June 5, 2020, 11:34 am

শিরোনাম :
কোভিড-১৯ মহামারীর সংক্রমণ থেকে রেহাই পেতে বাসা থেকে কাজ করবেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মীরা ভারতে ২৪ ঘণ্টায় মহামারী মরন ব্যাধী করোনায় আক্রান্ত ৯৮৫১ দেশে মহারী মরন ব্যাধী কোভিড রোগীর সংখ্যা ৬০ হাজার ছাড়াল, মৃত্যু ৮১১ আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সফল অস্ত্রোপচার, দোয়া কামনা মহামারী মরন ব্যাধী করোনা কেড়ে নিল আরও ৩০ প্রাণ,শনাক্ত ২৮২৮ জামালপুরে ৩৫ বিজির অভিযানে দুই মাদক ইয়াবা ব্যাসায়ী আটক মেলান্দহে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার যশোরের বাঁকড়া পারবাজার সার্জিকাল ক্লিনিকের উপর মিথ্যা প্রচার মহিপুরে নদীর পাড় দখল করে স্থাপণা নির্মাণের দায়ে ৩জনকে কারাদন্ড মেহেন্দিগঞ্জে ইমামকে জুতার মালা পরিয়ে ঘোরানোর ঘটনায় আটক ১

জেসুস আগুয়েরোর থেকে শিখছেন

Spread the love

জেসুস আগুয়েরোর থেকে শিখছেন

ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক

ক্যারিয়ারের শুরুতে খেলতেন রাইট উইঙ্গার হিসেবে। ম্যানচেস্টার সিটিতে সেই পুরনো পজিশনে ফিরে খুশি গাব্রিয়েল জেসুস। সেই সঙ্গে সের্হিও আগুয়েরোকে ‘ক্লাব লিজেন্ড’ মেনে তার কাছ থেকে প্রতিনিয়ত শিখছেন বলে জানিয়েছেন এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। একই সঙ্গে দুজনকে একাদশে দেখা যায় কম। বৃহস্পতিবার এফএ কাপে সাউথ্যাম্পটনের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জেতা ম্যাচে দুজনকে একসাথে একাদশে নামান কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা। মূল স্ট্রাইকার ছিলেন আগুয়েরো; জেসুসকে খেলানো হয় আরেকটু বড় জায়গা নিয়ে, রাইট উইংয়ে। সাবেক ক্লাব পালমেইরাসে এই পজিশনে আগেও খেলেছেন জেসুস। জাতীয় দলের হয়ে গত কোপা আমেরিকায় তাকে এই ভূমিকায় খেলান কোচ তিতে। মাঠে নিজের জায়গা বদলে দুঃখ নেই ২২ বছর বয়সীর; বরং তিনি খুশিই। “এই পজিশন আমি পছন্দ করি এবং কোচের সিদ্ধান্তকে আমি সব সময় সম্মান জানাইৃকোপা আমেরিকা থেকে আমি ব্রাজিলের হয়ে রাইট উইঙ্গার হিসেবে খেলছি। আমি এটা পছন্দ করি। “ব্রাজিলে আমার পুরোনো ক্লাবে এই পজিশনে খেলা শুরু করেছিলাম। এরপর আমি স্ট্রাইকার হিসেবে খেলি। তবে আমি দুই পজিশনেই খেলতে ভালোবাসি। আপনি একাধিক পজিশনে খেলতে পারেন, এটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। চলতি মৌসুমে গুয়ার্দিওলার একাদশে সাত ম্যাচে সুযোগ পেয়েছেন জেসুস। তার ম্যাচ সংখ্যার চেয়ে মৌসুমে আগুয়েরোর গোল বেশি। ১২ ম্যাচে ১২ গোল করেছেন আর্জেন্টাইন এই স্ট্রাইকার। নিখুঁত ফিনিশার হতে সিটির সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা আগুয়েরোর কাছ থেকে শেখার অনেক কিছু আছে বলে মনে করেন জেসুস। “সের্হিওকে বর্ণনা করা কঠিন। সের্হিও ক্লাবের শীর্ষ গোলদাতা এবং প্রতি ম্যাচে তিনি আমাদের দেখান কেন তিনি শীর্ষ গোলদাতাৃতার থেকে আমাকে শিখতে হবে কারণ তিনি একজন কিংবদন্তি। প্রতি ম্যাচে তিনি গোল করেন। আমিও প্রতি ম্যাচে গোল করতে চাই; কিন্তু আমি মনে করি, আমি ও সের্হিও আলাদা। প্রিমিয়ার লিগে শনিবার ঘরের মাঠে সাউথ্যাম্পটনের বিপক্ষে মাঠে নামবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সিটি। এই ম্যাচেও একই ভূমিকায় দেখা যেতে পারে জেসুসকে।

Facebook Comments
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ