June 4, 2020, 12:22 pm

শিরোনাম :
মহামারী মরন ব্যাধী করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৫, সর্বমোট ৭৮১ চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলায় বিএনপি থেকে আয়ামী লীগে যোগ দেয়া সেই আমিনুল ইসলাম ডেঙ্গুজ্বরে মৃত্যু টাঙ্গাইল শহরের পূর্ব আদালতপাড়া পুকুরের চোরাবালি থেকে ২ গাভী উদ্ধার করল ফায়ার সার্ভিস কক্সবাজারের চকরিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় বৃদ্ধকে এ কেমন নির্যাতন! বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দড়িরচর খাজুরিয়া দাখিল মাদ্রাসার কেরানি ও মসজিদের ইমামকে জুতার মালা পরিয়ে লাঞ্ছনা ঢাকা-বরিশাল নৌরুট: রোটেশনে উধাও স্বাস্থ্যবিধি মহামারী মরন ব্যাধী করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ রূপ নেয়ার শঙ্কা মহামারী মরন ব্যাধী করোনায় বিপর্যস্ত অর্থনীতি জিডিপির গতি বৃদ্ধিই বড় চ্যালেঞ্জ আগামী তিন বছর ৮ শতাংশের উপরে প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্য ভারতে রাস্তায় নামছে বেসরকারি বাস আগের ভাড়াতেই সুস্থ আছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন আমি কেবলমাত্র আল্লাহকে জবাব দিতে বাধ্য – অভিনেত্রী জাইরা ওয়াসিম

জৈন্তাপুরে কৃষি কর্মকর্তা সহ করোনা আক্রান্ত ২ জন

Spread the love
এম,এম,রূহেল,জৈন্তাপুর  (সিলেট) প্রতিনিধিঃ
সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার কোন উপসর্গ ছাড়াই সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারী করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়। এ নিয়ে জৈন্তাপুর উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৩, শুরু হতে এপর্যন্ত ৬৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।
জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা  অফিস সূত্রে জানা যায় উপজেলা বিভিন্ন কর্মকর্তা ও কর্মচারী সরকারি কাজে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ও জেলায় যাতায়াত করেন। মেডিকেল টিম উপজেলার করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের জন্য উপজেলার কর্মকর্তা কর্মচারীরা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন তাদের নমুনা সংগ্রহ কাজ শুরু করে। ২০ মে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ ফারুক হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসের পরিচ্ছন্নতা কর্মী রনি লাল দাসের কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে সিলেট ল্যাবে প্রেরণ করা হয়। ২২ মে রাতে রির্পোটে তাদের করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। বর্তমানে তাদের সিলেটস্থ নিজ নিজ বাসায় হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। অপরদিকে জৈন্তাপুরে প্রথম করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি গত ৬মে সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেন। উপসর্গ ছাড়াই ২জন কারোনা আক্রান্ত হওয়ায় জৈন্তাপুর উপজেলার গঠিত মেডিকেল টিম ২৩ মে শনিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা পারভীন, সহকারি কমিশনার (ভুমি) ফারুক অাহমেদ ও জনপ্রতিনিধি সহ মোট ২১জনের নমুনা সংগ্রহ করে সিলেটের ল্যাবে প্রেরণ করে।
এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আমিনুল হক সরকার প্রতিবেদকে জানান, উপজেলায় কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারী ২জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ ধরা পড়েছে। তাদের সিলেটের নিজ নিজ বাসায় রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। উপসর্গ ছাড়া ২জনের পজেটিভ আসায় আমরা ২৩ মে শনিবার উপজেলার ২১জনের নমুনা সংগ্রহ করি। তিনি আরও জানান উপজেলায় মোট ৬৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে, তার মধ্যে পূর্বের ৩৩ নেগেটিভ, ৩জনের পজেটিভ পাওয়া গেছে, নতুন ২১জনের রেজাল্ট পাওয়ার অপেক্ষায় আছে।এবং উপজেলা  নির্রাহী কর্মকর্তা অফিসের অফিস সহকারী কামাল  এর করোনার ঊপসর্গ সহ নমুনা  সংগ্রহ  করা হয়েছে।
ডিটেকটিভ/২৩ মে ২০২০/ইকবাল
Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ