা দিয়েছিলো। ভবিষ্যতে যাতে এমনটা না হয় সেজন্য ইতোমধ্যেই ত্রুটি সারানো হয়েছে,”– ফেইসবুক। অন্যদিকে বুধবার সিনেটররা বলেন, বিষয়টিতে ফেইসবুকের পদক্ষেপ নিয়ে তারা হতাশ। ফেইসবুকের চিঠির জবাবে মার্কি এবং ব্লুমেনথাল বলেন, “আমরা বিশেষভাবে এই বিষয়টি নিয়ে হতাশ যে, মেসেঞ্জার কিডস অ্যাপের অন্যান্য ত্রুটি বা গোপনীয়তার বিষয়গুলো ফেইসবুক পর্যালোচনা করার কোনো অঙ্গীকার করেনি। চলতি বছরে ৬ অগাস্ট মেসেঞ্জার কিডস অ্যাপে গোপনীয়তা নিয়ে চিন্তার কোনো কারণ আছে কিনা এবং এটির স্বচ্ছতা জানতে চেয়ে ফেইসবুককে চিঠি দেন দুই সিনেটর। চিঠিতে ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গের উদ্দেশ্যে বলা হয় যে, তারা এই বিষয়টি নিয়ে “চিন্তিত” যে গ্রুপ চ্যাটিংয়ে হাজারো শিশু অংশ নিতে পারে এবং সব শিশু তাদের বাবা-মা অনুমতিতে চ্যাটিংয়ে যোগ দেন না।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ