February 21, 2020, 4:56 pm

শিরোনাম :
র‌্যাব-৫ এর অভিযানে বিপুল পরিমান দেশীমদসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কুয়াকাটায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে বকশিগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান একুশে ফেব্রুয়ারী পালন মাতৃভাষা শুধু মুখের ভাষা নয়, আমাদের অস্তিত্বের ভাষা; গোয়াইনঘাটে একুশের মঞ্চ থেকে তাহিরপুরে মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগীতা মৌলভীবাজারে,মহান একুশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উৎযাপন সুন্দরগঞ্জে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত: দাফন সম্পন্ন লামা উপজেলা ফাইতং ইউনিয়ন ৩নং ওয়ার্ডে এম আব্দুর হাই প্রাথমিক বিদ্যালয় আমতলীপাড়া বেনাপোল নো-ম্যান্সল্যান্ডে মাতৃভাষা দিবস পালনে দু’বাংলার ভাষা প্রেমীদের মিলন মেলা প্রবাসী চম্পার মানবতায় মুগ্ধ লালপুরবাসী

তাহিরপুর সীমান্তে বিজিবি সোর্সদের ছত্রছায়া চলছে ওপেন চোরাচালান :ভারতীয় ২টি গরুসহ গ্রেফতার ৩

Spread the love

মোঃ কামাল হোসাইন রাফি,তাহিরপুর(সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

ভারত থেকে পাচাঁরের সময় বিজিবি জোয়ানরা ২টি গরু ও ৩জন চোরাচালানিকে

প্রতিকি ছবি

গ্রেফতার করে তাহিরপুর থানা পুলিশের নিকট হস্থান্তর করলে আজ ৩০.০১.১৯ইং বুধবার সকাল ১০টায় জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্ত এখন সোর্স পরিচয়ধারী বিভিন্ন মামলার আসামীদের নিয়ন্ত্রণে চলছে ওপেন চোরাচালান ।  সোর্স পরিচয়ধারীরা সরকারের লক্ষলক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে রাতের আধারে চোরাই পথে ভারত থেকে হাজার হাজার বস্তা কয়লা ও কয়লার  সাথে বস্তার বিতরে কিরে অবাধে মদ,গাঁজা, ইয়াবা,নাসিরউদ্দিন বিড়িসহ গরু ও ঘোড়া পাচাঁর করলেও বিজিবি কখনোইসোর্স পরিচয়ধারীদের গ্রেফতার করা হয়নি এমন অভিযোগ স্থানীয় এলাকাবাসী ও বৈধ কয়লা ব্যবসায়ীদের। জানাযায়, প্রতিদিনের ন্যায় গত ২৯ জানুয়ারি রোজ মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জেলার তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাট ও চাঁনপুর সীমান্তের রজনীলাইন,নয়াছড়া ও রাজাই সীমান্ত এলাকা দিয়ে বিজিবির সোর্স পরিচয়ধারী মাদক মামলার আসামী মাদক সম্রাট  ইছাক মিয়া,আবু বক্কর,আলমগীর ও রফিকুলের নেতৃত্বে ভারত থেকে কয়লা ও কয়লার বস্তার ভিতর করে মদ ও ইয়াবাসহ বারেকটিলা দিয়ে গরু পাচাঁর করে চানপুরে বারেক টিলায় ভারতীয় ২টি গরু রাখলে এখবর পেয়ে বিজিবি অভিযান চালিয়ে রজনীলাইন এলাকা থেকে চোরাচালানী সিরাজ মিয়া(৪৫) ও আশিকনুর(২৫)কে গ্রেফতার করাসহ বারেকটিলা থেকে ২টি গরু আটক করলেও সোর্সদের গ্রেফতার না করা সহ তাদের বিরুদ্ধে আইনগত কোন ব্যবস্থা  নেয়নি বিজিবি। পরে  গ্রেফতার কৃত ৩জন চোরাচালানিকে তাহিরপুর থানায় হস্থান্তর করলে  আজ ৩০.০১.১৯ইং বুধবার সকাল ১০টায় জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।অন্যদিকে লাউড়গড় বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার হাবিব এর নেতৃত্বে জাদুকাটা নদী ও সাহিদাবাদ এলাকা দিয়ে পাথরের সাথে মদ,গাঁজা,ইয়াবা,নাসিরউদ্দিন বিড়ি,গরু ও ঘোড়া পাচাঁর করছে তারই একান্ত সোর্স পরিচয়ধারী এক সময়ের সবজি বিক্রেতা  জজ মিয়া, বিজিবির মাদক মামলার আসামী নুরু মিয়া । আর পাচাঁরকৃত ১লড়ি পাথর থেকে ২০০টাকা,১টি গরু ও ঘোড়া থেকে ৫হাজার টাকা,১ বস্তা কয়লা থেকে ১৫০টাকা করে চাঁদা নিচ্ছে সোর্স জজ মিয়া, বিজিবির মাদক মামলার আসামী নুরু মিয়া,এছাড়া বালিয়াঘাট সীমান্তের লালঘাট এলাকা থেকে ভারতে নারী পাচাঁরের অভিযোগে চোরাচালানী রবি মিয়া(২৮)কে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু তার একন্ত সহযোগী রবি মিয়ার গডফাদার একাধিক কয়লা,মাদক,অস্ত্র ও চাঁদাবাজি মামলার আসামী সোর্স কালাম মিয়া,জানু মিয়া, জিয়াউর রহমান জিয়া ও ল্যাংড়া বাবুলকে গ্রেফতার করাসহ আইনগত কোন ব্যবস্থা নেয়নি বিজিবি। এবং চাঁরাগাঁও সীমান্তে বিজিবির ওপর হামলার মামলার আসামী বিজিবির সোর্স আব্দুল আলী ভান্ডারী,রমজান মিয়া,হরমুজ আলী,জয়নাল মিয়া,খোকন মিয়া,ফালান মিয়া,মোবারক মিয়া,বাবুল মিয়া ও ফরিদ মিয়াসহ বীরেন্দ্রনগর সীমান্তে সুনামগঞ্জ ২৮ব্যাটালিয়নের বিজিবি অধিনায়কের সোর্স পরিচয়ধারী চোরাচালানী হযরত আলী,মঞ্জুল মিয়া,আলী হোসেন ও মস্তোফা মিয়া মস্তো রয়েছে দাপটের সাথে। এছাড়াও গরু চুরির মামলার আসামী লাউড়গড় গ্রামের আক্তার মিয়া নিজেকে সিলেট সেক্টর কমান্ডার ও সিও’র সোর্স পরিচয় দিয়ে পুরো সীমান্ত এলাকায় গিয়ে করছে ওপেন চাঁদাবাজি। এব্যাপারে সুনামগঞ্জ ২৮ব্যাটালিয়নের বিজিবি অধিনায়ক মাকসুদুল আলম বলেন,সীমান্ত এলাকায় বিজিবির কোন সোর্স নাই,যারা বিজিবি সোর্স পরিচয় দিয়ে চোরাচালান ও চাঁদাবাজি করছে তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। উল্লেখ্য,এর আগে সোর্সদের পাচাঁরকৃত ৮০মে.টন চোরাই কয়লাসহ ৩চোরাচালানীকে গ্রেফতার করলেও সোর্সদেরকে গ্রেফতার করা হয়নি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/৩১ জানুয়ারি ২০১৯/ইকবাল

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ